বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Leander Paes -Rhea Pillai: লিয়েন্ডারের বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ প্রমাণিত, রিয়াকে দিতে হবে খোরপোশ
আদালতে মুখ পুড়ল লিয়েন্ডারের

Leander Paes -Rhea Pillai: লিয়েন্ডারের বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ প্রমাণিত, রিয়াকে দিতে হবে খোরপোশ

  • অস্বস্তিতে ভারতীয় লন টেনিসের কিংবদন্তী তারকা লিয়েন্ডার পেজ।প্রাক্তন সহবাস সঙ্গীর অভিযোগ প্রমাণিত আদালতে। 

মহাফাঁপড়ে দেশের লন টেনিসের ইতিহাসে মহীরুহ লিয়েন্ডার পেজ। প্রাক্তন সহবাস সঙ্গী রিয়া পিল্লাইয়ের দায়ের করা মামলায় লিয়েন্ডারের বিরুদ্ধে রায় দিল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট। লিয়েন্ডারের বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ এনে ২০১৪ সালে মামলা ঠুকেছিলেন তাঁর প্রাক্তন পার্টনার তথা সন্তানের মা রিয়া পিল্লাই। এত বছর পর অবশেষে কোর্ট জানাল, রিয়ার উপর অত্যাচার করতেন লিয়েন্ডার। 

এর পাশাপাশি আদালত রিয়া পিল্লাইকে নির্দেশ দিয়েছে দুজনের যৌথ বাড়ি খালি করে দিতে। বিনিময়ে লিয়েন্ডার প্রতি মাসে ঘর ভাঙা বাবদ তাঁকে পঞ্চাশ হাজার টাকা দেবে, এছাড়াও রিয়া পিল্লাইকে খোরপোশ বাবদ প্রতি মাসে ১ লক্ষ টাকা করে দিতে হবে লিয়েন্ডার পেজকে। এছাড়াও আদালত স্পষ্ট জানিয়েছে অতিরিক্ত ১ লক্ষ টাকা রিয়াকে আইনি খরচ বাবদ দিতে হবে লিয়েন্ডারকে। এছাড়াও আগের মতোই সন্তানের দেখভালের জন্য, তাঁর পড়াশোনা ও অন্য সকল প্রয়োজন মেটাতে যাবতীয় খরচ বহন করতে হবে। পশ্চিম মুম্বইয়ের যে বাড়িতে পিল্লাই ও লিয়েন্ডার থাকতেন, সেই বাড়ি পার্টিশন করে দেওয়ার রিয়া পিল্লাইয়ের আবেদন না মঞ্জুর করেছে কোর্ট। 

রিয়া পিল্লাইয়ের অভিযোগের সাত বছর পর এই রায় দিল আদালত। শুধু লিয়েন্ডার নয়, তাঁর বাবা ভেজ পেজের বিরুদ্ধেও গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ এনে মামলা ঠুকেছিলেন রিয়া পিল্লাই। আবেদনে রিয়া স্পষ্ট জানান ২০০৩ সাল থেকে লিয়েন্ডারের সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন তিনি। দু-বছর পর থেকে একসঙ্গে থাকা শুরু করেন তাঁরা। তখনও তিনি সঞ্জয় দত্তের বিবাহিতা স্ত্রী। ২০০৬ সালে লিয়েন্ডারের সন্তান, আয়ইয়ানার জন্ম দেন রিয়া। 

পরবর্তী সময়ে বান্দ্রার একটি বাড়িতে শিফট করেন লিয়েন্ডার-রিয়া। তাঁদের সঙ্গে ওই বাড়িতে থাকতে শুরু করেন টেনিস তারকার বাবা-মা'ও। এরপরই শুরু সমস্যা। ২০১৪ সাল নাগাদ সন্তানের কাস্টডি দাবি করে পারিপারিক আদালতে মামলা ঠোকেন পেজ, এরপরই লিভ ইন পার্টনারের বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন রিয়া পিল্লাই। 

আদালতে পেজ জানিয়েছিলেন সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে ডিভোর্স না নিয়েই তাঁর সঙ্গে থাকতে শুরু করেছিলেন রিয়া, এই ব্যাপারটি সম্পর্কে তিনি অবগত ছিলেন না। উল্লেখ্য, সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে রিয়া পিল্লাইয়ের আইনি বিচ্ছেদ হয় ২০০৮ সালে। তখন লিয়েন্ডার-রিয়ার সন্তানের বয়স ২ বছর। যদিও পালটা রিয়া জানান, সবটাই জানতেন লিয়েন্ডার। ডিভোর্সের মামলা বহু আগে দায়ের থাকলেও সঞ্জয় দত্তের বিরুদ্ধে চলা মামলা এবং অভিনেতার বাবার মৃত্যুর জেরে বিচ্ছেদ মামলা পিছিয়ে যায়। লিয়েন্ডারের যুক্তি মানতে চায়নি কোর্ট। 

আপতত অভিনেত্রী কিম শর্মার সঙ্গে লিভ ইন রিলেশনশিপে রয়েছেন লিয়েন্ডার। পাশাপাশি গত বছরের শেষেই যোগ দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসে। গোয়া নির্বাচনে মমতার তুরুপের তাস এই তারকা। তবে আদালতের এই রায়ে কিছুটা অস্বস্তিতে লিয়েন্ডারের রাজনৈতিক কেরিয়ার। 

 

 

বন্ধ করুন