বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > টুইটারে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা,প্রতিবাদী কঙ্গনার শপথ 'ওদের বেঁচে থাকা দুষ্কর করে দেব'
কঙ্গনার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ টুইটারের
কঙ্গনার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ টুইটারের

টুইটারে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা,প্রতিবাদী কঙ্গনার শপথ 'ওদের বেঁচে থাকা দুষ্কর করে দেব'

  • উস্কানিমূলক মন্তব্যের অভিযোগ, সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্টে। 

গত বছর অগস্ট মাসে টুইটারে সরাসরি যোগদান করেন কঙ্গনা রানাওয়া। এরপর থেকে একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য ধরা পড়েছে কঙ্গনার টুইটারের দেওয়ালে। এর জেরে দেশদ্রোহীতার অভিযোগ এনে মামলা পর্যন্ত দায়ের হয়েছে কঙ্গনার নামে, তবে ঠোঁট কাটা এই অভিনেত্রী থেমে যাননি। কখনও কৃষিবিল নিয়ে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের পাশে দাঁড়িয়েছেন, কখনও দিলজিত্ দোসাঞ্জের সঙ্গে টুইট যুদ্ধে নেমেছেন তো কখনও মুভি মাফিয়াদের একহাত নিয়েছেন। এবার কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্টে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করল টুইটার কর্তৃপক্ষ। 

কিন্তু কী কারণে এই নিষেধাজ্ঞা? 

মঙ্গলবার ‘তাণ্ডব’ বিতর্কের আগুনে ঘি ঢেলে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন কঙ্গনা। হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত এনেছে আলি আব্বাস জাফর পরিচালিত আমাজন প্রাইমের এই সিরিজ, এমন অভিযোগ এনেছেন নেটিজেনদের একাংশ। কঙ্গনা রানাওয়াত গত সোমবার একটি টুইট করেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘ভগবান শ্রীকৃষ্ণ শিশুপালর ৯৯টা ভুল ক্ষমা করেছিল.. প্রথমে শান্তি পরে ক্রান্তি.. তাঁদের গর্দান নামিয়ে দেওয়ার সময়... জয় শ্রী কৃষ্ণ’। তবে বিতর্কিত টুইট মুছে ফেলেন অভিনেত্রী। তবে ততক্ষণে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল কঙ্গনার এই টুইট। অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ তোলেন সাইবারবাসীদের একটা অংশ। টুইটার থেকে কঙ্গনাকে বহিষ্কৃত করবার দাবিও জানানো হয়। বুধবার সকাল থেকেই ট্রেন্ডিংয়ে #SuspendKanganaRanaut হ্যাশট্যাগ। এরপরই টুইটারের তরফে সাময়িকভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয় কঙ্গনার অ্যাকাউন্ট।

এই মর্মে টুইটারে ফের বিস্ফোরক মন্তব্য করেন ‘কন্ট্রোভার্সি কুইন’।মেজাজ হারিয়ে তিনি লেখেন, ‘লিব্রু’রা কান্নাকাটি করে জ্যাক (জ্যাক ডরসি, টুইটারের সিইও) চাচাকে বলে আমার অ্যাকাউন্টে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ওঁরা ভয় দেখাচ্ছে যে কোনও সময় আমার অ্যাকাউন্টটি বা আমার ভার্চুয়াল পরিচিতিটা দেশের জন্য শহীদ হয়ে যাবে। কিন্তু আমার ‘দেশভক্ত ভার্সন’ ফের রিলোড হবে আমার ছবির মাধ্যমে। তোমাদের জীবন দুষ্কর করে দিয়ে তবেই দম নেব'।

অপর একটি টুইটে নিজের বিরুদ্ধে চলতে থাকা #SuspendKanganaRanaut ট্রেন্ড প্রসঙ্গে সরব হন নায়িকা। লেখেন, এগুলি ‘অ্যান্টি ন্যাশনাল’দের কাজ।তিনি লেখেন, যখন ওরা রঙ্গোলিকে সাসপেন্ড করিয়েছিল, আমি এসে ওদের জীবন লন্ডভন্ড করে দিয়েছি। এবার যদি আমাকে সাসপেন্ড করে, আমি ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ড থেকে বিদায় নেব, তবে আসল জীবনে দেখাব কঙ্গনা রানাওয়াত আসলে কী জিনিস- সব দাদাদের উপরে আমি… ব্ববর শেরনি'। 

অন্যদিকে দেশজুড়ে চলা ‘তাণ্ডব’ বিরোধের জেরে মঙ্গলবারই নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে নিয়েছে গোটা টিম। আলি আব্বাস জাফর জানিয়েছেন বিতর্কিত দৃশ্য ছেঁটে ফেলা হবে সিরিজ থেকে।

বন্ধ করুন