বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Aamir-Kiran: ‘এখনও ভালোবাসা আছে,ও আমার পরিবার’, কিরণের সঙ্গে ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন আমির
আমির-কিরণ

Aamir-Kiran: ‘এখনও ভালোবাসা আছে,ও আমার পরিবার’, কিরণের সঙ্গে ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন আমির

  • দাম্পত্য সম্পর্কে ইতি টানলেও কিরণ রাও আজও তাঁর পরিবারের অংশ। প্রাক্তন স্ত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান একইরকমভাবে বজায় রয়েছে, ‘কফি উইথ করণ’-এর মঞ্চে জানালেন আমির খান। 

গত বছর আচমকাই ডিভোর্সের ঘোষণা সেরে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন আমির খান ও কিরণ রাও। বলিউডের অন্যতম আদর্শ দম্পতি হিসাবেই ধরা হত তাঁদের। কেন হঠাৎ বিচ্ছেদ? বুঝে উঠতে পারেননি কেউই। তবে বিচ্ছেদের পরেও হামেশাই আমিরের পাশেই দেখা গিয়েছে কিরণকে। খাতায়-কলমে স্বামী-স্ত্রী না হলেও বন্ধুত্বের ডোর কিন্তু মজবুত। আজও আমিরের পরিবার কিরণ! প্রাক্তন স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে এবার কফি উইথ করণের মঞ্চে মুখ খুললেন আমির।

লাল সিং চড্ডা কো-স্টার করিনা কাপুর খানের সঙ্গে করণের শো-তে হাজির ছিলেন নায়ক। একান্ত আলাপচারিতার ফাঁকে আমির বলেন, তাঁদের সম্পর্কের মাঝে এক মুহূর্তের জন্য ‘তিক্ততা’ আসেনি। তাঁর কথায়, ‘আমার মনে আমার দুই প্রাক্তন স্ত্রীর জন্য প্রচুর শ্রদ্ধা আর সম্মান রয়েছে। আমরা সবসময় একটাই পরিবার থাকব’। কিরণ রাও-এর আগে রিনা দত্তের সঙ্গে সংসার পেতে ছিলেন আমির। তাঁদের দুই সন্তান-ইরা ও জুনায়েদ। অন্যদিকে আমির-কিরণের এক পুত্র আজাদ, একসঙ্গেই ছেলের দেখভাল করছেন আমির-কিরণ।

প্রাক্তনদের সঙ্গে আমিরের সম্পর্ক মোটেই তিক্ত নয়, যেমনটা অনেকে ভাবেন- দাবি করেন অভিনেতা। তিনি বলেন শত ব্যস্ততার মধ্যেও সপ্তাহে একটা দিন তাঁরা সকলে একসঙ্গে কাটান, নিজেদের সুখ-দুঃখের কথা ভাগ করে দেন। পরস্পরের প্রতি যে ভালোবাসা, শ্রদ্ধা ও সম্মান রয়েছে-সেটা পুরোপুরি আন্তরিক।

এর আগে কফি উইথ করণের প্রোমো-তে দেখা গিয়েছিল করিনা ঠাট্টা করছেন করণকে নিয়ে। বেবোকে সেক্সলাইফ নিয়ে প্রশ্ন করায় তিনি সটান বলে বসেন, ‘তোমার মা-ও এই শোটা দেখে, কী করে এইসব জিজ্ঞাসা করছো?’ এরপর আমির যোগ করেন, ‘অন্যের যৌন জীবন নিয়ে তোমার এই প্রশ্ন তোমার মাকে বিব্রত করে না? যে কী সব প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করছে রে বাবা’।

আমির-করিনার সঙ্গে ‘কফি উইথ করণ’-এর এই এপিসোড দেখতে অপেক্ষা করতে হবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।

গত বছর জুলাই মাসে ডিভোর্সের ঘোষণা করে যৌথ বিবৃতিতে আমির-কিরণ জানিয়েছিলেন, ‘একসঙ্গে কাটানো এই ১৫টা বছর সুন্দরে আমরা আজীবনের অভিজ্ঞতা, আনন্দ, হাসি ভাগ করে নিয়েছি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের বিশ্বাস, সম্মান এবং ভালোবাসা বেড়েছে। এবার আমরা আমাদের জীবনের একটা নতুন অধ্যায় শুরু করতে চলেছি- সেখানে আমরা স্বামী,স্ত্রী নই, তবে আমরা বাবা-মা থাকব এবং অবশ্যই একে অপরের পরিবার থাকব’।

আমির খান ও কিরণ রাও-এর প্রথম আলাপ লাগানের সেটে। ২০০৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর বিবাহ বন্ধনে বাঁধা পড়েছিলেন তাঁরা। বিয়ের ছয় বছর পর জন্ম হয় এই জুটির একমাত্র সন্তান আজাদ রাও খানের।

বন্ধ করুন