বাড়ি > বায়োস্কোপ > স্বাধীনতা দিবসে মিমির প্রশ্ন,'আমরা সত্যি স্বাধীন তো'? উত্তর খোঁজার চেষ্টা করলেন নায়িকা
মিমি চক্রবর্তী (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
মিমি চক্রবর্তী (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

স্বাধীনতা দিবসে মিমির প্রশ্ন,'আমরা সত্যি স্বাধীন তো'? উত্তর খোঁজার চেষ্টা করলেন নায়িকা

  • ‘চিন্তা-ভাবনার স্বাধীনতা' আজ সবচেয়ে জরুরি,বললেন মিমি। ডাক দিলেন ‘স্বাধীন’ ভাবনার।

'স্বাধীনতা-হীনতায় কে বাঁচিতে চায় হে, কে বাঁচিতে চায়..দাসত্ব শৃঙ্খল বল কে পরিবে পায় হে, কে পরিবে পায়…'

  আজ ১৫ অগস্ট। দেশের ৭৪তম স্বাধীনতা দিবস।পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে আজই স্বাধীন হয়েছিলাম আমরা। করোনা সংকটের মধ্যেই এবছর দেশবাসী উদযাপন করেছে স্বাধীনতা দিবস। কিন্তু স্বাধীনতার এত বছর পরেও কিছু কিছু প্রশ্ন আজও আমাদের মনকে নাড়িয়ে দেয়, সবচেয়ে বড় প্রশ্ন হল আমরা কি সত্যিই স্বাধীন?

সেই সব প্রশ্নই এদিন উঠে এল মিমি চক্রবর্তীর ইন্ডিপেনডেন্স ডে স্পেশ্যাল ভিডিয়ো বার্তায় এদিন স্বাধীনতার আসল মানে খোঁজবার চেষ্টা করলেন অভিনেত্রী, সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। আসলে স্বাধীনতা দিবস পালন করলেই কি স্বাধীন হওয়া যায়? মনের স্বাধীনতা কী সত্যি আমাদের রয়েছে?

লকডাউনে করোনা-যোদ্ধাদের সমাজ যেভাবে ব্রাত্য করবার চেষ্টা করেছি আমরাই কিংবা আজও সমাজ যেভাবে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সমান চোখে গ্রহণ করতে পারেনা কিংবা আজও বিভিন্ন পেশায় লিঙ্গবৈষম্যের নজির চোখে পড়ে-সেই সব কথা উঠে এল এই ভিডিয়ো।

View this post on Instagram

Happy Independence Day🇮🇳 Jai Hind🙏

A post shared by Mimi (@mimichakraborty) on

‘আসলে আমাদের চারপাশের বিভিন্ন স্বাধীনতার সাথে সাথে আরও একরকমের স্বাধীনতা ভীষণভাবে জড়িয়ে।সেটা হল চিন্তা-ভাবনার স্বাধীনতা। আসুন না আমরা সবাই মিলে স্বাধীনতার আসল মানেটা খুঁজে বার করি’-বললেন মিমি চক্রবর্তী।

আসলে মনের চিন্তা ভাবনাগুলোকে মুক্তি দিতে হবে পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে। যাতে সমাজে সবার সমানভাবে বাঁচবার অধিকার থাকে, ভালোবাসবার অধিকার থাকে। এমন সমাজ আমরা গড়তে পারি যেখানে পথকুকুর কিংবা পশুদের খাবার দেওয়াটা আদিখ্যেতা না মনে হয়। মেয়েদের রিক্সা চালানোটা বাঁকা চোখে না দেখা হয়। তৃতীয়লিঙ্গের মানুষদের ভালোবাসার সমান মর্যাদা দেওয়া হয়-তবেই তো আমরা প্রকৃত স্বাধীন হব।

বন্ধ করুন