বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > KBC 13: অলিম্পিক মেডেল ছুঁয়ে দেখার আবদার অমিতাভের, শুনেই যা করলেন নীরজ, শ্রীজেশ
কেবিসি-র মঞ্চে অলিম্পিক মেডেল ছুঁয়ে দেখার আবদার জানালেন অমিতাভ বচ্চন। (ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)
কেবিসি-র মঞ্চে অলিম্পিক মেডেল ছুঁয়ে দেখার আবদার জানালেন অমিতাভ বচ্চন। (ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)

KBC 13: অলিম্পিক মেডেল ছুঁয়ে দেখার আবদার অমিতাভের, শুনেই যা করলেন নীরজ, শ্রীজেশ

  • জমিয়ে শুরু হয়ে গেছে 'কৌন বনেগা ক্রোড়পতি'-র ১৩ নম্বর সিজন।এবারের 'শানদার শুক্রবার' এর এপিসোডের অতিথি হিসেবে দেখা যাবে দেশের দুই রত্ন নীরজ চোপড়া ও পি আর শ্রীজেশ-কে।

জমিয়ে শুরু হয়ে গেছে 'কৌন বনেগা ক্রোড়পতি'-র ১৩ নম্বর সিজন। কয়েক সপ্তাহ আগেই শুরু হয়েছে এই নতুন সিজনের সম্প্রচার। সোম থেকে শুক্র সোনি টিভিতে সম্প্রচারিত হয় এই গেম শো। পাশাপাশি সোনি লিভ অ্যাপ এবং জিও টিভি-তে দেখা যায় কৌন বনেগা ক্রোড়পতি।সপ্তাহ তিনেক কাটতে না কাটতেই ছোটপর্দায় রমরমিয়ে চলছে কেবিসি-র এই নতুন সিজন।'শানদার শুক্রবার' এর এপিসোডের অতিথি হিসেবে দেখা যাবে দেশের দুই রত্ন নীরজ চোপড়া ও পি আর শ্রীজেশ-কে। অমিতাভের সঙ্গে অলিম্পিক মেডেল জয়ী এই দুই তারকাকে দেখার জন্য মুখিয়ে আছে দর্শক।

জ্যাভলিনে দেশকে প্রথম সোনা এনে দিয়েছেন নীরজ চোপড়া। অন্যদিকে, ছেলেদের হকি টিমের সদস্য পি আর শ্রীজেশও হাজির ছিলেন নীরজের সঙ্গে। হকিতে টোকিও অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ জিতেছে ভারতীয় টিম। এপিসোডের প্রোমোতেও দেওয়া হয়েছে অলিম্পিকের ছোঁয়া। শোয়ে নীরজ এবং পি আর শ্রীজেশকে স্বাগতম জানিয়ে অমিতাভ বচ্চনের মুখে শোনা যায় ‘হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ’ এর বজ্রনিনাদ। কেবিসির মঞ্চে উপস্থিত হয়ে অমিতাভের পা ছুঁয়ে প্রণাম করতে দেখাও যায় দেশের দুই রত্ন-কে।

এবারে সামনে এল কেবিসি-র নতুন প্রোমো যেখানে দেখা যাচ্ছে নীরজ এবং শ্রীজেশের স্বাগতম পর্ব মিটলে তাঁদের কাছে একটি অনুরোধ রাখেন অমিতাভ। তাঁদের গলায় ঝোলানো অলিম্পিকে জেতা মেডেলের দিকে ইঙ্গিত করে 'বিগ বি' জিজ্ঞেস করেন তিনি একবার সেই মেডেল দু'টি ছুঁয়ে দেখতে পারেন কি না। শোনামাত্রই নিজেদের গলা থেকে ওই মেডেল দুটি খুলে অমিতাভের হাতে তা তুলে দেন দুই অলিম্পিকজয়ী। হাঁ হাঁ করে ওঠেন 'শাহেনশাহ'। আপ্লুত স্বরে বলে ওঠেন যে তিনি এই মেডেল দুটো মোটেই পড়বেন না কেবল একটু ছুঁয়ে দেখতে চান। 'আমার জীবনে তো আর কোনওদিন এই মেডেল জিততে পারব না, তাই একবার ছুঁয়ে দেখতে পারলেই আমি খুশি।এটাই বিরাট ব্যাপার তা আমার কাছে', সহজভাবে অমিতাভের মুখে এই কথা শুনে ততক্ষণে ফের একবার হাততালি দিয়ে উঠেছেন শোয়ে উপস্থিত থাকা দর্শকের দল। মেডেল দু'টি হাতে তুলে অমিতাভকে বলতেও শোনা যায় যে ওজনেও যথেষ্ট ভারি ওগুলো।

এই একই এপিসোডের অন্য প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে অমিতাভের অভিনীত 'সিলসিলা' ছবির সেই বিখ্যাত সংলাপ 'ম্যায় অওর মেরি তনহাই' নিজেদের মাতৃভাষায় আউড়াচ্ছেন তাঁরা। আর তা এমনই মজার ভঙ্গিমায় করছেন তাঁরা, যা শুনে ও দেখে হাসতে হাসতে লুটিয়ে পড়ছেন উল্টোদিকের হট সিটে বসা অমিতাভ বচ্চন।

বন্ধ করুন