বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > TRP তালিকায় শীর্ষে থাকার ফর্মুলা কী? ‘মিঠাই’ কী ভাবে হারাল ‘লক্ষ্মী কাকিমা’কে
‘মিঠাই’কে টেক্কা দিয়েছে ‘লক্ষ্মী কাকিমা’কে।

TRP তালিকায় শীর্ষে থাকার ফর্মুলা কী? ‘মিঠাই’ কী ভাবে হারাল ‘লক্ষ্মী কাকিমা’কে

TRP Rating: অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, টিআরপি সামান্য কমলেই ধারাবাহিকের গল্প নতুন মোড় নেয়। দর্শক টানতে আনা হয় নতুন নতুন চরিত্র। চিরাচরিত এই 'ফর্মুলা'র সাহায্য নেওয়া হবে 'লক্ষ্মী কাকিমা'র ক্ষেত্রেও?

দু'সপ্তাহ আগেই 'লক্ষ্মী কাকিমা' মাথায় 'বাংলার সেরা'র শিরোপা উঠেছিল। তা নিয়ে চর্চাও হয়েছিল বিস্তর। কিন্তু সাফল্যের সেই দৌড় অব্যাহত রাখা গেল না। চলতি সপ্তাহে পেয়ে টিআরপি তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে জায়গা করে নেয় অপরাজিতা আঢ্য অভিনীত এই ধারাবাহিক। তার আগের সপ্তাহেও মাত্র ০.৫ পয়েন্টের জন্য হাত ছাড়া হয় শীর্ষস্থান।

অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, টিআরপি সামান্য কমলেই ধারাবাহিকের গল্প নতুন মোড় নেয়। দর্শক টানতে আনা হয় নতুন নতুন চরিত্র। চিরাচরিত এই 'ফর্মুলা'র সাহায্য নেওয়া হবে 'লক্ষ্মী কাকিমা'র ক্ষেত্রেও? পরিচালক বিজয় মাজি বললেন, 'লক্ষ্মী কাকিমা এক সাধারণ নারীর অসাধারণ হয়ে ওঠার গল্প বলে। মানুষ সেটা দেখতে ভালোবাসেন। অনেকেই যা নিজে করে উঠতে পারেননি, পর্দায় তা দেখে খুশি হন। সে ক্ষেত্রে টিআরপি বাড়ানোর জন্য আলাদা করে কোনও কিছু করা হবে না। কোনও স্টেরয়েড গল্পও আনা হবে না। ধারাবাহিক এগবে স্বাভাবিক ছন্দে।'

এ ক্ষেত্রে 'লক্ষ্মী কাকিমা'র পথে হাঁটেনি 'মিঠাই'। গল্পে নতুন 'ট্যুইস্ট'-এর সুবাদেই টানা দু'সপ্তাহ ধরে শীর্ষস্থানে মোদক পরিবারের গল্প। ওমি আগরওয়ালের প্রত্যাবর্তন, মিঠাইয়ের কোমায় চলে যাওয়া- সব মিলিয়ে টানটান উত্তেজনা। ফলও মিলেছে হাতেনাতে। পরিচালক রাজেন্দ্র প্রসাদ দাসের কথায়, 'কোন ধরনের গল্প মানুষের পছন্দ হবে, তা সব সময় মাথায় রাখতে হবে। টিআরপি কম থাকলে এ ধরনের বিষয়গুলির দিকে আরও বেশি করে নজর দিতে হয়।দর্শককে ভালো লাগানোর জন্যই নতুনত্ব কিছু করার চেষ্টা। সেটা অস্বীকার করার কোনও কারণ নেই।'

(আরও পড়ুন: ফার্স্ট গার্ল হওয়ার দৌড়ে জোর টক্কর,মিঠাই না লক্ষ্মী কাকিমা কে জিতল?)

'লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার'-এর পিছিয়ে পড়ার একটি কারণ হতে পারে সেটির সম্প্রচারের সময়। অন্তত তেমনটাই আঁচ করছেন বিজয়। পরিচালকের কথায়, 'আমাদের ধারাবাহিকটি যে সময়ে দেখানো হয়, তখন খবরের চ্যানেলগুলোতে নানা ধরনের অনুষ্ঠান চলে। বাঁধাধরা দর্শকের বাইরেও অনেকেই আমাদের ধারাবাহিকটি দেখেন। তাঁদের হয়তো এ বার আমরা পাইনি।'

বিজয়ের মতে, প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে টিআরপি-র ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বললেন, 'যাঁরা বলেন, তাঁরা টিআরপি নিয়ে ভাবেন না, বিষয়টা তাঁদের কাছে অনেক 'আঙুর ফল টক'-এর মতো। টিআরপি বেশি মানেই, বেশি সংখ্যক দর্শক ধারাবাহিকটি দেখছেন। অর্থাৎ আমাদের কাজ তাঁদের ভালো লাগছে।'

(আরও পড়ুন: লক্ষ্মী কাকিমা: TRP-র সেরা হয়ে কেমন লাগছে অপরাজিতার,‘২৫ বছর টিকে আছি কাজের জন্য’)

'মিঠাই'-এর পরিচালকের গলায় যদিও অন্য সুর। তিনি চান, ঘুরেফিরে সব ধারাবাহিকের ঝুলিতে আসুক 'বাংলার সেরা' তকমা। রাজেন্দ্র প্রসাদের বক্তব্য, 'এক নম্বর হতে কার না ভালো লাগে! কিন্তু দীর্ঘ দিন ধরে যদি একটি মাত্র ধারাবাহিকই এক নম্বর জায়গা দখল করে বসে থাকে, তবে কি অন্যান্য ধারাবাহিকগুলির ক্ষেত্রে সেটা খুব ভালো হবে? সবাইকেই জায়গা ছেড়ে দিতে হবে।'

বন্ধ করুন