বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জন্মদিনে গোয়ার সমুদ্র সৈকতে নগ্ন হয়ে দৌড়ালেন মিলিন্দ সোমন! শোরগোল টুইটারে
পোষাকহীন মিলিন্দ! (ছবি-টুইটার)
পোষাকহীন মিলিন্দ! (ছবি-টুইটার)

জন্মদিনে গোয়ার সমুদ্র সৈকতে নগ্ন হয়ে দৌড়ালেন মিলিন্দ সোমন! শোরগোল টুইটারে

  • ৫৫-র তরুণ তুর্কি মিলিন্দ সোমান! ফিটনেসের মামলায় সকলকে গুনে গুনে দশ গোল দেবেন তারকা। 

সুঠাম দেহ,বলিষ্ঠ চেহারার মিলিন্দ সোমন নব্বইয়ের দশকে ভারতীয় মডলিংয়ের দুনিয়ার বেতাজ বাদশা ছিলেন। বয়স বেড়েছে ঠিকই, তবে এই তারকার আবেদন যে কোনও অংশে কমে যায়নি তা বারংবার প্রমাণ করে দেন তিনি। আজ মিলিন্দ সোমনের ৫৫তম জন্মদিন। আর বার্থ ডে'তে সকলকে অবাক করে দিলেন এই সুপারস্টার মডেল। এদিন গোয়ার সমুদ্র সৈকতে সম্পূর্ন নগ্ন হয়ে দৌড়ালেন তারকা। হ্যাঁ, সমুদ্রের নীল জলরাশি, আর দিকন্ত বিস্তৃত আকাশের সামনে একেবারে পোশাকহীন মিলিন্দ, শরীরে সুতোর লেশমাত্র নেই! আর সেই মুহূর্ত লেন্সবন্দী করেছেন তাঁর চেয়ে ২৯ বছরের ছোট স্ত্রী অঙ্কিতা কোনওয়ার।

এই ছবি পোস্ট করে নিজেই নিজেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানালেন মিলিন্দ। পোস্টে তারকা লেখেন- 'নিজেকেই জানাই শুভ জন্মদিন। ৫৫ এবং ছুটে চলেছি'। সত্যি তো ৫৫-তেও তরুণ তুর্কি তিনি। 

 ফিটনেসের ব্যাপারে ব্যাপারে কতটা সচেতন মিলিন্দ। বয়স শুধুই একটা সংখ্যা তিনি দেখিয়ে দিয়েছেন বহুবার। মডেলিংয়ের সময়ও একাধিকবার ন্যুড শ্যুট করে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন মিলিন্দ। ৫৫তম জন্মদিনে মিলিন্দের এই বোল্ড পোস্ট ঘিরে টুইটারে নানা মুনির নানা মত। মহিলা ভক্তরা যেমন এই ছবি দেখে মন হারাচ্ছে,তেমন মিম প্রস্তুতকারকরা হাজির হয়ে গিয়েছেন একগুচ্ছ মিমের ঝাঁপি নিয়ে। দেখুন মাইক্রো ব্লগিং সাইটের বাসিন্দাদের কিছু দুর্দান্ত প্রতিক্রিয়া

বদলায়নি কিছুই! 
বদলায়নি কিছুই! 

ফিটনেস সচেতন মিলিন্দ ৫৫তম জন্মদিন সেলিব্রেট করলেন স্ত্রীর সঙ্গে ১২ কিলোমিটার দৌড়ে। শুধু নিজে ফিট থাকা নয়, ফিটনেসের প্রচারেও এগিয়ে থাকেন এই প্রাক্তন সুপারমডেল। তাঁর সঙ্গে সেলফি তুলতে চাইলে ভক্তদের কাছেও পালটা আবদার রাখেন তিনি, পুস আপস করলে তবেই তুলবেন সেলফি! 

হিন্দুস্তান টাইমসে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে জাতীয়স্তরের এই সুইমিং চ্যাম্পিয়ান জানিয়েছিলেন- আমি প্রতিদিন দৌড়াই এমন নয়, সপ্তাহে ৩-৪ দিন দৌড়াই। অনান্য দিন আমি কিছুই করি না। আমি কোনও ফিট থাকার রুটিনে বিশ্বাসী নই। আমি ৯ বছরে জাতীয় স্তরে সুইমিং চ্যাম্পিয়ান হই। ২৩ বছর বয়স অবধি আমি সাঁতার কেটেছি। এরপর ২৩-৩৮ বছর বয়সের মাঝখানে আমি কোনওরকম স্পোর্টস বা গেম কিংবা এক্সারসাইজের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম না। তবে আমার ওজন কিন্তু ১৯ বছর বয়সে যা ছিল আজও তাই রয়েছে। একচুলও বদলায়নি!'

বন্ধ করুন