বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Nysa Devgn: পুরুষ বন্ধুুর সঙ্গে লিফট-বন্দি নাইসা, কাজল-কন্যার উপর থেকে চোখ ফেরানো দায়!
নাইসা দেবগণ 
নাইসা দেবগণ 

Nysa Devgn: পুরুষ বন্ধুুর সঙ্গে লিফট-বন্দি নাইসা, কাজল-কন্যার উপর থেকে চোখ ফেরানো দায়!

  • সোশ্যাল মিডিয়ায় হু হু করে ভাইরাল নাইসা দেবগণের নতুন ছবি। সঙ্গের পুরুষ বন্ধুটি কে? প্রশ্ন নেটপাড়ার। 

দিনে দিনে আরও সুন্দরী হয়ে উঠছেন কাজল কন্যা। বলিউডের স্টারকিডদের মধ্যে অন্যতম নাইসা দেবগণ। প্রায়ই খবরের শিরোনামে উঠে আসেন কাজল-অজয় কন্যা। সুহানার চেয়ে কম জনপ্রিয় নন তিনি। এবার এলিভেটরে এক পুরুষ বন্ধুর সঙ্গে পোজ দিলেন নাইসা। তারকা কন্যার ফ্যান অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার হওয়া সেই ছবিতে এখন তোলপাড় নেটমাধ্যম।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে মুঠোফোন হাতে হাসিমুখে তাকিয়ে রয়েছেন নাইসা, অন্যদিকে তাঁর বন্ধুটি আড়চোখে মন্ত্রমুগ্ধের মতো তাকিয়ে রয়েছেন নাইসার দিকে। ছবিতে নাইসার দেখা মিলল ঘন নীল পোশাকের উপর পশমের জ্যাকেট পরেছিল নাইসা। লিফটের ভিতরের আয়নার সামনে ছবিটি তুলেছেন নাইসা। 

নাইসার পুরুষ বন্ধুটি কে সেই নিয়ে প্রশ্নের শেষ নেই নেটিজেনদের। কেউ কেউ আবার কাজল কন্যার মোহময়ী অবতারেরও প্রশংসা করেছেন। ধেয়ে এসেছে কটাক্ষও। নেটিজেনদের একাংশের মতে ‘দিনে দিনে কাজল ম্যামের মতো দেখতে লাগছে’। কেউ আবার ট্রোল করে বলেছেন, ‘কোথা থেকে প্ল্যাস্টিক সার্জারি করালে?’

দু-দিন আগেই নাইসার অপর একটি ছবি ভাইরাল হয়েছিল, সেখানে সবুজ রঙা ডিপ নেকলাইনের পোশাকে সেক্সি লুকে ধরা দিয়েছিলেন কাজল-অজয় কন্যা। 

গত বছরেই ১৮ পূর্ণ করেছেন নাইসা দেবগণ। আপতত সুইজারল্যান্ডের জিলায়ন ইনস্টিটিউড অফ হাইয়ার এডুকেশনে উচ্চশিক্ষা লাভ করছেন নাইসা। ২০০৩ সালের ২০ এপ্রিল জন্ম অজয়-কাজল কন্যার।স্টারকিড হওয়ার সুবাদে ছোট থেকেই চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন নাইসা। পাপারাতজিদের ক্যামেরা হামেশাই ঘিরে থাকে নাইসাকে। যা নিয়ে একাধিকবার উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পাপা অজয়।

আর পাঁচজন তরুণীর মতোই বন্ধুদের নিয়েই তাঁর গোটা জগত। সুহানার মতো খুব বেশি স্টার কিডদের সঙ্গে মেলামেশা করতে দেখা যায় না নাইসাকে। গত বছরের শুরুতেই সিঙ্গাপুরের জিলায়ন ইনস্টিটিউট অফ হাইয়ার এডুকেশন থেকে ইন্টারন্যাশন্যাল হসপিটালিটি নিয়ে স্নাতোক ডিগ্রী লাভ করেছেন নাইসা।

মা-বাবার পদচিহ্ন অনুসরণ করে নাইসাও কি বলিউডে কেরিয়ার গড়বেন? নাকি অন্য কোনও পেশার সঙ্গে যুক্ত হবেন, এই প্রশ্নের উত্তর পেতে অপেক্ষা আর বছরখানেকের।

 

বন্ধ করুন