বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মন্নতের নতুন নেমপ্লেটের জন্য কত খরচ হল শাহরুখের? টাকার অঙ্ক শুনলে মুখ হাঁ হবেই
মন্নতের নতুন নেমপ্লেটের খরচ কত পড়েছে জানেন?
মন্নতের নতুন নেমপ্লেটের খরচ কত পড়েছে জানেন?

মন্নতের নতুন নেমপ্লেটের জন্য কত খরচ হল শাহরুখের? টাকার অঙ্ক শুনলে মুখ হাঁ হবেই

  • নতুন নেমপ্লেট লাগানোর পর থেকেই খবরে রয়েছে শাহরুখের বান্দ্রার সমুদ্রমুখী বিলাসবহুল বাংলো ‘মন্নত’। মোটা টাকা খরচ করে এটি তৈরি করিয়েছেন শাহরুখ আর গৌরী। 

দিনকয়েক আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড করছিল ‘মন্নত’। শাহরুখের সমুদ্রমুখী বাংলোর নতুন নামপ্লেট নিয়ে কম মাতামাতি হয়নি। শুধু তাই নয়, নেমপ্লেট বদল হওয়ার সাথে সাথেই তার সামনে সেলফি আর ফোটো নেওয়ার হিড়িকও বেড়ে গিয়েছে। 

খবর বলছে, শাহরুখ-পত্নী গৌরী খান, যিনি একজন বিখ্যাত ডিজাইনার তিনিই বিশেষজ্ঞদের সাথে বসে এই নেমপ্লেটের ডিজাইন করেছেন। গৌরী চেয়েছিলেন এমন একটা লুক যা খুব ক্লাসি হবে ও খান পরিবারের স্বাদকে একদম ঠিকভাবে ফুটিয়ে তুলবে। আর এই নতুন নেমপ্লেট বানাতে খরচ হয়েছে ২০-২৫ লাখ টাকা। আরও পড়ুন: ‘মন্নত বেচবেন কী?’ ট্রোলারকে চুপ করালেন শাহরুখ খান, জানুন বাদশার জবাব

‘মন্নত’ ছিল শাহরুখের ইচ্ছেপূরণ-এর প্রথম ধাপ। মুম্বইতে পা রেখেই এই বাংলো মনে ধরেছিল তাঁর। কিন্তু তখন তো তিনি সবে শুরু করেছেন বলিউডে পথ চলা। যখন 'ইয়েস বস' এর শ্যুটিং করছিলেন শাহরুখ, তখনই নাকি প্রথমবার 'মন্নত' দর্শন হয় তাঁর। আর সাথেসাথে প্রেম। সেইদিনই মনে মনে তিনি ঠিক করে ফেলেন যে একদিন এই বাংলোটি তিনি নিজের জন্য কিনবেন। সেইসময় ওই বাংলোর মালিক ছিলেন একজন গুজরাতি। নাম ছিল নারিমান দুবাস। আর 'মন্নত' এর পরিচয় ছিল 'ভিলা ভিয়েনা' হিসেবে। 

সেই গুজরাটি রাজিই ছিলেন না নিজের বাংলো বিক্রি করতে। এদিকে শাহরুখও হাল ছাড়েননি। অনেক অনুরোধের শেষে ২০০০ সাল নাগাদ কিনে নেন বাংলোটি। তারও চার বছর পর কাগজপত্রে সইসাবুদ করে পাকাপাকিভাবে 'ভিলা ভিয়েনা'-র নাম বদলে হয় 'মন্নত'।

কাজের সূত্রে, শাহরুখকে এরপর দেখা মিলবে ‘পাঠান’ ও ‘ডাঙ্কি’তে। আটলির ছবিতেও কাজ করার কথা রয়েছে কিং খানের। 

বন্ধ করুন