দুর্ঘটনায় মৃত তিন সহকর্মীকে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়ে সাংবাদিকদের সামনে কমল হাসান (পিটিআই)
দুর্ঘটনায় মৃত তিন সহকর্মীকে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়ে সাংবাদিকদের সামনে কমল হাসান (পিটিআই)

মাত্র চার সেকেন্ড! যেভাবে নিশ্চিত মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরলেন কমল হাসান

  • বুধবার রাতে কমল হাসানের ইন্ডিয়ান টু-র শ্যুটিংয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন তিন টেকনিশিয়ান, আহত নয় জন।
  • নিহতদের পরিবারকে ১ কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেবেন অভিনেতা কমল হাসান।

অল্পের জন্য মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এলাম’-বললেন অভিনেতা কমল হাসান। বুধবার তাঁর আসন্ন ছবি ইন্ডিয়ান টুয়ের সেটে ঘটে যাওয়া ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনার ঘোর এখন কাটিয়ে উঠতে পারেননি কমল হাসান। শ্যুটিং চলাকালীন একটি ক্রেন আচমকা ১৫০ ফুট উপর থেকে ভেঙে পড়লে মৃত্যু হয় তিন টেকনিশিয়ানের। কমল হাসান জানিয়েছেন একটু এদিক ওদিক হলে প্রাণ হারাতে হত পরিচালক শঙ্করকেও। অভিনেতা জানান, ‘নিমেষের জন্য বেঁচে গেলাম। দুর্ঘটনার চার সেকেন্ড আগেও শঙ্কর এবং ক্যামেরাম্যান ওই জায়গা থেকে সরে যায়। এবং আমাদের স্পট থেকে সরতে বলে। আমিও একদম কাছেই দাঁড়িয়েছিলাম নায়িকা কাজল আগারওয়ালের সঙ্গে’।

তিন সহকর্মীর মৃত্যুতে আগেই গভীর শোকপ্রকাশ করেছিলেন কমল হাসান। এবার জানা গেল তাঁদের পরিবারের জন্য ১ কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেবেন মক্কাল নীধি মাইনাম প্রধান কমল হাসান। যদিও তাঁদের শোক কোনভাবেই এই অর্থ দিয়ে দূর হওয়ার নয়, জানিয়েছেন কমল হাসান। তবুও দুঃসময়ে সহকর্মীদের পরিবারের পাশে দাঁড়াতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন পরিচালক শঙ্কর (পিটিআই)
দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন পরিচালক শঙ্কর (পিটিআই)


কমল যোগ করেন,'যদি না তাঁকে সেই জায়গা থেকে সরানো হতো তাহলে আজ হয়ত তাঁর জায়গায় অন্য কেউ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলত-‘আমার মনে হয় এই ধরণের দুর্ঘটনা গুলো সুনামির মতো। সে জানে না কে গরীব কে বড়লোক।তামিল ইন্ডাস্ট্রি সহ প্রত্যেক ইন্ডাস্ট্রিকে দায়িত্ব নিতে হবে তাঁর কর্মীদের। আমি অনুরোধ করছি ইন্ডাস্ট্রির সকলকে যাতে কর্মীদের সুরক্ষার বিষয়টিতে আরও জোর দেওয়া হয়’।

বুধবার রাত সাড়ে নটা নাগাদ চেন্নাইয়ের ইভিপি ফিল্ম সিটিতে ইন্ডিয়ান টুয়ের শ্যুটিং চলাকালীন প্রায় ১৫০ ফুট উঁচু ক্রেন আচমকাই ভেঙে পড়ে। ইউনিটের সদস্যরা কিছু বুঝে উঠার আগেই ভেঙে পড়া অংশের নীচে চাপা পড়ে মৃত্যু হয় তিনজনের, আহত হন কমপক্ষে নয় জন। এই ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনায় প্রাণ গিয়েছে ছবির সহকারী পরিচালক কৃষ্ণা, আর্ট অ্যাসিস্ট্যান্ট চন্দ্রন এবং প্রোডাকশন অ্যাসিস্ট্যান্ট মধু’র।

ক্রেন অপারেটরের বিরুদ্ধে গাফিলতির জেরে মৃত্যু সহ আইপিসির একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে, জানিয়েছেন পুলিশ। যদিও আপতত সে পলাতক। তাঁর খোঁজ চালাচ্ছে চেন্নাই পুলিশ।

বন্ধ করুন