বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Lata Mangeshkar: '১০ কোটি ডলার দিলেও বিয়ে বাড়িতে গাইব না', মুখের উপর বলেছিলেন লতা মঙ্গেশকর
লতা মঙ্গেশকর। (ফাইল ছবি)
লতা মঙ্গেশকর। (ফাইল ছবি)

Lata Mangeshkar: '১০ কোটি ডলার দিলেও বিয়ে বাড়িতে গাইব না', মুখের উপর বলেছিলেন লতা মঙ্গেশকর

  • নিজের আদর্শ আর মূল্যবোধের সঙ্গে কোনওদিন সমঝোতা করেননি লতা মঙ্গেশকর, তাই মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়েও কোনও বিয়ের অনুষ্ঠানে গাইতে না-রাজ ছিলেন তিনি, ফাঁস করলেন বোন আশা ভোঁসলে। 

আজীবন মূল্যবোধকেই সবচেয়ে বেশি মর্যাদা ও গুরুত্ব দিয়েছেন প্রয়াত সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকর। ‘কোকিলকন্ঠী’র সেই মূল্যবোধের কথা পরিচিতমহলে কারুর অজানা নয়। একবার এক বিয়ের অনুষ্ঠানে গান গাইবার প্রস্তাব এসেছিল লতা মঙ্গেশকরের কাছে। কিন্তু তিনি মোটা অঙ্কের বিনিময়েও বিয়ের অনুষ্ঠানে গাইতে রাজি হননি। সম্প্রতি  মুম্বইয়ে অনুষ্ঠিত প্রথম ‘লতা দীনানাথ মঙ্গেশকর’ অ্যাওয়ার্ডের মঞ্চে এই কাহিনি ফাঁস করেছেন শিল্পীর বোন তথা জীবন্ত কিংবদন্তি আশা ভোঁসলে। 

আশা ভোঁসলে বলেন, ‘কেই আমাদের একটা বিয়ের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। তাঁরা চেয়েছিল ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে আমরা গান করি। ডলার না পাউন্ডে টাকা দেবে বলেছিল। দিদি আমাকে প্রশ্ন করল, ‘তুই কি বিয়েতে গাইবি? আমি বললাম, না আমি গাইব না। এরপর দিদি ওঁদের প্রতিনিধিকে বলল যদি ১০০ কোটি ডলারও দেন তবুও আমরা গাইব না, কারণ আমরা বিয়ের অনুষ্ঠানে গাই না’। 

সবসময়ই কন্ঠশিল্পীদের সম্মানের জন্য লড়াই করেছেন লতা মঙ্গেশকর, এদিন ফের মনে করান আশা ভোঁসলে। বর্ষীয়ান গায়িকা বলেন, ‘লতা দিদির প্রচেষ্টাতেই রেকর্ডে গায়ক-গায়িকার নাম উল্লেখ শুরু হয়। প্রথমবার ওঁনার গাওয়া আয়েগা আনাওয়ালা গানে গায়িকার নাম উল্লেখিত হয়। এরপর পর্দায় গায়ক-গায়িকাদের নাম সংযোজন হয় ওঁনার চেষ্টাতেই। পরবর্তীতে কন্ঠশিল্পীদের রয়্যালটির বিষয়টিও উনি সবার নজরে আনেন’। 

আশা ভোঁসলে ছেলেবেলার এক স্মৃতিও ভাগ করে নেন। জানান, লতা মঙ্গেশকরের নির্দেশেই বাবা-মা'র পা ধুয়ে ছেলেবেলায় সেই জল খেয়েছিলেন তিনি। আজও সেই আর্শীবাদের ফল সঙ্গে রয়েছে বলে মনে করেন আশা ভোঁসলে। সংগীতই ছিল লতা মঙ্গেশকরের ধ্যান-জ্ঞান। তাই ১০৪ ডিগ্রী জ্বর নিয়েও কাজ থেকে ছুটি নেননি লতা মঙ্গেশকর, এদিন সবার সামনে বলেন আশা। গত ৬ই ফেব্রুয়ারি ৯২ বছর বয়সে মৃত্যু হয় ‘ভারতের নাইটিঙ্গেল’-এর। 

 

বন্ধ করুন