বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > TRP তালিকার ১০-এ লালকুঠি, ৯-এ খেলনা বাড়ি, সেরা ১০-এ নেই গোধূলি আলাপ, বৌমা একঘর
বৌমা একঘর

TRP তালিকার ১০-এ লালকুঠি, ৯-এ খেলনা বাড়ি, সেরা ১০-এ নেই গোধূলি আলাপ, বৌমা একঘর

  • বৌমা একঘরের মজার প্রোমো দেখে দর্শকদের মধ্যে উৎসাহও তৈরি হয়েছিল। কিন্তু টিআরপি তালিকাই বলছে ভাটা পড়েছে সেই উৎসাহে।একই রকমভাবে লালকুঠিও মন জয় করতে পারেনি। 

গত বৃহস্পতিবার বেরোলো এই সপ্তাহের টিআরপি তালিকা। কিন্তু সেখানে সন্তুষ্টজনক জায়গা পেল না নতুন শুরু হওয়া বেশ কিছু সিরিয়াল, আবার কাউকে খুশি থাকতে হল তালিকার নীচের দিকের স্থানেই। কোথায় ঘাটতি তা নিয়ে চিন্তিত চ্যানেলগুলির কর্তৃপক্ষ।

বাংলার দুই প্রথম সারির বিনোদন চ্যানেলে প্রতিদিনই চলতে থাকে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। 'গাঁটছড়া' ও 'মিঠাই' হাড্ডাহাড্ডি লড়াই তার অন্যতম উদাহরণ। কিন্তু গত তিন মাসে ধাপে ধাপে শুরু হয়েছে বেশ কয়েকটি নতুন ধারাবাহিক কিন্তু টিআরপি তালিকার রেটিং বলছে দর্শকদের মন এখনও আদায় করতে ব্যর্থ নতুন ধারাবাহিকগুলি। এই তালিকায় রয়েছে স্টার জলসার তরফে রয়েছে 'গোধূলি আলাপ', 'বৌমা একঘর' ও জি বাংলার তরফে রয়েছে 'লালকুঠি' ও 'খেলনাবাড়ি' ।

এই কনটেন্টগুলির দিকে নজর রাখলেই বোঝা যায় মূল‌‌ বক্তব্যগুলির মধ্যে একটা নতুনত্ব রয়েছে। যেমন 'গোধূলি আলাপ' অসমবয়সী দাম্পত্যের গল্প , একইসঙ্গে আইনজীবী ও বহুরূপীর মতো পেশাকে তুলে দুটি ভিন্ন আর্থসামাজিক পরিবেশের জীবনের গল্পও বলে এই সিরিয়াল।‌

কৌশিক সেন, সোহাগ সেনের মতো নামী অভিনেতাদের কাজও যথেষ্ট প্রশংসামূলক। কিন্তু তবুও ভাল ফল করতে ব্যর্থ এই ধারাবাহিক। পাশাপাশি 'বৌমা একঘর'-এর গল্পে তুলে ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে জীবনে কিছু করতে না পারা দুজন ছেলেমেয়ের কিছু করে দেখানোর চেষ্টা।

বৌমা একঘরের মজার প্রোমো দেখে দর্শকদের মধ্যে উৎসাহও তৈরি হয়েছিল কিন্তু টিআরপি তালিকাই বলছে ভাটা পড়েছে সেই উৎসাহে। একইরকমভাবে জি বাংলা রহস্যজনক ভূতুড়ে গল্প নিয়ে এসেছে 'লালকুঠি' । আর কে না জানে বাঙালি ভূতে ও রহস্যে সবসময়েই বিনোদন খুঁজে পায় কিন্তু এই সমীকরণ মিলছে না 'লালকুঠি'র ক্ষেত্র। গত সপ্তাহে প্রথম ১০-এও জায়গা পায়নি এই সিরিয়াল , কিন্তু বিক্রম-অনামিকার বিয়ের প্লট আসতে অন্তত ১০-এ জায়গা পেয়েছে রাহুল-রুক্মা জুটি। এছাড়াও শুরু হয়েছে সদ্য 'খেলনা বাড়ি'। টিআরপি তালিকায় তার ৯ নম্বর স্থানই প্রমাণ দর্শকের মন পেতে লড়তে হবে আরও।

আমরা দর্শকরা সবসময়েই সিরিয়ালের কনটেন্টে অবাস্তব ঘটনাবলী দেখে রুচিবোধের প্রশ্ন তুলি।‌ ভালো গল্প নিয়ে সিরিয়াল তৈরি হচ্ছে না বলেও হাহাকার করি। কিন্তু ছকের বাইরে হেঁটে একটু অন্য ধরনের গল্প বলার চেষ্টা করলেই টিআরপি তালিকা‌ থেকে ছিটকে যাচ্ছে সিরিয়ালগুলি। যার ফলে ব্যবসায়িক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে প্রযোজনা সংস্থা ও চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে। সেক্ষেত্রে টেলিভিশনে ভাল কনটেন্ট দেখতে না পাওয়ার দায় আসলে কার ওপরে বর্তায়, ভেবে দেখার সময় হয়েছে বলে মনে করছে টেলি জগত।

বন্ধ করুন