বাড়ি > বায়োস্কোপ > সিবিআইকে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার দেওয়ার দাবির নিন্দায় সরব মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
এবার প্রকাশ্যে সিবিআই তদন্তের দাবির সমালোচনা অনিল দেশমুখের 
এবার প্রকাশ্যে সিবিআই তদন্তের দাবির সমালোচনা অনিল দেশমুখের 

সিবিআইকে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার দেওয়ার দাবির নিন্দায় সরব মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • রাজনৈতিক ফায়দা তোলবার জন্য হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছে সুশান্তের মামলাকে,দাবি মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের। 

সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত জট ক্রমেই জটিল হচ্ছে। আপতত এই মামলার দুটি পৃথক তদন্ত চালাচ্ছে মুম্বই পুলিশ এবং পাটনা পুলিশ। একদিকে যেমন সুশান্তের মৃত্যুর ৪৯ দিন পরেও এই মামলা নিয়ে কোনও এফআইআর দায়ের করেনি মুম্বই পুলিশ,তেমনই পাটনা পুলিশের কাছে সুশান্তের বাবার দায়ের করা এফআইআর থাকলেও প্রশ্ন উঠছে তাঁদের জুরিসডিকশন নিয়ে। এর মাঝে ক্রমেই জোরালো হচ্ছে এই মামলায় সিবিআই তদন্তের দাবি। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার শনিবার রাতে পরিষ্কার জানিয়েছেন সুশান্তের বাবা যদি সিবিআই তদন্ত চান, তাহলে সিবিআইকে মামলা দিয়ে দেওয়া হবে বলে। 

শুরু থেকেই সুশান্তের মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের লাগাদার দাবি জানাচ্ছেন প্রয়াত অভিনেতার ভক্তরা। টুইটারে প্রতিদিন কয়েক লক্ষ টুইট হচ্ছে এই দাবি জানিয়ে। অথচ নিজেদের অবস্থানে অনড় মহারাষ্ট্র সরকার। কোনওভাবেই এই মামলার তদন্তভার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে দিতে রাজি নয় উদ্ধব ঠাকরে সরকার। তিনি আগেই জানিয়েছেন মুম্বই পুলিশ এই মামলার তদন্ত করতে সক্ষম। রবিবার টুইটারে প্রকাশ্যে এই মামলার সিবিআই তদন্তের দাবির কঠোর সমালোচনা করলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অনিল দেশমুখ।

তিনি লেখেন, ‘মুম্বই পুলিশ আপতত সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত করছে,যা আত্মহত্যা বলেই মনে করা হচ্ছে। যদিও বিহার পুলিশ এই মামলার এফআইআর দায়ের করে থাকে তাহলেও সিআরপিসির ১২ এবং ১৩ নম্বর নিয়মানুসারে এই মামলার তদন্তের দায়িত্ব অপরাধমূলক ঘটনাটি ঘটবার নির্দিষ্ট জুরিসডিকশনের পুলিশ এবং আদালতের। আমি নিন্দা করছি সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার সিবিআইকে দেওয়ার দাবির। এই মামলাটিকে এখন রাজনৈতিক ফায়দা তোলবার জন্য হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছে।অত্যন্ত পেশাদারভাবে মুম্বই পুলিশ এই মামলার তদন্ত করছে এবং সত্য উন্মোচনের জন্য সবরকম চেষ্টা তাঁদের তরফে করা হচ্ছে’। 

অনিল দেশমুখের টুইট 
অনিল দেশমুখের টুইট 

গত ১৪ জুন সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্দ্রার কার্টার রোডের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার করা  হয় সুশান্তের দেহ। মৃত্যুর প্রায় দেড়মাসের মাথায় গত মঙ্গলবার প্রকাশ্যে আসে রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে সুশান্তকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া, ষড়যন্ত্র,জালিয়াতি সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করেছেন পাটনা পুলিশের কাছে। 

সূত্রের খবর এই মামলায় এখনও পর্যন্ত কোনওরকম ফাউল প্লে'র সম্ভাবনা নজরে আসেনি মুম্বই পুলিশের। তাই এই মামলা সিবিআইয়ের হাতে দেওয়ার প্রয়োজন নেই বলেই মত মহারাষ্ট্র সরকারের। 

অন্যদিকে রবিবারই মুম্বইতে পাটনা পুলিশের চার সদস্যের দলকে নেতৃত্ব দিতে মুম্বই পৌঁছান পাটনার এসপি বিনয় তিওয়ারি।এবার তাঁকে ‘জোর করে’ কোয়ারেন্টাইন করার অভিযোগ উঠল মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে। রবিবার রাতে বিহার পুলিশের ডিজিপি গুপ্তেশ্বর তিওয়ারি সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান, সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে আজ মুম্বই পৌঁছেছেন আইপিএস অফিসার বিনয় তিওয়ারি,উনি অফিসিয়্যাল ডিউটিতে ওখানে গিয়েছেন পাটনা পুলিশের দলকে নেতৃত্ব দিতে কিন্তু ওঁনাকে রাত ১১টা নাগাদ জোর করে কোয়ারেন্টাইন করেছে বিএমসি আধিকারিকরা'।

বন্ধ করুন