বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > চুল নিয়ে মায়ের সঙ্গে চুলোচুলি করছেন ‘নোয়া’! দেশের মাটি’র শ্যুটিং সেটে যা হল..
মজার ভিডিয়ো শেয়ার করলেন শ্রুতি
মজার ভিডিয়ো শেয়ার করলেন শ্রুতি

চুল নিয়ে মায়ের সঙ্গে চুলোচুলি করছেন ‘নোয়া’! দেশের মাটি’র শ্যুটিং সেটে যা হল..

  • শেষে নোয়ার সঙ্গে যা করলেন তাঁর পর্দার মা..!

কোমর অবধি এক রাশ চুল নিয়ে মেকআপ রুমে বসে ‘দেশের মাটি’র ‘নোয়া’ অর্থাৎ অভিনেত্রী শ্রুতি দাস। চুল কাটব কী কাটব না! এটা এখন তাঁর সব থেকে বড় বিভ্রান্তি। পরামর্শ চাইছেন ‘পর্দা’র মা অনিন্দিতা রায়চৌধুরির কাছে। সামাজিক মাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে সেই ভিডিও।

এর আগে জি বাংলার ত্রিনয়নী ধারাবাহিকে লিড রোলে অভিনয় করেছেন শ্রুতি। বাংলা টেলিভিশনের বেশ জনপ্রিয় মুখ তিনি। তাঁর লম্বা চুলের চর্চা হামেশাই হয়ে থাকে। এবার চুল কাটব কি কাটব না .. এই দ্বন্দ্ব থেকে কার্যত চুলোচুলি বাঁধিয়ে বসলেন নোয়া ও তাঁর মা। লম্বা চুল রাখবেন না কেটেই ফেলবেন নিজেই ঠিক করে উঠতে পরাছেন না শ্রুতি দাস। তাই তো পর্দার মা কে বার বার জিজ্ঞেস করছেন কী করবেন। প্রথমেই বললেন রবিবার গিয়ে চুল ছোট করে ফেলবেন। তারপর আবার বলছেন, ‘এত বড় চুল কেটে ফেলব?’ তখনই পর্দার মা অনিন্দিতার পরামর্শ, ‘তবে কাটিস না’। বিভ্রান্ত নোয়ার উত্তর, ‘ছোট চুল যে ফ্যাশন’। মেয়ের এই নখড়ার জেরে শেষে রেগে গিয়ে কাঁচি নিয়ে তাঁর চুল কেটে দিতে উদ্যোগী নন নোয়ার মা। 

ধারাবাহিকের এই বিহাইন্ড দ্য সিনে আপাতত মজে নেটিজেনরা। ভিডিও পোস্ট হতেই লাইক এবং কমেন্টের বন্যা। দর্শককূলের বেশ মনে ধেরেছে এই মা-মেয়ের খুনসুটি।

অন্যদিকে, পর্দায় ‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিকে এখন বেশ জোড়ালো পর্ব চলছে। পাড়ার মস্তানের হাত থেকে নোয়াকে রক্ষা করতে তার সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দিয়েছে মুখোপাধ্যায় পরিবারের ছেলে কিয়ান। এই নিয়ে পরিবারের মধ্যে চলছে তোলপাড় কাণ্ড। এদিকে কিয়ান-নোয়া একে অপরকে ভালবেসে ফেলেছে। কিন্তু দুই পরিবারের জটিলতা কী করে সামলাবেন তাঁরা, যা দেখা যাবে আগামী পর্বগুলোতে।

বন্ধ করুন