বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কেন তাঁকে বলা হয়েছিল 'পতিতা নারী', নিজেই জানালেন মল্লিকা শেরাওয়াত
মল্লিকা শেরাওয়াত। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
মল্লিকা শেরাওয়াত। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

কেন তাঁকে বলা হয়েছিল 'পতিতা নারী', নিজেই জানালেন মল্লিকা শেরাওয়াত

  • 'মার্ডার' ছবিতে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করার সুবাদে তাকে তকমা দেওয়া হয়েছিল 'পতিতা নারী'-র। সম্প্রতি, এক সাক্ষাৎকারে স্মৃতিচারণ করার ফাঁকে নিজেই এই কথা জানালেন মল্লিকা শেরাওয়াত।

জনপ্রিয় বলি অভিনেত্রী হয়েও তাঁকে শুনতে হয়েছিল 'পতিতা নারী', জানালেন স্বয়ং মল্লিকা শেরাওয়াত। সম্প্রতি দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মল্লিকা জানিয়েছেন যে ২০০৩ সালে ‘খোয়াইশ’ ছবিতে অভিনয় করে প্রথম আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছিলেন তিনি। সৌজন্যে ছবিতে অসংখ্য চুম্বন দৃশ্যের পাশাপাশি একাধিক ঘনিষ্ঠ দৃশ্য। সেই সময়ের বলিউডে যা রীতিমতো কল্পনা। এর পরের বছরেই মুক্তি পায় 'মার্ডার'.অনুরাগ বসু পরিচালিত সেই রোম্যান্টিক থ্রিলারে অভিনয় করে প্রভূত জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন তিনি। তবে 'মার্ডার' ছবিতে মল্লিকা অভিনীত ঘনিষ্ঠ দৃশ্য বিস্তর সমালোচনার মুখেও যেমন পড়তে হয়েছিল, তেমন শুরু হয়েছিল বিতর্কও। সমালোচনা কারণ একবিংশ শতাব্দীর শুরুর ওই সময়ে বলিউডপ্রেমী দর্শকদের একাংশ অতটাও সাহসী ও ঘনিষ্ঠ দৃশ্য হিন্দি ছবিতে দেখতে অভস্ত্য ছিল না। অথচ সাবলীলভাবে পর্দায় সেইসব দৃশ্যই হাজির করেছিলেন পরিচালক অনুরাগ বসু 'মার্ডার' ছবির মাধ্যমে। আর তাই মল্লিকা শেরাওয়াতকে ‘পতিতা নারী’ তকমাও দেওয়া হয়েছিল,দাবি খোদ এই অভিনেত্রীর।তবে বলি-অভিনেত্রীর সাহসী অভিনয় মনে ধরে যায় দর্শকের। মল্লিকার কথায়, তাঁকে নৈতিকতার দোহাই ভাবে মানসিক ভাবে হত্যা করা হয়েছিল তখন। চারপাশে নীতি পুলিশরা সোচ্চার হয়েছিল। অথচ এখন সেই ধরণের দৃশ্য বলিউডের ছবিতে খুবই স্বাভাবিক।

'মার্ডার' ছবির একটি দৃশ্যে মল্লিকা শেরাওয়াত ও ইমরান হাশমি। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক
'মার্ডার' ছবির একটি দৃশ্যে মল্লিকা শেরাওয়াত ও ইমরান হাশমি। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক

সম্প্রতি ওটিটি-তে পা রেখেছেন মল্লিকা। সৌজন্যে অভিনেতা-পরিচালক রজত কপূরের সাম্প্রতিকতম ছবি। তবে শুধুমাত্র কানাডা ও আমেরিকায় মুক্তি পেয়েছে সেই ছবি।

বন্ধ করুন