বাড়ি > বায়োস্কোপ > দেশভক্তি নিয়ে খোঁচা, করণ জোহরের জন্য কবিতা লিখলেন কঙ্গনা
করণ জোহরের দেশভক্তিকে কাঠগড়ায় তুলে কবিতা রচনা করলেন কঙ্গনা রানাউত।
করণ জোহরের দেশভক্তিকে কাঠগড়ায় তুলে কবিতা রচনা করলেন কঙ্গনা রানাউত।

দেশভক্তি নিয়ে খোঁচা, করণ জোহরের জন্য কবিতা লিখলেন কঙ্গনা

  • জাতীয়তাবাদীর দোকান চালাতে হবে কিন্তু দেশভক্তি দেখানো যাবে না। করণ জোহর তুই কবে বুঝবি যে সেনানী শুধুমাত্র সেনানীই হয়।

সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া করণ জোহরের ছবি ‘গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল’ নিয়ে বিতর্কের আগুনে ঘি ঢাললেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। নির্মাতা করণের দেশভক্তিকে কাঠগড়ায় তুলে কবিতা রচনা করলেন অভিনেত্রী, যা টুইটারে পোস্ট করল তাঁর অনুগামী ‘টিম কঙ্গনা রানাউত’। 

করণকে বিদ্রুপ করে সেই কবিতায় কঙ্গনা লিখেছেন, ‘জাতীয়তাবাদীর দোকান চালাতে হবে কিন্তু দেশভক্তি দেখানো যাবে না। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ নিয়ে ছবি খুব চলে, আমিও তা বানাব, কিন্তু ছবির খলনায়কও হবে হিন্দুস্তান। এখন সেনায় তৃতীয় লিঙ্গের প্রতিনিধিদেরও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, কিন্তু করণ জোহর তুই কবে বুঝবি যে সেনানী শুধুমাত্র সেনানীই হয়।’

গুঞ্জন সাক্সেনা ছবিটির তীব্র সমালোচনা করে টিম কঙ্গনা টুইট করেছে, ‘সব মিলিয়ে জিএস (গুঞ্জন সাক্সেনা) খুবই মামুলি ছবি যা এক সৈন্য জীবনের নির্যাস ও তার বৃহত্তর ব্যপ্তিকে স্পর্শ করতে ব্যর্থ হয়েছে। প্রতিপক্ষদের মুখের কথা, আমরা এখানে এসেছি ভারত মা-কে রক্ষা করতে আর তুমি এসেছো সম-অধিকার পেতে, এটাই ছবির মূল কথা এবং শেষ পর্যন্ত গুঞ্জনই জয় হয়, ভারতের নয়। দুঃখজনক।’

টুইটে আরও বলা হয়েছে, ‘অনিচ্ছুক দেশভক্তি ছবির প্রতি দৃশ্যে, বেশ কয়েক বার গুঞ্জনকে বলতে শোনা গিয়েছে, আমি দেশকে ভালোবাসি না শুধু প্লেনে উড়ে বেড়াতে চাই। কখনও বোঝানো হয়নি যে, তিনি দেশপ্রেমী বা উর্দির গুরুত্বও তিনি বুঝেছেন বলে মনে হয়নি। তিনি শুধু বলেছেন, বাবা আমি আমনার সম্মান নষ্ট করব না।’

ভারতীয় বায়ুসেনা এবং জাতীয় মহিলা কমিশন প্রধান রেখা শর্মার দাবি, ছবিতে দেখানো বায়ুসেনার মধ্যে লিঙ্গ বৈষম্য একেবারেই অসত্য। প্রাক্তন ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট গুঞ্জন সাক্সেনা স্বয়ং জানিয়েছেন, বায়ুসেনায় তাঁকে কখনই লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার হতে হয়নি, আবার তারই পাশাপাশি ছবির সত্যতা রক্ষার স্বার্থে তিনি বলেছেন, মহিলা হওয়া সত্ত্বেও তিনি সম পরিমাণ সুযোগ পেয়েছেন, যা ছবিতে ফুটে উঠেছে।

বন্ধ করুন