বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘এভাবে মদের বিজ্ঞাপন দেবেন না’! হুইস্কি-সূর্যাস্তর ছবি দিয়ে ট্রোলড মধুমিতা
মধুমিতা সরকার (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
মধুমিতা সরকার (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

‘এভাবে মদের বিজ্ঞাপন দেবেন না’! হুইস্কি-সূর্যাস্তর ছবি দিয়ে ট্রোলড মধুমিতা

  • মদের বিজ্ঞাপন করেও ট্রোলড হলেন ‘চিনি’ অভিনেত্রী। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় পেইড প্রোমোশনের স্বার্থে ছবি দিয়ে থাকেন সেলেবরা। ছবিতে তা উল্লেখও করা থাকে। সেরকমই একটি বিজ্ঞাপনের ছবি দিয়ে ট্রোলিংযের শিকার হলেন টলি-অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার। জানলায় বসে দিগন্তের দিকে তাকিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন অভিনেত্রী। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘এই সন্ধ্যা বেশ অন্যরকম। শান্ত-মায়াবী। এই ছবিতে তাঁর পাশে রাখা একটি মদের বোতল ও গ্লাস। আপনাকে তাকিয়ে থাকতে বাধ্য করে…’ আর তার জেরেই বেশ চটেছেন নেট-নাগরিকরা। পোস্ট ঘিরে হয়েছে জব্বর সমালোচনা।

মদের বোতলের সামনে বসে থাকা মধুমিতার ফোটো দেখে জনৈক নেটিজেন কমেন্টের মাধ্যমে অভিনেত্রীকে অনুরোধ করেছেন এভাবে মদের প্রমোশন না করতে। পাশাপাশি আরো অনেকেই মনে করছেন যে মধুমিতার মতো জনপ্রিয় অভিনেত্রীর এটি ঠিক করছেন না। যদিও বেশ কিছু সুরাপ্রেমী মানুষ সমর্থন করেছেন অভিনেত্রীর। তাদের বক্তব্য, প্রকাশ্য রাস্তায় দোকানে সাজিয়ে যদি মদ বিক্রি হতে পারে, অনলাইনে বাড়িতে ডেলিভারি হতে পারে, তাহলে কেন মদের বিজ্ঞাপন করতে পারবেন না অভিনেত্রী? অনেকেরই মন্তব্য মধুমিতার জায়গায় টলিউডের কোনও অভিনেতা যদি এই ছবি দিত, তাহলে কী সমান বিতর্ক হত?

মধুমিতার ছবির কমেন্ট বক্স। 
মধুমিতার ছবির কমেন্ট বক্স। 

আপাতত কেরিয়ারের পিকে রয়েছেন মধুমিতা সরকার। অভিনয় আর সৌন্দর্য দিয়ে সকলের মন জয় করে নিয়েছেন। যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে জুটি বেধে ‘ও মন রে’ মিউজিক ভিডিয়োর শ্যুটিং সেরেছেন সম্প্রতি। প্রাকাশ পেয়েছে ফার্স্ট লুক পোস্টারও। মধুমিতা এই পোস্টার শেয়ার করে অনুরাগীদের উদ্দেশে বার্তা দেন, ‘আমরা ফিরছি আবার একসাথে শুধু আপনাদের জন্য’, অন্যদিকে যশ জানান- ‘ভালোবাসা ফিরিয়ে আনছে আমাদের একসঙ্গে আরও একবার’।

শেষ সৌরভ দাসের সঙ্গে জুটিতে মধুমিতা-কে দেখা গিয়েছে ‘চিনি’তে। মা-মেয়ের রসায়ন নিয়ে একেবারে অন্য স্বাদের গল্প বলেছে চিনি। ছবি মন কেড়েছে বাঙালি দর্শক ও সিনেমাপ্রেমীদের।

বন্ধ করুন