বাড়ি > বায়োস্কোপ > 'বুলিউডে' নারকোটিক্স কন্ট্রোল হানা দিলে অনেক এ-লিস্টার জেলে থাকবে : কঙ্গনা
ফের বিস্ফোরক কঙ্গনা রানাওয়াত 
ফের বিস্ফোরক কঙ্গনা রানাওয়াত 

'বুলিউডে' নারকোটিক্স কন্ট্রোল হানা দিলে অনেক এ-লিস্টার জেলে থাকবে : কঙ্গনা

  • বলিউড পার্টির অন্দরের কালো দুনিয়ার সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল তাঁর, বিস্ফোরক দাবি কঙ্গনা রানাওয়াতের। 

রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে যোগ রয়েছে মাদক চক্রের। মঙ্গলবার এই খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে নেমে ইডির হাতে এই তথ্য আসে। এরপর  সিবিআই এবং নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর সঙ্গে এই তথ্য ভাগ করে নেয় এনফোর্সমেন্ট ডিপারমেন্ট। ইডির তরফে চিঠি যায় নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর দফতরে। সেই আবেদন গ্রহণ করে বুধবার সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে যোগ এনসিবি। 

এনসিবির এই মামলার তদন্তে যোগ দেওয়ার কয়েকঘন্টার মধ্যেই এই বিস্ফোরক মন্তব্য কঙ্গনা রাওয়াতের। এই বলিউড নায়িকা  টুইট করে দাবি করলেন, যদি বুলিউডে (বলিউড) হানা দেয় এনসিবি তাহলে অনেক এ-লিস্টার (প্রথম সারির তারকা) জেলে থাকবে'।

বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা এই নায়িকা আরও লেখেন, ‘যদি রক্ত পরীক্ষা করা হয় অনেক ভয়ানক তথ্য সামনে আসবে। আশা করছি প্রধানমন্ত্রীর স্বচ্ছ ভারত মিশনের আওতায় বুলিউড নামের নর্দমাটাও পরিষ্কার হয়’।

বলিউড পার্টির অন্দরে নিজের ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথাও এদিন জানালেন কঙ্গনা রানাওয়াত।

অভিনেত্রী লেখেন, 'আমি তখনও নাবালিকা ছিলাম, আমার মেন্টর থেকে নির্যাতনকারীতে বদলে যাওয়া ব্যক্তি আমার পানীয়তে কিছু মিশিয়ে দিত এবং পুলিশের কাছে যাওয়া থেকে আমাকে থামিয়ে দিত। যখন আমি সফল্য পেলাম এবং বলিউডের জনপ্রিয় ফিল্ম পার্টিগুলোতে ডাক পেলাম তখন নিজে দেখলাম চাঞ্চল্যকর সব সত্যি এবং অশুভ শক্তিতে ভরপুর দুনিয়া, ড্রাগ,লম্পট লোকজন এবং মাফিয়া'।

রিয়া চক্রবর্তীর মাদক যোগ খতিয়ে দেখছে এনসিবি। ইতিমধ্যেই সব ডকুমেন্ট হাতে পেয়েছে এনসিবি। সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে মাদকের কোনও যোগ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখবে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। আপতত প্রাথমিক তদন্ত করছে তাঁরা, কিন্তু উপযুক্ত প্রমাণ মিললে রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে পৃথক মামলা দায়ের করবে এনসিবি। 

বুধবার এনসিবি প্রধান রাকেশ আস্তানা জানিয়েছেন, ‘আমার ইডির তরফে একটি চিঠি পেয়েছি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় যেখানে বলা হয়েছে তাঁরা নিজেদের তদন্তে আর্থিক তছরুপের দিকটা খতিয়ে দেখবার সময় খোঁজ পেয়েছে রিয়া এবং সুশান্তকে ড্রাগের জোগান দেওয়া হত। এবার এনসিবির একটি টিম তদন্ত করবে এবং এর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করবে’।

বন্ধ করুন