বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > KBC 13: 'আমার বিয়ে ভাঙবেন নাকি?' ভক্তের কাণ্ডে মহাবিড়ম্বনায় অমিতাভ!
কেবিসি-র সেটে এক ফ্যানের কাণ্ডের ফলে দিশেহারা অমিতাভ। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)
কেবিসি-র সেটে এক ফ্যানের কাণ্ডের ফলে দিশেহারা অমিতাভ। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

KBC 13: 'আমার বিয়ে ভাঙবেন নাকি?' ভক্তের কাণ্ডে মহাবিড়ম্বনায় অমিতাভ!

  • কৌন বনেগা ক্রোড়পতির ১৩ নম্বর সিজন শুরু হয়েছে গত মাসেই।একেকসময় শোয়ে উপস্থিত দর্শকদের ভালোবাসা প্রকাশের ঠেলায় লজ্জায় লাল হয়েছেন বলিউডের 'শাহেনশাহ'। সম্প্রতি, ফের একবার এমনই এক ঘটনা ঘটল কেবিসি-র সেটে।

কৌন বনেগা ক্রোড়পতির ১৩ নম্বর সিজন শুরু হয়েছে গত মাসেই। রমরমিয়ে চলছে অমিতাভের সঞ্চালনায় গেম শো। প্রতিবারের মতো এবারও গেম শো চলাকালীন হট সিটে বসা প্রতিযোগীদের সঙ্গে অমিতাভের ছোট্ট অথচ দারুণ মজাদার কথাবার্তার ভিডিও ইতিমধ্যেই দারুণ ভাইরাল হয়েছে নেটপাড়ায়। দর্শকও যে তাঁদের প্রিয় তারকার এই ব্যবহারে মুগ্ধ তা নিয়ে নতুন করে লেখার কিছু নেই। তবে একেকসময় শোয়ে উপস্থিত দর্শকদের ভালোবাসা প্রকাশের ঠেলায় লজ্জায় লাল হয়েছেন বলিউডের 'শাহেনশাহ'। সম্প্রতি, ফের একবার এমনই এক ঘটনা ঘটল কেবিসি-র সেটে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে তখন হটসিটে বসে কল্পনা দত্ত। সাড়ে বারো লক্ষ টাকার মূল্যের প্রশ্নের জবাবও ততক্ষণে 'লক' করে ফেলেছেন। তা সঠিক হল কি না সেকথা বলার আগে ছোট্ট এক বিজ্ঞাপন বিরতির ঘোষণা করে ফেললেন অমিতাভ বচ্চন। এরপর টিভির পর্দায় বিরতি চলাকালীনই ব্যাপারটি ঘটে।শোয়ে দর্শকদের আসনে বসা এক ভদ্রমহিলার উদ্দেশে প্রায় হাতজোড় করে ছদ্ম ভয় পাওয়ার সুরে 'সিনিয়র বচ্চন' বলে ওঠেন, 'দেখুন ম্যাডাম আপনাকে একটা কথা সোজাসুজি জানিয়ে রাখি। এই যে আপনার জন্যেই কিন্তু আমার বিবাহিত জীবন বড়সড় গাড্ডায় পড়তে চলেছে। এই যে আপনি তখন থেকে এত ফ্লাইং কিস সব ছুড়ে যাচ্ছেন আপনাকে যে কী বলব!' অমিতাভের মজাদার বলার ভঙ্গিতে ততক্ষণে কেবিসি-র সেট জুড়ে শুরু হয়েছে হাসির গর্জন।

এছাড়া চলতি সপ্তাহেই সোনি টিভির এই গেম শো-এর ‘শানদার শুক্রবার’ এপিসোডে হাজির হয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন ও ‘ওম শান্তি ওম’ পরিচালক ফারহা খান। শো চলাকালীন হাসি ঠাট্টা যেমন চলল, তেমনই উঠে এল মনে রাখার মতো এক মুহূর্তও। অনুষ্ঠান চলার ফাঁকে ফারহার মুখে একটি ঘটনার কথা জানতে পেরে তৎক্ষণাৎ টাকা অনুদানের কথা ঘোষণা করলেন অমিতাভ বচ্চন। ফের একবার 'বিগ বি'-র এই দরাজ দিলের পরিচয় পেয়ে আপ্লুত নেটদুনিয়া।

কেবিসি-র হট সিটে বসা প্রতিটি প্রতিযোগিকেই অমিতাভ জিজ্ঞেস করেন যে শো থেকে যে টাকা তিনি জিতবেন তা তিনি কীভাবে খরচ করতে চান। সেই প্রতিযোগী সাধারণ মানুষ হোক কিংবা তারকা। ফারহার উদ্দেশেও তাই একই প্রশ্ন রেখেছেলিন 'শাহেনশাহ'। জবাবে 'ম্যায় হুঁ না'-র পরিচালক জানালেন যে আজকের এই শো থেকে তিনি যত টাকা পুরস্কার হিসেবে জিতবেন তার সবটুকু একটি শিশুর চিকিৎসার খরচ হিসেবে দিয়ে দেবেন। আরও জানালেন স্পাইনাল মাসকিউলার অ্যাট্রোফি নামের এক বিরল দুরারোগ্য রোগে আক্রান্ত সাত মাসের ওই শিশুটি। মূলত একটি অত্যন্ত জটিল স্নায়ুর রোগ এটি, যার ফলে হতে পারে জীবনহানি। তাই শিশুটির যখন বছর দুয়েক বয়স হবে তখন একটি টিকার প্রয়োজন হবে। যা এইমুহূর্তে বিশ্বের সবথেকে দামি ওষুধ!

শাহেনশাহচিত মেজাজে বলে ওঠেন, 'আমি জানি না এইমুহূর্তে এরকম প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে এই কথাটা আমার বলা উচিত হচ্ছে কি না। কিন্তু আমি এই শিশুটির চিকিৎসার জন্য কিছু করতে চাই। যথাসম্ভব টাকা পয়সা দেব ওই ওষুধটি কেনার জন্য। তবে কত দেব তা এখানে বলব না। শো শেষ হওয়ার পর আপনার সঙ্গে এই নিয়ে আলোচনা হবে!'

বন্ধ করুন