বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > KBC 14: হটসিটে অমিতাভের সামনে কলকাতার শ্রুতি,অন্ধকারে ঢিল ছুড়ে জিতলেন ৫০ লাখ! এরপর?
কেবিসি আপটেড

KBC 14: হটসিটে অমিতাভের সামনে কলকাতার শ্রুতি,অন্ধকারে ঢিল ছুড়ে জিতলেন ৫০ লাখ! এরপর?

  • Kaun Banega Crorepati 14: ৫০ লক্ষের প্রশ্নের উত্তর জানা ছিল না, লাইফলাইনও শেষ তবুও খেলা ছাড়তে না রাজ শ্রুতি দাগা। তারপর কী ঘটল? 

গত রবিবার থেকে কৌন বনেগা ক্রোড়পতি-র ১৪ নম্বর সিজন শুরু হয়ে গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত সিজনের প্রথম কোটিপতির অপেক্ষায় দর্শক। এবার হটসিটে বিগ বি-র মুখোমুখি হয়েছেন কলকাতার মেয়ে শ্রুতি দাগা (Shruthy Daga)। ৩০ বছর বয়সী শ্রুতি শুরুতেই বাংলার জামাইকে চমকে দেন বাংলা এবং তামিলে কথা বলে।

খেলা শুরুর কয়েক মিনিটের মধ্যেই নিজের প্রথম লাইফ লাইন ব্যবহার করে ফেলেন শ্রুতি দাগা। তিন হাজারে প্রশ্নের পর দ্বিতীয় লাইফ লাইন চল্লিশ হাজারের প্রশ্নে খরচ করে ফেলেন শ্রুতি দাগা। এরপর কিন্তু গড়গড়িয়ে পঞ্চাশ লক্ষের প্রশ্নে পৌঁছে যান শ্রুতি। ৫০ লাখের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে ফের হোঁচট খান তিনি। সাহায্য নিতে ভিডিয়ো কল করেন বন্ধুকে। যদিও সঠিক জবাব দিতে পারেনি সে। হাতে কোনও লাইফলাইন নেই, ঝুলিতে রয়েছে ২৫ লক্ষ। ভুল জবাব দিলে সোজা ৩ লাখ ২০ হাজারে নেমে যেতে হবে। কলকাতার গৃহবধূকে অমিতাভ পরামর্শ দেন খেলা ছেড়ে দেওয়ার। তবে ময়দান ছাড়তে রাজি ছিলেন না শ্রুতি। আরও পড়ুন- 'অনেক আপত্তিকর মন্তব্য পাই, পোস্ট করার আগে অনেক ভাবতে হয়', ট্রোলিং নিয়ে অমিতাভ

‘ন্যাশন্যাল ডিজিটাল লাইব্রেরি অফ ইন্ডিয়ার উন্নয়ন এবং রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে রয়েছে কোন সংস্থা?’ এটাই ছিল ৫০ লাখের প্রশ্ন। চারটি অপশন ছিল- A) ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউড অফ সায়েন্স, B) IIT খড়গপুর, C) জেএনইউ, D) এপিজে আব্দুল কালাম টেকনোলজিক্যাল ইউনিভার্সিটি। এই প্রশ্নের সঠিক জবাব অপশন বি অর্থাৎ আইআইটি খড়গপুর।

আরও পড়ুন- ‘করার ইচ্ছে নেই’ লিখেও কেন বারবার কেবিসি করেন, জবাব দিলেন অমিতাভ নিজের ব্লগে

সঠিক জবাব নিয়ে একটু সন্দেহ ছিল শ্রুতির মনে, তবে বুকে বল নিয়েই সঠিক জবাব দিতে সফল হলেন এই প্রতিযোগী। আজকের পর্বে (বৃহস্পতিবার) শ্রুতির সামনে অমিতাভ রাখবেন ৭৫ লক্ষের প্রশ্ন। এবারও কি শ্রুতি পারবেন সঠিক জবাব দিতে? উত্তর জানতে অপেক্ষা রাত ৯টার। আরও পড়ুন-হাত ধোওয়ার জল চুমুক দিয়ে পান করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী, মজার ঘটনা ফাঁস অমিতাভের

শ্রুতি এই শো-তে ফাঁস করেছেন এই মুহূর্তে অন্তঃসত্ত্বা তিনি। দন্তচিকিৎসক স্বামীও দর্শকাসনে উপস্থিত ছিলেন বউয়ের সাপোর্টে। কেবিসি-র মঞ্চে জেতা টাকা দিয়ে নিজের জন্য একটা বাড়ি তৈরি করতে চান শ্রুতি, এটাই তাঁর স্বপ্ন।

বন্ধ করুন