বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 28th KIFF: কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে এবার চাঁদের হাট! মুখ্যমন্ত্রী কী ঘোষণা করলেন

28th KIFF: কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে এবার চাঁদের হাট! মুখ্যমন্ত্রী কী ঘোষণা করলেন

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে থাকছেন শাহরুখ, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

Mamata Banerjee on 28th KIFF: কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে থাকছেন শাহরুখ, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। আমন্ত্রণ জানানোর বার্তা সৌরভকেও।

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব এসেই গেল প্রায়। সেই উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকছেন বিগ বি। বাংলার জামাইয়ের সঙ্গে থাকবেন জয়া বচ্চনও। এই খবর অবশ্য আগেই প্রকাশ্যে এসেছিল। এবার জানা গেল শাহরুখ খানও থাকতে চলেছেন এই অনুষ্ঠানে। এতদিন এই বিষয় নিয়ে ধোঁয়াশা ছিল যে বাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর থাকবেন কিনা। তবে শুক্রবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন দিলেন কিং খান থাকছেন। শুধু তাই নয়, আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কেও।

আগামী মাস থেকেই শুরু হতে চলেছে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। ১৫ ডিসেম্বর থেকে ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে এই চলচ্চিত্র উৎসব। শুক্রবার বিধানসভায় নতুন স্মারক ভবনের উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখান থেকেই তিনি জানিয়ে দেন যে এই উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শাহরুখ থাকছেন এবং সৌরভকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, তিনি আরও জানান, 'এখনও পর্যন্ত যা খবর, এই চলচ্চিত্র উৎসবে ৫২টি দেশের প্রতিনিধি আসছেন। তাঁদের সকলকে বিধানসভা স্মারক ভবনে ঘোরানো হবে। সেখানেই বিধানসভার স্পিকার চা চক্রের আয়োজন করবেন। এই অনুষ্ঠানে যাঁরা উপস্থিত থাকবেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা হলেন অমিতাভ বচ্চন, জয়া বচ্চন, আমার ভাই শাহরুখ খান। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়েরও আমন্ত্রণ। আরও অনেকেই উপস্থিত থাকবেন।'

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইচ্ছে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলার সকল বিধায়ক এবং সাংসদরা উপস্থিত থাকুন। তিনি বলেন, 'ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তীকে বলব সমস্ত বিধায়ক সাংসদকে আমন্ত্রণ জানাতে। যে আসবে আসবে, যে না আসবে সেটা তাঁদের ব্যাপার। কিন্তু আমন্ত্রণ সবাইকে জানাবেন। বিরোধীরা কেউ যেন বাদ না যায়। সবাই যেন আসে।'

গত বছর কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব হয়নি, তার বদলে সেটা চলতি বছরের এপ্রিলে অনুষ্ঠিত হয়। ২৫ এপ্রিল থেকে ১ মে পর্যন্ত এই চলচ্চিত্র উৎসব চলেছিল। নন্দনের তিনটি, নজরুল তীর্থের দুটি প্রেক্ষাগৃহের সঙ্গে রবীন্দ্র সদন, শিশির মঞ্চ, ওকাকুরা ভবন এবং চলচ্চিত্র শতবর্ষ ভবনে দেখানো হয়েছিল এই উৎসবের বিভিন্ন ছবি। উদ্বোধনী সিনেমা হিসেবে দেখানো হয় ‘অরণ্যের দিনরাত্রি’। এই অনুষ্ঠানে সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা উপস্থিত ছিলেন। এবারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আরও অনেক বেশি জাঁকজমকপূর্ণ হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন