বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Lata Mangeshkar birth anniversary: অযোধ্যায় ‘লতা মঙ্গেশকর চক’ উপহার প্রধানমন্ত্রীর, আকর্ষণের কেন্দ্র বিশাল বীণা

Lata Mangeshkar birth anniversary: অযোধ্যায় ‘লতা মঙ্গেশকর চক’ উপহার প্রধানমন্ত্রীর, আকর্ষণের কেন্দ্র বিশাল বীণা

অযোধ্যায় প্রয়াত গায়িকা লতা মঙ্গেশকর স্মৃতি সৌধের উদ্বোধন (ছবি ফাইল চিত্র)

Lata Mangeshkar birth anniversary: কিংবদন্তি গায়িকা লতা মঙ্গেশকরকে তাঁর জন্মবার্ষিকীতে স্মরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, অযোধ্যার একটি চকের নামকরণ করা হবে প্রয়াত গায়িকার নামে।

আজ সুরসম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকরের প্রথম জন্মবার্ষিকী। চলতি বছর জানুয়ারি মাসে সকলকে কাঁদিয়ে চলে যান তিনি। বিশেষ উপলক্ষকে চিহ্নিত করে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতরত্ন শিল্পীকে একটি মর্মস্পর্শী শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন।

বুধবার টুইট করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কিংবদন্তি গায়িকা লতা মঙ্গেশকরের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘লতা দিদির জন্মবার্ষিকীতে অনেক পুরনো কথা মনে পড়ে গেল। অনেক কিছু আছে, তাঁর স্নেহ বর্ষণের অসংখ্য স্মৃতি মনে রয়েছে। আমি আনন্দিত যে আজ অযোধ্যার একটি চকের নামকরণ করা হবে তাঁর নামে। সর্বশ্রেষ্ঠ ভারতীয় অন্যতম আইকনের মধ্যে একজনের জন্য উপযুক্ত শ্রদ্ধাঞ্জলি।'

আরও পড়ুন: Falguni-Neha: ‘গান রিমেক’ বিতর্কের মাঝেই একমঞ্চে নেহা-ফাল্গুনী, একসঙ্গে নাচলেন ডান্ডিয়া

দেখুন সেই টুইট-

কিংবদন্তী শিল্পীর ৯৩ তম জন্মবার্ষিকীতে অযোধ্যায় তাঁর নামে ‘লতা মঙ্গেশকর চক’ উদ্বোধন হবে। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ অযোধ্যার চকের নাম ভারতরত্ন সম্মানের নামে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। লতা মঙ্গেশকর স্মরণে উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যায় তৈরি হয়েছে ৪০ ফুটের বীণা। যার ওজন প্রায় ১৪ টন। বিশাল ভাস্কর্যটি তৈরি করেছেন পদ্মশ্রী পুরস্কারপ্রাপ্ত রাম সুতার। আরও পড়ুন: ‘আজকাল এসব বলা উচিত নয়’, নিজেকে ‘উদারপন্থী, বামপন্থী’ বলে উল্লেখ করেছেন সইফ

১৯২৯ সালে ইন্দোরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন লতা। পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে লতা মঙ্গেশকর ছিলেন সবচেয়ে বড়। তাঁর বাবা পণ্ডিত দীনানাথ মঙ্গেশকর মরাঠি ও কোঙ্কিণী সংগীত শিল্পী ছিলেন, পাশাপাশি অভিনয়ও করতেন। লতা মঙ্গেশকরের বিখ্যাত গানের তালিকা অগুনতি, ‘অ্যায় মেরে বতন কে লোগো’, ‘লাগ জা গলে, ‘চলতে চলতে’, ‘সত্যম শিবম সুন্দরম’… এই তালিকা শেষ হওয়ার নয়। লতাই ছিলেন প্রথম ভারতীয় শিল্পী যিনি ১৯৭৪ সালে রয়্যাল অ্যালবার্ট হোটেলে পারফর্ম করেছিলেন। আরও পড়ুন: বিজয় সেতুপতির মতো ‘অভিনয় করার কথা’ স্বপ্নেও ভাবেন না হৃতিক! খোলসা করলেন নিজেই

দেশ-বিদেশ থেকে প্রচুর সম্মানে ভূষিত হয়েছেন তিনি। ১৯৮৯ সালে, তিনি দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার পান। ২০০১ সালে দেশের সর্বোচ্চ অসমারিক নাগরিক সম্মান ভারতরত্ন প্রদান করা হয়েছিল লতা মঙ্গেশকরকে। ২০০৭ সালে ফ্রান্স তাদের দেশের সর্বোচ্চ অসামরিক পুরস্কার (অফিসার অফ দি লেজিয়ান অফ অনার) দিয়ে সম্মানিত করেন লতা মঙ্গেশকরকে।

৬ জানুয়ারি ৯২ বছর বয়সে মৃত্যু হয় লতা মঙ্গেশকরের। করোনা পরবর্তী শারীরিক জটিলতা কেড়ে নেয় বর্ষীয়ান গায়িকার প্রাণ। ৭০ বছরের দীর্ঘ কেরিয়ার। হাজারের বেশি সিনেমার জন্য, ২৫ হাজারের বেশি গান রেকর্ড করেছেন ভারতের নাইটিঙ্গেল।

 

 

বন্ধ করুন