বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘লাভ জিহাদ’-এর টুইস্টই কাল হল! দর্শকদের মনের সিংহাসনে জায়গা হারালো ‘খড়কুটো’?
আদিলের আগমনে হিতে বিপরীত! (ছবি সৌজন্যে- হটস্টার)
আদিলের আগমনে হিতে বিপরীত! (ছবি সৌজন্যে- হটস্টার)

‘লাভ জিহাদ’-এর টুইস্টই কাল হল! দর্শকদের মনের সিংহাসনে জায়গা হারালো ‘খড়কুটো’?

  • টিআরপি তালিকায় প্রথম পাঁচে জায়গা হারাল ‘খড়কুটো’, সিরিয়াল বয়কটের ডাক নেটিজেনদের একাংশের। 

চলতি সপ্তাহের টিআরপির রিপোর্ট কার্ড বলছে প্রথম পাঁচে জায়গা হল না স্টার জলসার চর্চিত সিরিয়াল ‘খড়কুটো’র। লাগাতার গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই সেরা তিনে জায়গা করে নিতে পারছিলেন না 'সৌগুন', তাই কাহিনিতে টুইস্ট দিতে ধারাবাহিকে আগমন হয়েছিল 'আগন্তুক' আদিলের। কিন্তু তার আগমনের সাময়িক ফলাফল দেখা যাচ্ছে হিতে বিপরীত! কারণ সেরা তিন তো দূর অস্ত, সেরা পাঁচ থেকে নেমে এক্কেবারে ষষ্ঠ স্থানে গিয়ে ঠেল ‘খড়কুটো’। 

কী কারণে টিআরপি তালিকায় এই ভরাডুবি? এর পিছনে অনেকেই দায়ী করছেন ‘লাভ জিহাদ’ বিতর্ককে। মুখার্জি বাড়িতে অতিথি হয়ে আসা আদিল আদতে জেঠাইয়ের বড় মেয়ে মুনিয়ার ছেলে, তা এতদিনে দর্শকদের কাছে পরিষ্কার হয়ে গেছে। মুসলিম ছেলেকে বিয়ে করেছিল মুনিয়া, সেটাই হয়ত পরিবার মেনে নেয়নি। আদিলের পরিচয় এখনও জানে না পটকা এবং গুনগুন ছাড়া পরিবারের অন্য কোনও সদস্যই। তবুও পরিবারের কেউই গুণগুণ আর আদিলের ঘনিষ্ঠতাও ভালো চোখে দেখছে না। 

 দর্শকদের একাংশের গুরুতর অভিযোগ করেছেন লাভ জিহাদকে প্রশ্রয় দিচ্ছেন ‘খড়কুটো’র নির্মাতারা। এর জেরে নাকি কিছু মানুষের ধর্মীয় ভাবাবেগ এতে ক্ষুন্ন হতে পারে, সেই কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সিরিয়াল বয়কটেরও ডাক দিয়েছে নেট নাগরিকদের একাংশ। 

ক্ষুদ্ধ দর্শকদের একাংশ
ক্ষুদ্ধ দর্শকদের একাংশ

ধারাবাহিকে আদিলের চরিত্রে অভিনয় করছেন ঋষভ বসু। ওটিটি প্ল্যাটফর্মের পরিচিত মুখ ঋষভ। কাজ করেছেন ভটভটি, ট্যাংরা ব্লুজের মতো ছবিতে। আদিলের আগমনে সৌজন্য-গুনগুনের সম্পর্কেও বড়সড় চিড় ধরেছে। গুনগুন-আদিলের মেলামেশা ভালো চোখে দেখছে না পরিবারের বাকি সদস্যরাও। বরের যখন পছন্দ নয়, তখন কেন রাত দুপুরে গুনগুন ওই ছেলের সঙ্গে আড্ডা দেবে? এমন প্রশ্ন করেছেন বড়মা। গল্পের এই মোড় নিয়েও দ্বিধাবিভক্ত দর্শক। অনেকেই গুনগুন-আদিলের নিখাদ বন্ধুত্বের ভিতর ভুল কিছু দেখতে পাচ্ছেন না, আবার অনেকের আপত্তি রয়েছে মামা-মামির সম্পর্কের মাঝে তৃতীয় ব্যক্তি হিসাবে আদিলকে তুলে ধরায়। তা নিছক বাবিলের ভুল ধারণাই হোক কেন! অনেকে আবার বাবিলের আচরণকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, 'যতই গুনগুন সত্যিটা জানুক না কেন, বিয়ের পর এতটা ছেলে মানুষিও বরদাস্ত করা যায় না'। 

 

সৌগুনের সম্পর্কে বড় ফাটল ধরায়, ব্যাগ-পত্তর গুছিয়ে বাড়ি ছেড়ে ‘ড্যাডি’-র কাছে চলে যেতে প্রস্তুত গুনগুন। সেই সময় পরিবারের সকলের সামনে সত্যিটা বলে দেবে পটকা। সেই প্রমো ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে। এখন দেখার এই সত্যি সামনে আসবার পর সম্পর্কের সমীরকণ কীভাবে পালটাবে, কিংবা গুনগুনের নাম ভাঙাতে সৌজন্য কী করবে! তবে আর ব্যাঙ্কিং এপিসোড মজুত না থাকায় আজ থেকে বন্ধ খড়কুটোর নতুন এপিসোডের সম্প্রচার, তাই কাহিনির আগামী অংশ দেখতে লম্বা সময় অপেক্ষা করতে হবে দর্শকদের।

বন্ধ করুন