বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ইংল্যান্ডের রাস্তায় ছবি তুলতে গিয়ে নাস্তানাবুদ; ‘দুঃখের কাহিনি’ শোনালেন করণ
আলিয়াকে নিজের সেই 'দুঃখের কাহিনি' শোনাচ্ছেন করণ। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)
আলিয়াকে নিজের সেই 'দুঃখের কাহিনি' শোনাচ্ছেন করণ। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

ইংল্যান্ডের রাস্তায় ছবি তুলতে গিয়ে নাস্তানাবুদ; ‘দুঃখের কাহিনি’ শোনালেন করণ

  • একবার ভারতীয় পর্যটকদের কাছে সেলফি তুলতে গিয়ে বেজায় নাস্তানাবুদ হয়েছিলেন করণ জোহর। নিজের মুখেই তাঁর জীবনের সেই 'দুঃখের কাহিনি' শুনিয়েছিলেন এই বিখ্যাত বলি-পরিচালক।

পর্দার নায়ক কিংবা অভিনেতা না হয়েও তাবড় তাবড় বলিউড তারকাদের টেক্কা দিতে পারে করণ জোহরের জনপ্রিয়তা। বলিউডের অন্যতম সেরা পরিচালক - প্রযোজক হিসেবে করণের খ্যাতি ছাড়িয়েছে ভারতের সীমানা। তাই এই বলি-ব্যক্তিত্বকে হাতের নাগালে দেখলে যে সেলফি তোলার আবদার করবে না সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে তাঁর অনুরাগীরা, এতে আর আশ্চর্যের কী আছে। তবে জানেন কি বিদেশে একবার ভারতীয় পর্যটকদের কাছে এই সেলফি তোলার ব্যাপারে কিরকম নাস্তানাবুদ হয়েছিলেন 'কুচ কুচ হোতা হ্যায়' এর পরিচালক? নিজের মুখেই সেই গল্প আলিয়া ভাটকে শুনিয়েছিলেন করণ।

২০১৭ সালে নিজের ৪৫তম জন্মদিনের আগে আড্ডা মারতে ফেসবুক লাইভে হাজির হয়েছিলেন করণ। কথায় কথায় উঠে এল সেলফি তোলার প্রসঙ্গ। সেই কথাতেই এই 'দুঃখের কাহিনি' শুনিয়েছিলেন 'কভি খুশি কভি গম' এর নির্দেশক। করণের কথায়,' ওই সময় ইংল্যান্ডে ছিলাম। বাড়ি ফিরব, তাই মুম্বই যাওয়ার ফ্লাইট ধরার তাড়া ছিল। তাই শেষমুহূর্তে মায়ের ফরমায়েশ মতো রাজ্যের শপিং করে কোনওরকমে পড়িমরি করে ছুটছি। এমন সময় দেখি রাস্তার মাঝে এক ভারতীয় দম্পতি আমাকে দেখে রীতিমতো হাত নেড়ে ডাকছে। মনে মনে ততক্ষণে প্রমাদ গুনছি আমি। কারণ একে তো দেরি হয়ে গেছে তার ওপর নিশ্চয়ই এখন সেলফির আবদার আসবে। ফলে আরও দেরি হয়ে যাবে আমার। আর না করলেই খামোকা বদনাম জুটবে। এইসব সাতপাঁচ ভাবতে ভাবতে তাঁদের সামনে হাজির হয়ে কোনওরকমে বললাম,'একটু তাড়াতাড়ি করুন'।'

সামান্য থেমে হাসতে হাসতে ফের শুরু করেন বলি পরিচালক, 'ভেবেছিলাম সেলফি তুলিয়ে তাড়াতাড়ি কেটে পড়ব। মুখও বাড়িয়েছিলাম। হঠাৎ দেখি আমার হাতেই ক্যামেরা ধরিয়ে ওঁরা নিজেরাই পোজ দিয়ে দাঁড়ালো। আমাকে চিনতেই পারেননি ওঁরা। আমি তোঅবাক ।অপ্রস্তুত অবস্থা কেটে যাওয়ার আগে ছবিও তুলে দিলাম আমি। তখনও ঘোর কাটেনি আমার। বুঝলাম আমাকে চেনেই না। ছবি তুলে দেওয়ার পর আমাকে ধন্যবাদ জানিয়ে কোনও পাত্তা না দিয়ে নিজেদের মধ্যে দিব্যি গল্প করতে করতে হাঁটা লাগিয়ে দিল সেই জুটি'।

বন্ধ করুন