বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'পাতানো ভাইয়ের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক', প্রাক্তন স্ত্রীকে নিয়ে অভিযোগ করণের
করণ মেহরা এবং নিশা রাওয়াল গত বছর আলাদা হয়ে যান।

'পাতানো ভাইয়ের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক', প্রাক্তন স্ত্রীকে নিয়ে অভিযোগ করণের

  • প্রাক্তন স্ত্রী নিশা রাওয়ালকে নিয়ে একাধিক গুরুতর অভিযোগ তুললেন করণ। বললেন, প্রাণনাশের হুমিকও পাচ্ছেন তিনি।

২০২১ সালে বিবাহবিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করেছিলেন টেলিভিশন জুটি করণ মেহরা ও নিশা রাওয়াল। টিভি সিরিয়াল ‘ইয়ে রিশতা কেয়া কেহলাতা হ্যায়’ খ্যাত করণ এবং তার স্ত্রী নিশা রাওয়ালের মধ্যে বিগত দেড় বছর ধরে সম্পর্কের টানাপোড়েন উঠে আসছে। 

করণ তাঁর স্ত্রী নিশার বিরুদ্ধে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ করেছেন। বৃহস্পতিবার এক সংবাদিক সম্মেলনে এসে একথা জানান করণ।

এই প্রেস কনফারেন্সে করণ মেহরা তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী নিশা রাওয়ালকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন। অভিনেতা বলেছেন, ‘নিশা রোহিত সাতিয়া নামের একজনকে ডেট করছে। তিনি অনেক দিন ধরে আমাদের পরিচিত। তিনি নিজেকে নিশার ভাই হিসেবে পরিচয় দিয়েছিলেন। তাঁর কন্যাদানও করেছিলেন। আমি কখনই ভাবতে পারিনি এইরকম কিছু তাঁদের মধ্যে থাকতে পারে। তিনি নিশার সঙ্গে আমার বাড়িতেই থাকেন। আমার খুদে ছেলেও ওই বাড়িতে থাকে, আমার কাছে এটাই প্রশ্নবিদ্ধ।’

আরও পড়ুন: 'জাহ্নবী সম্পর্কে প্রথমে নিশ্চিত ছিলাম না..', কেন বললেন ‘গুড লাক জেরি’র যশবন্ত?

করণ আরও শেয়ার করেছেন যে তিনি এবং তাঁর পরিবারের সদস্যরা অজানা লোকদের কাছ থেকে মৃত্যুর হুমকি পাচ্ছেন। তিনি আরও জানান, ইতিমধ্যে এই বিষয়ে ইমেলের মাধ্যমে কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ করেছেন। 

অভিনেতা বলেন, 'আমি 'বেনামী কোনও কলার আইডি নম্বর' থেকে মৃত্যুর হুমকি পাচ্ছি। আমি সাধারণত এই ধরনের কলগুলির উত্তর দেওয়া এড়িয়ে যাচ্ছি। একদিন আমার করার সময় হঠাৎ আমার ফোন বেজে উঠেছিল। কে ফোন করছে না দেখেই ফোন তুললাম। মৃত্যুর হুমকি পেয়েছি। আমার মা, বাবা এবং কুণালও প্রাণনাশের হুমকি পাচ্ছে.. খুবই বিরক্তিকর।'

এই সংবাদ সম্মেলনে, টিভি অভিনেতা করণ মেহরা জানিয়েছেন, তিনি গত ১৪ মাস ধরে তাঁর স্ত্রী নিশা রাওয়ালের বিরুদ্ধে প্রমাণ সংগ্রহ করছেন। প্রমাণ হিসাবে প্রায় ১৪০০ পৃষ্ঠার একটি ফাইল তৈরি করেছেন, যা করণ তাঁর আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে পেশ করেছেন। করণ বলেছেন, ‘সবাই ভাবে ছেলে মানেই দোষী। এটা কিন্তু ভুল। আমি সত্যিটা না বললে সবটাই চাপা পড়ে যাবে। ভুল হবে। নিশা ও রোহিতের কাছ থেকে আমার এবং আমার গোটা পরিবারকে মেরে ফেলার হুমকি পাচ্ছি। যদি আগামীতে আমার কিছু হয়, তাহলে সমস্ত সত্যি সামনে আসবে।’ 

নিশা রাওয়াল করণ মেহরার বিরুদ্ধে গোরেগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। ২০২১ সালের ৩১ মে, করণকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। এরপর জামিনে বেরিয়ে আসেন অভিনেতা। পরে IndiaToday.in-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে করণ বলেন, ‘বিয়ের এত বছর পর এমনটা সত্যিই খুব দুঃখজনক। গত এক মাস ধরে আমরা এই নিয়ে আলোচনা করছি কারণ অনেক দিন ধরেই আমাদের মধ্যে ব্যাপারটা একটু অদ্ভুত ছিল। তাই, আমরা ভাবছিলাম যে আমাদের আলাদা হয়ে যেতে হবে। আমাদের কি করা উচিত তাই আমরা জিনিসগুলি ঠিক করার চেষ্টা করছিলাম।’

পরে, মিডিয়ার কাছে নিশা জানিয়েছিলেন, করণের বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। স্বামীর বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি। নিশা জানিয়েছিলেন, মেয়েটি দিল্লিতে থাকে। যখন থেকে করণ পরিবারের থেকে দূরে থাকতে শুরু করে, তখন থেকেই তাঁদের সম্পর্কের মধ্যে চিঁড় ধরতে শুরু করে। অভিনেতা টিভি শোয়ের জন্য চণ্ডীগড়ে শ্যুটিং চলাকালীন ঘটনার সূত্রপাত। 

 

বন্ধ করুন