বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Gaatchora: মিঠাইয়ের মতোই কপাল পুড়ছে খড়ির! 'গাঁটছড়া’র জায়গা নেবে নীল-তিয়াসার নতুন মেগা?

Gaatchora: মিঠাইয়ের মতোই কপাল পুড়ছে খড়ির! 'গাঁটছড়া’র জায়গা নেবে নীল-তিয়াসার নতুন মেগা?

স্লট হারানোর খাঁড়া ঝুলছে গাঁটছড়ার উপর!

Gaatchora: দীর্ঘদিন স্লটহারা ‘গাঁটছড়া’, নীল-তিয়াসার ‘বাংলা মিডিয়াম’কে স্লট ছাড়তে হতে পারে খড়ি-ঋদ্ধিদের। জল্পনা তুঙ্গে!

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সময়টা একদম ভালো যাচ্ছে জি বাংলার। টিআরপি-র লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী স্টার জলসার চেয়ে অনেকটা পিছিয়ে আছে জি। তাই চটজলদি চ্যানেলে বিরাট রদবদল হচ্ছে। প্রথম সারির এই দুই চ্যানেলেই একের পর এক নতুন ধারাবাহিক আসছে, যার জেরে বেশকিছু মেগা বন্ধ হচ্ছে আবার বেশকিছু সিরিয়ালকে নিজের স্লট হারাতে হচ্ছে। মাস কয়েক আগেও কেউ ধারণা করতে পারেনি ‘মিঠাই’কে স্লট হারাতে হবে। কিন্তু আগামী সোমবার থেকে তেমনটাই ঘটবে। ‘ধুলোকণা’র সঙ্গে টিআরপি-র লড়াইয়ে পিছিয়ে পড়ায় ‘মিঠাই’কে ফল ভুগতে হয়েছে। এবার সেই পরিস্থিতির মুখেই পড়তে পারেন খড়ি-ঋদ্ধিরা! 

হ্যাঁ, টেলিপাড়ায় জোর গুঞ্জন সন্ধ্যা সাত'টার স্লট ছাড়তে হতে পারে ‘গাঁটছড়া’কে। স্টার জলসাতে খুব শীঘ্রই শুরু হবে ‘বাংলা মিডিয়াম’ এবং ‘পঞ্চমী’। দুটি সিরিয়ালের প্রোমোই সামনে এসে গেছে, অপেক্ষা সম্প্রচার সময়ের। 

‘বাংলা মিডিয়াম’-এ মুখ্য ভূমিকায় রয়েছে জি বাংলার হিট জুটি তিয়াসা লেপচা ও নীল ভট্টাচার্য। খুব শীঘ্রই শুরু হবে এই মেগা সিরিয়াল। এই ধারাবাহিকের কাছেই হয়ত স্লট হারাতে হবে ‘গাঁটছড়া’কে। কেন? 

এই মুহূর্তে টিআরপি তালিকায় সন্ধ্যা সাতটা ছাড়া প্রায় সব কটি স্লটই স্টার জলসার দখলে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জগদ্ধাত্রী হেলায় হারিয়ে দিচ্ছে ‘খড়িদ্ধি’ জুটিকে। শুরুতে ভাবা হয়েছিল ‘আলতা ফড়িং’-এর জয়গা নেবে ‘বাংলা মিডিয়াম’। কিন্তু গত কয়েকদিনে দুর্দান্ত চমক এসেছে ফড়িং-অভ্রর কাহিনিতে। ‘গৌরী এলো’কে জোর টেক্কা দিয়ে চলতি সপ্তাহে স্লটও ছিনিয়ে নিয়েছে ‘আলতা ফড়িং’। তাই মোটামুটি যা হিসাব দাঁড়াচ্ছে তাতে আগামী সপ্তাহে টিআরপি তালিকায় স্লট ফিরে না পেলে ‘বাংলা মিডিয়াম’কে জায়গা ছাড়তেই হবে ‘গাঁটছড়া’কে। তেমনটা হলে অন্য স্লটে সরিয়ে দেওয়া হবে ‘গাঁটছড়া’কে। যদিও এই নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কিছু জানায়নি চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। আগামী 

অন্যদিকে কেমন হবে ‘বাংলা মিডিয়াম’-এর গল্প? 

'বাংলা মিডিয়াম'-এ দেখানো হবে গ্রামের মেয়ে তিয়াসা বাংলা মিডিয়ামে পড়াশোনা করলেও ইংরাজি মিডিয়াম স্কুলে পড়ানোর স্বপ্ন দেখে। বাচ্চাদের বিজ্ঞানের দিদিমণি সে। শহরের খ্যাতনামা ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলে চাকরির অফারও আসে তাঁর কাছে। নীল সেই শহরের সেই নামী ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলের কর্মকর্তা। বাংলা আর ইংরেজি মিডিয়াম মুখোমুখি হলে ঠিক কী হবে? সেটাই বলবে তিয়াসা-নীলের এই ধারাবাহিক। চলতি মাসের শেষে বা আগামী মাসের গোড়ার দিকে শুরু হতে পারে ‘বাংলা মিডিয়াম’।

 

বন্ধ করুন