বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অনুরাগ বসুর দাবি 'দুজন কঙ্গনা রানাওয়াত আছে'! হঠাত্‍‌ কেন একথা বললেন পরিচালক?
আজব দাবি!
আজব দাবি!

অনুরাগ বসুর দাবি 'দুজন কঙ্গনা রানাওয়াত আছে'! হঠাত্‍‌ কেন একথা বললেন পরিচালক?

  • ২০০৬ পরিচালক অনুরাগ বসুর হাত ধরেই ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ কঙ্গনার। পরিচালক বলেন, প্রায় ২০-২৫ জন মেয়ে ওই চরিত্রের (গ্যাংস্টারের লিড চরিত্র) জন্য অডিশন দিয়েছিল, ওর মুখটা কেমন আমার মাথায় গেঁথে গিয়েছিল'। 

কঙ্গনার পাবলিক ইমেজ আজ পর্যন্ত ঠাহর করে উঠতে পারেননি পরিচালক অনুরাগ বসু। বলিউডের অন্যতম চর্চিত তথা বিতর্কিত নায়িকা কঙ্গনা রানাওয়াত। হামেশাই সংবাদ শিরোনামে থাকেন পর্দার ‘কুইন’। অনুরাগ বসুর হাত ধরেই আজ থেকে ১৬ বছর আগে রুপোলি সফর শুরু করেছিলেন কঙ্গনা।অভিনেত্রীর ডেব্যিউ ছবি ‘গ্যাংস্টার’-এর পরিচালক অনুরাগ। ছবিতে কঙ্গনার পাশাপাশি দেখা মিলেছিল সাইনি আহুজা এবং ইমরান হাশমির। এই ছবির জন্য একাধিক মঞ্চে সেরা নবাগতা অভিনেত্রীর পুরস্কার উঠেছিল কঙ্গনার হাতে। 

পরিচালকের কথায় কঙ্গনার সঙ্গে সচরাচর দেখা হয় না তাঁর, তবে যখনই দেখা হয় পুরোনো কঙ্গনাকেই খুঁজে পান তিনি। কিন্তু যে ‘পাবলিক পারসোনা’ কঙ্গনা তৈরি করেছেন সেটা বুঝে উঠতে পারেননি অনুরাগ বসু। 

‘প্রায় ২০-২৫ জন মেয়ে ওই চরিত্রের (গ্যাংস্টারের লিড চরিত্র) জন্য অডিশন দিয়েছিল, ওর মুখটা কেমন আমার মাথায় গেঁথে গিয়েছিল- ওর মধ্যে কিছু একটা অভিনবত্ব ছিল’, মিড-ডে'কে জানিয়েছেন অনুরাগ। পাশাপাশি বাঙালি পরিচালক যোগ করেন- ‘শুরু দিকে ওর সবকিছুর জন্য গাইডেন্স দরকার পড়ত। তবে খুব দ্রুত সবকিছু শিখে নেয় কঙ্গনা। আমি গ্যাংস্টারের শ্যুটিংয়ের সময়ই ওর ভিতরের সেই ক্ষমতা আর উন্নতি দেখেছি’। 

‘কঙ্গনার মধ্যে একটা অনন্যতা এবং স্বকীয়তা আছে, যেটা খুব নজরকাড়া, খুব নতুন’,অকপটে জানান পরিচালক। পালটা অনুরাগ বসুর কাছে জানতে চাওয়া হয় ভবিষ্যতে কঙ্গনার কেমন ব্যক্তিত্বের অধিকারী হবেন, সেই নিয়ে কী কিছু আন্দাজ করেছিলেন অনুরাগ? জবাবে পরিচালক বলেন, ‘একদমই নয়। আমাদের সাধারণত দেখা হয় না। আর যখন হয়, তখন পুরোনো কঙ্গনাকেই দেখি। পাবলিকের সামনে ওর যে ইমেজ রয়েছে সেই কঙ্গনাকে আমি খুঁজে পাই না। আমার তো মনে হয় দু-টো কঙ্গনা আছে। একজনকে আমি একেবারেই বুঝি না,চিনিও না’। 

সাম্প্রতিককালে হৃত্বিক রোশন, করণ জোহর, জাভেদ আখতারের মতো বলিউড তারকাদের সঙ্গে প্রকাশ্য সংঘাতে জড়িয়েছেন কঙ্গনা। সুশান্তের মৃত্যুর পর নেপোটিজম এবং বলিউডের মাদকাসক্তি নিয়ে একের পর এক বিস্ফোরক দাবি করেছেন কঙ্গনা। সেই নিয়েও কমচর্চা ও বিতর্ক হয়নি। 

২০১৮ সালে ফের একবার মেন্টর অনুরাগের সঙ্গে জুটি বেঁধে ইমলি নামের এক ছবিতে অভিনয় করবার কথা ছিল কঙ্গনার। তবে পরিচালনার কাজে ফোকাস করবার জন্য শেষ মুহূর্তে এই প্রোজেক্ট থেকে সরে দাঁড়ান কঙ্গনা। এরপর এই প্রোজেক্ট স্থগিত করে দেন অনুরাগ। আপতত কঙ্গনার হাতে রয়েছে ‘থালাইভি’, এবং ‘তেজাস’। শীঘ্রই নিজের প্রযোজনা সংস্থা মনিকর্ণিকা ফিল্মসের আওতায় ‘ অপরাজিতা আযোধ্যা’ ছবিও তৈরি করবেন কঙ্গনা।

বন্ধ করুন