বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mira Rajput: ব্রহ্মাস্ত্র-র 'ওম দেবা দেবা' গানে পিয়ানো বাজালেন মীরা, প্রশংসায় ভরালেন নেটিজেনরা

Mira Rajput: ব্রহ্মাস্ত্র-র 'ওম দেবা দেবা' গানে পিয়ানো বাজালেন মীরা, প্রশংসায় ভরালেন নেটিজেনরা

ওম দেবা দেবা গানে পিয়ানো বাজালেন মীরা রাজপুত

Mira Rajput: ব্রহ্মাস্ত্র ছবি থেকে রণবীর কাপুরের ‘ওম দেবা দেবা’ গানে পিয়ানো বাজালেন মীরা রাজপুত। সুরেলা, সুমধুর এবং সুন্দর বলে প্রশংসায় ভরালেন নেটিজেনরা।

প্রতিভায় ভরপুর শাহিদ কাপুর পত্নী মীরা রাজপুত। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি রিল শেয়ার করেছেন তিনি। দেখা গিয়েছে, পিয়ানোয় ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ ছবির থেকে ‘ওম দেবা দেবা’ গানটি বাজাচ্ছেন। ক্যাপশনে একটি সূর্য ইমোজি দিয়ে লিখেছেন, 'কৃতজ্ঞতায় ভরপুর একটি দিন'।

মীরাকে পিয়ানো বাজাতে দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা। কমেন্টে অনেকেই মীরার প্রশংসা করেছেন। একজন কমেন্টে লিখেছেন, ‘দারুণ করেছ।’ অপর একজনের মন্তব্য, ‘দুর্দান্ত পরিবেশন।’ সুরেলা, সুমধুর এবং সুন্দর বলেও প্রশংসা করেছেন অনেকে। মীরা রাজপুত পেশায় একজন ফ্যাশন ইনফ্লুয়েন্সার, ইন্টিরিয়র ডিজাইনার। তিনি মাঝে মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা টিপস দিয়ে থাকেন তাঁর অনুরাগীদের। আরও পড়ুন: ‘৮৩’ থেকে ‘দঙ্গল’, স্পোর্টস ছবির জন্য কাদের থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন অভিনেতারা

ব্যক্তিগত জীবনের নানা টুকরো ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় হামেশাই পোস্ট করে থাকেন মীরা। ২০১৮ সালের জুলাই মাসে ওয়ারলি (পশ্চিম)-এর হাইরাইজ বিল্ডিং ‘থ্রি সিক্সটি ওয়েস্ট’-এ ঝাঁ চকচকে ডুপ্লেক্স কেনেন শাহিদ। ৮,৬২৫ স্কোয়ার ফিটের ৫৫.৬০ কোটির ওই ডুপ্লেক্স শাহিদ এবং দুই ছেলেমেয়ের সঙ্গে থাকেন মীরা। সম্ভবই ওই বাড়িতে বসেই এই ভিডিয়োটি বানিয়েছেন মীরা।

২০১৫ সালের ৭ জুলাই বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শাহিদ-মীরা। তার পরের বছর অগস্ট মাসে তাঁদের প্রথম সন্তান মিশার জন্ম হয়। ২০১৮ সালে জন্ম হয় জৈনের। অভিনেতাকে শেষবার ‘জার্সি’ ছবিতে দেখা গিয়েছে, সেখানে তিনি একজন ক্রিকেটারের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। আগামীতে শাহিদকে ‘ফার্জি’ ছবিতে দেখা যাবে। এই ছবির মাধ্যমেই তিনি ওয়েব দুনিয়ায় পা রাখবেন।

একবার ‘কেস তো বনতা হ্যায়’ শো-তে হাজির হয়েছিলেন শাহিদ কাপুর। রীতেশ দেশমুখ আর বরুণ শর্মার এই টক শো-তে তারকাদের উপর ওঠা অভিযোগ পড়ে পড়ে শোনানো হয়, আর সেগুলিকে নিজেদের মতো করে উত্তর দেন তাঁরা। শো-তে শাহিদকে প্রশ্ন করা হয়, এরকম কি কখনও হয়েছে স্ক্রিপ্ট ভালো লাগেনি তাঁর? যাতে অভিনেতা হাসতে হাসতেই উত্তর দেন, ‘না না এরকম কখনও হয়নি। কাজ করতে হয় স্যার, ঘর চালাতে হয়।’

এরপর রীতেশ প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন, ‘এই স্ক্রিপ্ট চয়েজ নিয়ে কি কোনওভাবে তাঁর পছন্দ আর বউ মীরা রাজপুতের পছন্দ আলাদা হয়েছে কখনও?’ আর এবারই শাহিদ দিয়ে ফেলেন সেই বাঁধিয়ে রাখার মতো মজাদার জবাবটা। বললেন, ‘হ্যাঁ ব্যক্তিগত জীবনে তো রোজ এটাই হয়। যেটা ওর স্ক্রিপ্ট সেন্স হয় সেই অনুযাই কাজ করা হয়।’

বন্ধ করুন