বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Rituparna-Kharaj: ঋতুপর্ণাকে ‘অমৃতি’ বলে বিপাকে খরাজ, ক্ষমা চাইলেন ফেসবুকে, এবার বললেন ‘লক্ষ্মী’
ঋতুপর্ণা অমৃতি নয় লক্ষ্মী, ভিডিয়ো শেয়ার করে বললেন খরাজ। 
ঋতুপর্ণা অমৃতি নয় লক্ষ্মী, ভিডিয়ো শেয়ার করে বললেন খরাজ। 

Rituparna-Kharaj: ঋতুপর্ণাকে ‘অমৃতি’ বলে বিপাকে খরাজ, ক্ষমা চাইলেন ফেসবুকে, এবার বললেন ‘লক্ষ্মী’

‘বেলাশুরু’-তে একসঙ্গে দেখা যাবে ঋতুপর্ণা আর খরাজকে। ছবির প্রোমোশনে তাঁর বলা একটা কথা নিয়ে যে ফের কটাক্ষ করা হবে ঋতুপর্ণাকে তা বুঝতে পারেননি খরাজ! 

বাংলা ইন্ডাস্ট্রির ১ নম্বর নায়িকা হিসেবে বছরকয়েক আগেও নেওয়া হত ঋতুপর্ণার নাম। এখন প্রতিযোগিতা বাড়লেও, অভিনয় দিয়ে দর্শক মনে নিজের জায়গা ধরেই রেখেছেন তিনি। তবে, অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর পর থেকে তাঁকে ঘিরে যেন একটা রোষ তৈরি হয়েছে একাংশের মনে। বেশ কয়েকবার নিজের পক্ষ নিয়ে বলার চেষ্টা করেও লাভ হয়নি।

‘বেলাশুরু’ মুক্তি পাবে পাবে করছে। আর এরকম একটা সময়ে সিনেমার সহ-অভিনেতা খরাজ মুখোপাধ্যায়ের তাঁকে নিয়ে করা একটা মন্তব্য যেন আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়ল। আসলে এক সাক্ষাৎকারে খরাজকে বলা হয়েছিল এই ছবির তারকাদের একটা করে মিষ্টির সঙ্গে তুলনা করতে। আর তাতে খরাজ শিবপ্রসাদকে বলেন জলভরা সন্দেশ-- ভিতরটা নরম, বাইরেটা শক্ত, নন্দিতাকে বলেন নলেন গুড়, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় রাবড়ি, স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত পান্তুয়া, অপরাজিতা আঢ্য রসগোল্লা। আর ঋতুপর্ণাকে বলেন অমৃতি। ব্যস আর কী, ফের শুরু হয়ে যায় বিতর্ক। অনেকেই প্রশ্ন তোলেন, তবে কি তিনিও ঋতুপর্ণাকে ‘জিলিপির মতো প্যাচালো বললেন? আরও পড়ুন: ‘নিজে অভিষেকের বউকে ফোন করেছি’, সংযুক্তার দাবি ‘ফোন আসেনি’ নস্যাৎ করলেন ঋতুপর্ণা

শেষ পর্যন্ত নিজের বক্তব্যকে বদলে নিতে ফেসবুকে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করতে হয় খরাজকে। এমনকী তিনি ক্ষমাও চান ঋতুপর্ণার কাছে। খরাজ এবারে বললেন, ‘ইন্ডাস্ট্রির ব্যস্ততম নায়িকা ঋতুপর্ণা। উত্তমকুমারের মৃত্যুর পর যখন ইন্ডাস্ট্রি ডুবতে বসেছিল তখন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, দেবশ্রী রায়, তাপস পাল, অভিষেক চট্টোপাধ্যায়দের হাত ধরে বাংলা বিনোদন দুনিয়া বেঁচে ছিল।’

এরপরই ঋতুপর্ণার কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চান খরাজ। এমনকী নায়িকার সম্পর্কে বলেন তিনি খরাজের চোখে ‘লক্ষ্মী’। সঙ্গে বলেন, ‘অনেকেই বলে মিডিয়াকে ধরে লবি করে ওরা নিজের জায়গা ধরে রেখেছে। আমি তাহলে বলব অন্য অভিনেতাদের হাতেও তো সেই সুযোগ ছিল, তাঁরা সেটা করেননি কেন। অনেক পরিশ্রম করে আজ ওঁরা এই জায়গায় পৌঁছেছে। এখনও ভালো ভালো কাজ উপহার দিচ্ছে। এটাকে সম্মান দেওয়া উচিত।

 

বন্ধ করুন