বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অনলাইন রামি গেমসের প্রচার, বিরাট-তামান্নাকে আইনি নোটিশ ধরাল হাইকোর্ট
বিরাট কোহলি ও তামান্না ভাটিয়া 
বিরাট কোহলি ও তামান্না ভাটিয়া 

অনলাইন রামি গেমসের প্রচার, বিরাট-তামান্নাকে আইনি নোটিশ ধরাল হাইকোর্ট

  • আগামী ১০ দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে বিরাট কোহলি ও তামান্না ভাটিয়াকে। 

অনলাইনে গেমসের বিজ্ঞাপনী মুখ হওয়ার জন্য বিতর্ক কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না ভারতীয় তারকাদের। ফের নয়া বিতর্কে নাম জড়াল বিরাট কোহলি ও অভিনেত্রী তামান্না ভাটিয়ার। এই তারকাকে আইনি নোটিশ ধরালো কেরল হাইকোর্ট। অনলাইন রামি গেমসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হওয়ার কারণেই আইনি বিপাকে দুই তারকা। নোটিশ গিয়েছে মালায়ালি অভিনেতা আজু ভারগাসের কাছেও। মাদ্রাজ হাইকোর্টের তরফেও অনলাইন গেমসের প্রচারের জন্য আগে আইনি নোটিশ পেয়েছেন বিরাট কোহলি। 

অনলাইন জুয়ার বিরুদ্ধে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল হাইকোর্টে। পাওলি ভারাক্কানের ওই জনস্বার্থর শুনানি চলাকালীন আজ প্রধান বিচারপতি এস মণিকুমারের নেতৃত্বাধীন কেরল হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ আইনি নোটিশ জারি করেছেন বিরাট-তমান্না-আজুর বিরুদ্ধে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে তাঁদের। এই মর্মে রাজ্য সরকারের কাছেও তাঁদের অবস্থান জানতে চেয়েছে আদালত। 

কেরার থ্রিশুরের বাসিন্দা পাওলি ভারাক্কান তাঁর জনস্বার্থ মামলার পিটিশনে জানান, অনলাইন রামি গেম দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আইন করে এর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা দরকার। অন্য রাজ্যেও এমনটা করা হয়েছে। কেরালায় ১৯৬০ সালের আইন রয়েছে। অন্য ক্ষেত্রে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু সেই মামলায় অনলাইন রামি অন্তর্ভুক্ত নয়। তারকারা প্রচারের মুখ হয়ে এই বিজ্ঞাপনে অংশ নিচ্ছেন এবং দর্শকদের আকৃষ্ট করছেন। অনলাইন রামি জুয়ার সমান। 

গত সপ্তাহেই অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার যে কোনও ধরনের অনলাইন গেমিং, অনলাইন বেটিং এবং জুয়া খেলা নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। এই মর্মে কেন্দ্রের কাছে ১৩২টি এইধরনের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপের তালিকা তৈরি করে পাঠানো হয়েছে ওই রাজ্যের তরফে। 

বন্ধ করুন