বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘আমি বড় পরদার হিরো’, সগর্বে ঘোষণা জনের, ওটিটি-তে পা না রাখার কারণও জানালেন!
ওটিটি-তে কাজ করতে রাজি নন জন আব্রাহাম। (ছবি সৌজন্যে - পিটিআই)

‘আমি বড় পরদার হিরো’, সগর্বে ঘোষণা জনের, ওটিটি-তে পা না রাখার কারণও জানালেন!

  • প্রযোজক হিসেবে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম পছন্দ হলেও, একজন অভিনেতা হিসেবে জন চান শুধুই বড় পরদায় কাজ করতে। তাঁর সাফ কথা, ‘আমার খুব অপমানকর লাগবে কেউ যদি আমার ছবি দেখতে দেখতে মাঝপথেই ট্যাবলেটখানা বন্ধ করে বাথরুমে যায়।’

বলিউডে বেশ লম্বা কেরিয়ার জন আব্রাহামের। ৩১ বছর বয়সে ‘জিসম’ ছবি দিয়ে অভিনয়ে হাতেখড়ি। এরপর থেকে রোম্যান্টিক থেকে অ্যাকশন--বিভিন্ন ঘরানার চরিত্রে দেখা মিলেছে জনের। তবে বিগত কিছু বছর ধরে জনপ্রিয় হওয়া ওটিটি-র স্রোতে গা ভাসাতে রাজি নন একেবারেই। বরং নিজেকে ‘বড় পরদা’র অভিনেতা হিসেবে দেখতেই বেশি পছন্দ করেন।

অভিনেতার পাশাপাশি জন একজন প্রযোজকও। তবে তাঁর প্রযোজিত ছবির ওটিটি-তে মুক্তি পাওয়া নিয়ে কোনও সমস্যা নেই জনের। শুধু অভিনেতা হিসেবে তেমনটা চান না মোটেই। আর এর কারণ নিজেই জানালেন।

জনের কথায়, ‘একজন অভিনেতা হিসেবে আমি বড় পরদাতেই নিজেকে দেখতে চাই। আঈমি বড় পরদার হিরো, আর সেটাই থাকতে চাই। এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে সেই ছবিতেই কাজ করতে চাই, যা বড় পরদায় আসবে। আমার খুব অপমানকর লাগবে কেউ যদি আমার ছবি দেখতে দেখতে মাঝপথেই ট্যাবলেটখানা বন্ধ করে বাথরুমে যায়। সঙ্গে আমি চাই না ২৯৯ বা ৪৯৯ টাকায় নিজেকে লোকের হাতে তুলে দিতে। এটা নিয়ে আমার সমস্যা আছে।’

শেষ জনকে দেখা গিয়েছে 'সত্যমেব জয়তে' এবং ‘ফোর্স ২’-এ। তবে দুটো ছবিই ফ্লপ। এরপর পাঠান-এও তাঁকে দেখা যাবে শাহরুখ খান আর দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে। ডিজিটালাইজেশনের এই যুগে প্রায় সবাই যখন ওটিটি-র দিকে ঝুঁকছে, তখন জনের এই সিদ্ধান্ত কতটা সঠিক, তা তো সময়ই বলবে!

 

বন্ধ করুন