বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > লোকদেখানো বা ফ্লার্ট করার জন্য নয়, ইনস্টায় ছবি দেন পরিচালকেদর জন্য! অকপট মধুমিতা
মধুমিতা সরকার
মধুমিতা সরকার

লোকদেখানো বা ফ্লার্ট করার জন্য নয়, ইনস্টায় ছবি দেন পরিচালকেদর জন্য! অকপট মধুমিতা

  • ইমন বা পাখির স্টেরোটাইপ থেকে বেরিয়ে অন্য চরিত্রেও নিজেকে মেলে ধরতে চেয়েছেন তিনি সবসময়। 

অতিমারীর কারণে শ্যুটিং বন্ধ। বাড়িতে সময় কাটছে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকারের। বাবার সঙ্গে বাড়িতে টেবিল টেনিস খেলছেন, দাদার সঙ্গে ব্যাডমিন্টন, পড়াশোনা করছেন সিনেমা নিয়ে। একান্তে সময়টা ভালোই কাটাছে অভিনেত্রীর। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুণ সক্রিয় অভিনেত্রী। মধুমিতার এক একটি ফটোশ্যুট ঝড় তোলে নেটমাধ্যমে। ভারতীয় হোক কিংবা ওয়েস্টার্ন পোশাক যে কোনও আউটফিটে নিজেকে মেলে ধরতে সক্ষম নায়িকা। নিন্দুকদের কথায়, দিনের বেশিরভাগ সময়টাই নাকি ইনস্টাগ্রামে কাটিয়ে দেন মধুমিতা। 

এ বিষয় সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রীর স্পষ্ট মন্তব্য, ‘আমার অভিনয়ের সব ধারায় আমি কেমন? সেটাই তুলে ধরে আমার ইনস্টাগ্রাম। ইনস্টাগ্রাম আমি ফ্লার্ট করার জন্যও করি না। আর দশ জনকে দেখানোর জন্যও করি না। আমি পরিচালকদের জন্য ইনস্টাগ্রাম করি'। অভিনেত্রীর মন্তব্য, পরিচালকেরা যেন চরিত্র নির্বাচনের সময় তাঁকে বৈচিত্র্য হিসেবে মাথায় রাখতে পারেন।

হইচইয়ের নতুন ওয়েব সিরিজ 'উত্তরণ'-এ অভিনয় করেছেন মধুমিতা। আবার ‘চিনি’র মতো ছবিতে নায়িকার চরিত্র ছিল চনমনে। অভিনেত্রীর কথায়, তাঁর যা বয়স, তার চেয়ে বেশি বয়সের চরিত্র হয়ে একটানা থাকতে চাননি। পাশাপাশি নায়িকার মন্তব্য, ‘যারা বলছে, তারা জানছে কী ভাবে যে আমি ইনস্টাগ্রামে সময় কাটাই? আমি এক দিনের শ্যুট করে সারা মাস চালাই। আর পোস্ট করতে তো তিরিশ সেকেন্ড লাগে। তা ছাড়া, আমি তো করি না, ওই কাজের জন্য আলাদা লোক আছে’। প্রসঙ্গত, নিন্দুকদের কথা যে মোটেই পাত্তা দেননা নায়িকা, তা বলাই যায়।

 

বন্ধ করুন