বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ৮৬ বছরেও ফিট জন্মভূমির পিসিমা মিতা, কী খান? দিদি নম্বর ১-এ জবাব, ‘সব খাই, শুধু…’
দিদি নম্বর ১-এ জন্মভূমির পিসিমা মিতা চট্টোপাধ্যায়।

৮৬ বছরেও ফিট জন্মভূমির পিসিমা মিতা, কী খান? দিদি নম্বর ১-এ জবাব, ‘সব খাই, শুধু…’

  • একটুও যেন বদলাননি প্রবীণ অভিনেত্রী। মুখের হাসি দেখে আপনার মন ভালো হবে নিমেষে। 

‘জন্মভূমি’র ঠাকুমাকে মনে আছে আপনাদের। এই এতগুলো বছর পরে যেন একই রকম আছেন অভিনেত্রী। একইরকম প্রাণবন্ত, হাসিখুশি আর সুন্দরী। ‘দিদি নম্বর ১’-এ এসেছিলেন তিনি। সেই এপিসোডের ঝলকই ভাইরাল হয়েছে অনলাইনে। রচনার সাথে গল্প-আড্ডায় জানালেন নিজের ফেলে আসা দিনগুলোর কথা।

১৯৪৪ সালে পুরোদমে কাজ করা শুরু দেন মিতা। জানান, ‘সেইসময় কাগজে ছবি বেরিয়েছিল। পাড়ার সবাই কি ভালোবেসেছিল আমায়’। সাথে জানান অভিনয়ই তাঁর একমাত্র পেশা নয়, বরং নাচ দিয়েই হাতেখড়ি। অল ইন্ডিয়া ডান্স কম্পিটিশনে বরাবর ফার্স্ট হয়েছেন।

কথায় কথায় রচনাকে জানালেন বয়স হয়েছে ৮৬। জানালেন, ‘শারীরিক কারণে অনেকগুলো ফ্র্যাকচার হয়ে যাওয়াতে এখন আর নাচ হয় না। আমি এনসিসি করা মেয়ে, রাইফেল চালানো মেয়ে, ঘোড়ায় চড়া মেয়ে। কিন্তু এখন আর ঠিক করে হাঁটতে পারি না। তবু তো আমি চলছি রে মা… এটার জন্যই আমি ভগবানকে ধন্যবাদ জানাই।’

এখনও কী করে এত ফিট? মিতা জানালেন, ‘আমি সব খাই। তবে মুশকিল হল আমাকে রুটি গুলো ছোট ছোট করে নিতে হয়। আমার উত্তরও খোলা, দক্ষিণও খোলা!’

এই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই মিতাকে ভালোবাসা জানাল সকলে। একজন নেট-নাগরিক লিখেছেন, ‘আমি প্রথম ওনাকে দেখেছিলাম জন্মভূমি সিরিয়ালে। উনি তখন যেমন ছিলেন এখনও সেই একF রকম আছেন। সত্যি অনবদ্য প্রানবন্ততার জীবন্ত উদাহরণ।’ আরেকজন লিখেছেন, ‘বাঃ এত প্রাণখোলা হাসি! তিনি হবেন বিশুদ্ধ বাতাস! তাঁর কাছে আমাদের সত্যিই মাথা নত করে বলতে হবে আপনি আরো আরো অনেক অনেক দিন বাঁচুন আর এভাবে আমাদের হাসি দিয়ে মাতিয়ে রাখুন।’

বন্ধ করুন