বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ভাঙব তবে মচকাব না! বক্স অফিসে ভরাডুবি, এখনই ওটিটিতে ‘৮৩’কে আনতে নারাজ নির্মাতারা
সমালোচকদের ভূয়সী প্রশংসা পেলেও বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়েছে '৮৩'।
সমালোচকদের ভূয়সী প্রশংসা পেলেও বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়েছে '৮৩'।

ভাঙব তবে মচকাব না! বক্স অফিসে ভরাডুবি, এখনই ওটিটিতে ‘৮৩’কে আনতে নারাজ নির্মাতারা

  • এখনই সিনেমা হল থেকে সরিয়ে ওটিটি-র পর্দায় '৮৩'কে আনতে নারাজ ছবির নির্মাতারা।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের সোনালি ইতিহাস উঠে এসেছে পরিচালক কবীর খানের '৮৩' ছবিতে। বিগ স্ক্রিনে ফুটে উঠেছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের শিহরণ জাগানো গল্প। ১৯৮৩ সালে ইংল্যান্ডে ক্রিকেটের বিশ্বকাপ জয়ের ১৭ দিনের সেই কাহিনিই আড়াই ঘন্টায় রুপোলি পর্দায় তুলে ধরেছেন পরিচালক কবীর খান। সমালোচকদের দারুণ লাগলেও বক্স অফিসে চোখধাঁধানো ম্যাজিক দেখতে ব্যর্থ হয়েছে এই ছবি। করোনার জেরে দিল্লিতে আগেই তালাবন্ধ হয়েছে সিনেমা হল। মুম্বই, পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের আরও বিভিন্ন রাজ্যেও শুরু হয়েছে জোর কড়াকড়ি। এর জেরেও বেশ খানিকটা ক্ষতির মুখে পড়েছে এই ছবি। এককথায়, থিয়েটারে সজোরে ওভার বাউন্ডারি হাঁকাতে ব্যর্থই হয়েছে রণবীর-দীপিকার এই ছবি। তবে তা সত্বেও এখনই সিনেমা হল থেকে সরিয়ে ওটিটি-র পর্দায় '৮৩'কে আনতে নারাজ ছবির নির্মাতারা।

এ যেন 'ভাঙব তবু মচকাব না!' বক্স অফিসে কামাল দেখতে পারেনি কবীর খান পরিচালিত '৮৩'। যার ফলে এই ছবির জন্য নিজের পাৰিশ্ৰমিকের বকেয়া টাকা পর্যন্ত নিতে নাকি রাজি হননি ছবির প্রধান নায়ক রণবীর সিং। তা সত্বেও ওটিটি প্ল্যাটফর্মের মোটা টাকার প্রস্তাব ফেরালেন '৮৩'র নির্মাতারা। বর্তমানে বিনোদন জগতের ক্ষেত্রে প্রায় একটি অলিখিত নিয়ম হল কোনও সুপারহিট ছবি মুক্তির অন্তত আট সপ্তাহের পর ওটিটি প্ল্যাটফর্মে তা মুক্তি পাবে। এর আগে নয়। বর্তমানে বিশেষত করোনার কারণে যেখানে দারুণ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এই ছবির বক্স অফিস কালেকশন, তারপরেও নির্মাতাদের তরফে এহেন 'ব্যবসায়িক সিদ্ধান্ত' শুনে কপালে ভুরু উঠেছে তাবড় তাবড় ফিল্ম ট্রেড অ্যানালিস্টদের।

সূত্রের খবর, বক্স অফিসে ছবির এই হাল দেখা সত্বেও নির্মাতারা এখনও আশাবাদী। নির্মাতারা আপ্রাণ চেষ্টা করছেন এই ছবির স্বাদ যেন দর্শক সিনেমা হলে বসে বড়পর্দায় চেখে দেখেন। বড়পর্দার জন্যই এই ছবি।

প্রসঙ্গত, '৮৩' ছবিতে কপিল দেবের ভূমিকায় দেখা গেছে রণবীরের সিং-কে। ছবিতে নিজের দুরন্ত পারফর্মেন্সের সুবাদে ছবি সমালোচকদের বিস্তর প্রশংসা কুড়িয়েছেন রণবীর। এবার '৮৩'র প্রশংসার পাশাপাশি রণবীর সিংয়ের অভিনয়েরও দিলখোলা তারিফ করলেন সচিন তেন্ডুলকর।টুইট করে এই ছবি দেখে তাঁর ভালো লাগার কথা খোলাখুলি জানিয়েছেন 'মাস্টার ব্লাস্টার'।

বন্ধ করুন