বাড়ি > বায়োস্কোপ > মণিকর্ণিকা ফিল্মস-এর অফিস ভাঙতে চায় বিএমসি , চাঞ্চল্যকর অভিযোগ কঙ্গনার
অবাধ নির্মাণের মিথ্যা অভিযোগে তাঁর অফিস ভাঙার পরিকল্পনা করেছে বিএমসি, দাবি কঙ্গনার।
অবাধ নির্মাণের মিথ্যা অভিযোগে তাঁর অফিস ভাঙার পরিকল্পনা করেছে বিএমসি, দাবি কঙ্গনার।

মণিকর্ণিকা ফিল্মস-এর অফিস ভাঙতে চায় বিএমসি , চাঞ্চল্যকর অভিযোগ কঙ্গনার

  • বিনা নোটিশে অফিস ভাঙতে লোক পাঠিয়েছে বিএমসি, শিব সেনার নাম না করে অভিযোগ কঙ্গনা রানাওয়াতের।

MUMBAI : বৃহন্মুম্বই পুরসভার বিরুদ্ধে এবার বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন বলিউডের কন্ট্রোভার্সি কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত । পুরসভার পক্ষ থেকে তাঁর অফিস স্পেসকে অবৈধ নির্মাণের আওতায় এনে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে টুইটারে দাবি করেন অভিনেত্রী । 

বর্তমানে হিমাচল প্রদেশে ছুটিতে রয়েছেন কঙ্গনা । ক'দিন আগেই মুম্বই শহরকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করে শিব সেনার সঙ্গে সরাসরি তিক্ততার সম্পর্কে জড়ান অভিনেত্রী । আর ঘটনাচক্রে তাঁর মুম্বই ফেরার ক'দিন আগেই হঠাৎ এই ধরণের অভিযোগে ওঠায় নতুন করে জল্পনা তৈরি হয়েছে।

এ দিন নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে একটি ভিডিও পোস্ট করে হিন্দিতে কঙ্গনা দাবি করেন , 'এটাই মনিকর্ণিকা ফিল্মের অফিস। দীর্ঘ ১৫ বছর অক্লান্ত পরিশ্রম করে আমি এই অফিস তৈরি করেছি । আমার স্বপ্ন ছিল যদি কোনওদিন ছবির পরিচালক হতে পারি, তখন যেন সম্পূর্ণ নিজস্ব অফিস থাকে। কিন্তু আমার স্বপ্ন ধূলিসাৎ হওয়ার পথে। কারণ আজ আচমকাই বি এম সি-র  কয়েকজন আধিকারিক আমার অফিসে চড়াও হয়েছেন।' 

এর পরেই আর একটি ভিডিও পোস্ট করেন কঙ্গনা, যেখানে কয়েকজনকে তাঁর অফিসে ঘুরেফিরে পর্যবেক্ষণ করতে দেখা যায় । নিজের পোস্টে কঙ্গনা দাবি করেন , প্রতিবেশীরা বাধা দিতে এলে ওই আধিকারিকেরা জানান ‘আপনাদের ওই ম্যাডামের কৃতকার্যের ফল সবাইকে ভোগ করতে হবে।  আমি খবর পেয়েছি আগামিকাল আমার অফিস ভেঙে ফেলতে লোক পাঠানো হবে। মণিকর্ণিকা ফিল্মস অফিসের পুরসভার অনুমোদন এবং সমস্ত আইনি কাগজপত্র যথাযথ থাকার পরেও, আগে থেকে কোনও নোটিশ বা বাড়ির প্ল্যানের নথি পাঠিয়ে ঠিক কোথায় অবৈধ নির্মাণ হয়েছে , তার কিছুই জানানো হয়নি । অথচ আগামিকাল নির্মাণ ভেঙে ফেলার জন্য লোক পাঠানো হবে।’

সম্প্রতি নিজের সুরক্ষার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্ত্বা পেয়েছেন সুন্দরী বলি-তারকা । তাঁর আবেদনে সাড়া দিয়ে সহায়তা করার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে টুইটারে অসংখ্য ধন্যবাদ জানান অভিনেত্রী ।

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই বলিউডে স্বজনপোষণ নিয়ে টুইটারে ধারাবাহিক ভাবে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন কঙ্গনা । সম্প্রতি মুম্বই শহর সম্পর্কে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্যের পরেই শিবসেনা প্রধান সঞ্জয় রাউত প্রকাশ্যে তাঁকে মহারাষ্ট্রে পা রাখতে না দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন । 

সেই ঘটনার পরেই সরকারের পক্ষ থেকে তাঁকে বিশেষ নিরাপত্তা প্রদানে উচ্ছসিত কঙ্গনা টুইট করেন, ‘আবারও প্রমাণিত হল কোনও ফ্যাসিস্ট শক্তির আঘাত কখনই কোনও জাতীয়তাবাদী কণ্ঠস্বরকে চেপে দিতে পারে না । শ্রদ্ধেয় অমিত শাহজিকে অসংখ্য ধন্যবাদ । আমায় মুম্বই না ফেরার সহজ পরামর্শ দেওয়ার পরিবর্তে এই ভাবে সাহায্য করে দেশেরই এক নারীর সন্মান রক্ষা করলেন তিনি । আমি কৃতজ্ঞ, জয় হিন্দ।’

বন্ধ করুন