বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Kartik Aaryan: ‘প্রাইভেট জেট চাই আমার’, ভুল ভুলাইয়া ২ সফল হওয়ার পর কি নখরা বাড়ছে কার্তিকের?
প্রাইভেট জেট চাই, নিজের শখের কথা শোনালেন কার্তিক আরিয়ান। 

Kartik Aaryan: ‘প্রাইভেট জেট চাই আমার’, ভুল ভুলাইয়া ২ সফল হওয়ার পর কি নখরা বাড়ছে কার্তিকের?

  • ২০২২ সালের সেকেন্ড হায়েস্ট হিট দিয়েছেন তিনি বলিউডকে। এই সেদিনও করণ জোহর যেই ছেলেটাকে বের করে দিয়েছিল সিনেমা থেকে, সে এখন টপে। 

এই মুহূর্তে বলিউডের বড় তারকা কার্তিক আরিয়ান, যদিও রিয়েল লাইভে ঠিক পাশের বাড়ির ছেলের ইমেজ নিয়ে ঘোরেন। সেলফি তুলতে না করেন না। মুখে লেগে থাকে হাসি। রাস্তার পাশের দোকানে খাবার খেতেও বসে যান। তবে এখন লাইফস্টাইলে ধীরে ধীরে বদল আনছেন তিনি। একাধির বিলাসবহুল গাড়ি কিনেছেন। 

কার্তিককে শেষ দেখা গিয়েছে হরর-কমেডি ‘ভুল ভুলাইয়া ২’-তে। তাঁর অভিনয় এই সিনেমায় বহুল প্রশংসা পেয়েছে। অনেকেই ভেবেছিলেন হয়তো অক্ষয় কুমারের রেপ্লিকা হয়েই গোটা সিনেমায় থাকবেন তিনি। তবে কার্তিক বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি স্বতন্ত্র। এমনকী পারফরমেন্সে খুশি হয়ে সিনেমার প্রযোজক ভূষণ কুমার কার্তিককে উপহার দিয়েছেন ভারতের প্রথম GT, Orange McLaren।

এত সাফল্যর পরেও কী করে দর্শকরা এত কাছের মনে করে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে উত্তর আসে, ‘আমি ইকোনমিতে ট্রাভেল করি এখনও।  বিজনেস ক্লাসে করি যদিও বেশিটা, তবে প্রয়োজন পড়লে ইকোনমিতেও চড়তে পারি। অনেকেই আছেন সেটা করা বন্ধ করে দেন। তবে আমি এমনটা করিনি। আমার অনেক স্বপ্ন আছে। আমার একটা ল্যাম্বরগিনির ইচ্ছে ছিল, সেটা পূরণ হয়েছে। আমার অভিনেতা হওয়ার শখ ছিল, সেটাও হয়েছে। দিনদিন স্বপ্নগুলো বাড়ছে। প্রাইভেট জেটও চাই এখন।’ আরও পড়ুন: ১ নম্বরে নেই মিঠাই, তাহলে গাঁটছড়া না গৌরী এলো? লালনকে মেরেও ধুঁকছে ধুলোকণা

কার্তিক জানালেন তিনি আরও সাফল্য পেতে চান। তবে মানুষ হিসেবে যেমন ছিলেন তেমনই থাকতে চান। আগে যে খাবার ভালো লাগত, এখনও সেটাই লাগে। ‘মা-বাবার সঙ্গে যদি রেস্তোরাঁয় যদি, গোয়ালিয়রের সেই একই খাবার খাব। ওই একই পনির, একই নান, একই বুন্দি কা রায়তা। এটা কখনও বদলাবে না।’ আরও পড়ুন: দীপিকার সঙ্গে অভিনয় করতে চলেছেন নাকি সৌরভ, এল পোস্টার! সিনেমার পরদাতেও দাদাগিরি

সাক্ষাৎকার নিচ্ছিলেন যিনি তিনি যখন বলেন প্রাইভেট জেট হওয়াটা একটু মুশকিলের কার্তিক উত্তর দেন, ‘স্বপ্ন দেখা থোরি বন্ধ করে দেব। এই গরীব মানুষকে কিছু তো ভাবতে দাও। কিন্তু আমি বলতে চাইছি ভিতরটা কখনও বদলাবে না। অনেক কিছু আসবে। কিন্তু সেগুলো সবই তো বস্তুবাদী। একটা সময়ের পর এটাতে সত্যি কিছু যায় আসে না তুমি বিলাসবহুল গাড়ি চড়ে কোথাও যাচ্ছে না ফার্ড-হ্যান্ড গাড়িতে করে।’

আপাতত হাতে একগুচ্ছ কাজ কার্তিকের। রয়েছেন শশাঙ্ক ঘোষের ফ্রেডি-তে ও রোহিত ধাওয়ানের ‘শেহজাদা’-তে। ‘ক্যাপ্টেন ইন্ডিয়া’র জন্য কাজ করবেন হনসল মেহতার সঙ্গে। পাইপলাইনে রয়েছে ‘সত্যপ্রেম কি কথা’ও। 

 

বন্ধ করুন