বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > সি-সেকশনের জন্য ‘কুমারী মা’ নীনার কাছে ছিল না দশ হাজার টাকাও!জানালেন মেয়ে মাসাবা
মা নীনা গুপ্তার সঙ্গে মাসাবা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
মা নীনা গুপ্তার সঙ্গে মাসাবা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

সি-সেকশনের জন্য ‘কুমারী মা’ নীনার কাছে ছিল না দশ হাজার টাকাও!জানালেন মেয়ে মাসাবা

  • প্রকাশিত হতে চলেছে নীনা গুপ্তার আত্মজীবনী 'সচ কাহুঁ তো'। সেই প্রসঙ্গে বইয়ের একটি অংশ নেটমাধ্যমে শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী-কন্যা মাসাবা। যে ঘটনা পড়ে যারপরনাই বিস্মিত নেটদুনিয়া।

আর কিছুদিনের মধ্যে প্রকাশিত হবে বর্ষীয়ান বলি-অভিনেত্রী নীনা গুপ্তার আত্মজীবনী 'সচ কাহুঁ তো'. সেই বইয়ের থেকেই একটি পাতার ছোট্ট অংশ নেটমাধ্যমে শেয়ার করেছেন তাঁর কন্যা মাসাবা গুপ্তা। কিংবদন্তি ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডস এবং নীনা গুপ্তার কন্যা মাসাবা পেশায় একজন সফল ডিজাইনার। ওই অংশে আঁচ পাওয়া গেছে মাসাবার জন্মের সময় নীনার আর্থিক দুরাবস্থার কথা। 

ভিভ রিচার্ডসের সন্তানের (মাসাবা গুপ্তা) মা হওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছিলে নীনা। যদিও কোনওদিন নিজের স্ত্রী মারিয়মের সঙ্গে বিয়ে ভেঙে নীনাকে বিয়ে করেননি ভিভ রিচার্ডস। আজ থেকে ত্রিশ বছর আগে কুমারী মা হওয়ার সিদ্ধান্তটা কঠিন ছিল নীনা গুপ্তার কাছে। তবে তিনি পিছিয়ে আসেননি। 

ইনস্টাগ্রামে মাসাবা লেখেন তাঁর জন্মানোর প্রাক্কালে আর্থিক দিকে থেকে অতন্ত্য সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন নীনা। সেইমুহূর্তে অভিনেত্রীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পড়ে ছিল মাত্র হাজার দু'য়েক টাকা।অথচ অপারেশন করাতে তৎকালীন খরচ ছিল কমবেশি ১০,০০০ টাকা। শেষপর্যন্ত মাসাবার জন্মের জন্য নির্ধারিত 'ডেট' এর কিছুদিন আগে 'ট্যাক্স রিটার্ন'-এর সুবাদে নীনার অ্যাকাউন্টে জমা পড়ে ৯,০০০ টাকা। স্বস্তির শ্বাস ফেলেছিলেন সন্তানসম্ভবা এই অভিনেত্রী। কারণ সেইমুহূর্তে সবমিলিয়ে তাঁর অ্যাকাউন্টে সঞ্চিত টাকার অঙ্কটা গিয়ে দাঁড়িয়েছিল ১২,০০০ টাকায়। 

এর সঙ্গে মাসাবা আরও লেখেন যে মায়ের জীবনে এই ঘটনা জানার পর প্রতিদিন নিজেকে একটু একটু করে তৈরি করেছেন তিনি। প্রাণপণে পরিশ্রম করে গেছেন সফল হওয়ার জন্য। তাঁর মাকে যেন সেইসব কষ্টের দিনগুলোতে ফের ফিরে যেতে না হয় সেই জন্য রোজ নিজের মতো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। 'ভিভ-কন্যা' আরও বলেন, এইমুহূর্তে তাঁর জীবনের অন্যতম লক্ষ তাঁর মাকে একটু আনন্দ দেওয়া যা তাঁর ভীষণভাবে প্রাপ্য।

স্বভাবতই মাসাবার এই পোস্ট পড়ে মুগ্ধ হয়েছেন নেটিজেনরা। মাসাবাকে শুভেচ্ছা ও ভালবাসার বার্তা দেওয়া পাশাপাশি জীবনের ওই কঠিন অধ্যায়ে নীনার লড়াইয়ের কথা শুনে তাঁরা যে চমৎকৃত সে বিষয়েও বলতে কোনও কসুর করেননি তাঁরা। আগামী ১৪ জুন পেঙ্গুইন পাবলিশার্স-এর তরফে প্রকাশিত হবে নীনার এই আত্মজীবনী। বইয়ে বলিউডের নানান অন্ধকার দিকের কথাও যেমনথাকবে তেমনই ভিভকে বিয়ে না করে তাঁদের সন্তান মাসাবাকে কীভাবে এক হাতে মানুষ করলেন এই বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সেকথাও তুলে ধরা হয়েছে ' সচ কাহুঁ তো'-তে।

বন্ধ করুন