বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘করণ,পরিণীতি,আমার সম্মিলিত আয়ের চেয়ে বেশি টাকা কামায় ভারতী’, দাবি মিঠুনের
মিঠুনের আজব দাবি

‘করণ,পরিণীতি,আমার সম্মিলিত আয়ের চেয়ে বেশি টাকা কামায় ভারতী’, দাবি মিঠুনের

  • এবার ভারতীর সঙ্গে মশকরায় মাতলেন মিঠুন। ‘হুনরবাজ’-এর মঞ্চে ভারতীই 'হায়েস্ট পেইড'।

এই মুহূর্তে কালার্স টিভির রিয়ালিটি শো ‘হুনরবাজ'-এর মঞ্চে বিচারক হিসাবে দেখা যাচ্ছে মিঠুন চক্রবর্তীকে। এই ট্যালেন্ট হান্ট শো-তে মিঠুনের সহ-বিচারক হিসাবে রয়েছেন বলিউডের অপর দুই ব্যক্তিত্ব, করণ জোহর এবং পরীণিতি চোপড়া। শো সঞ্চালনার দায়িত্বে রয়েছেন ভারতী সিং ও তাঁর স্বামী হর্ষ লিম্বোচিয়া। 

ভারতী নিঃসন্দেহে এই শো-এর প্রাণভ্রমরা। হাসি-ঠাট্টায় শো-এর মঞ্চ মাতিয়ে রাখেন তিনি। তবে শুধু অন-ক্যামেরা নয় অফ-ক্যামেরাও পরিস্থিতি একদম একই। সম্প্রতি সেই ঝলকই ধরা পড়ল চ্যানেলের তরফে শেয়ার করা এক বিহাইন্ড দ্য সিন ভিডিয়োয়। সেখানে দেখা গেল শ্যুটের ফাঁকে ভারতী নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো বানাতে ব্যস্ত, আর সেই ভিডিয়োতে ফি্ল্টারের মাধ্যমে বিচারকদের ছোটবেলার অবতার ফিরিয়ে নিয়ে যাবেন তিনি। শুরুতে ভারতীর সঙ্গে রিল ভিডিয়ো বানাতে আপত্তি জানাচ্ছিলেন মিঠুন।

এরপর মিঠুনদাকে ‘লাফটার কুইন’ বলেন, ‘তোমার কী হবে যদি একজন তোমার জন্য একটু টাকা কামাতে পারে’। এরপর সপাটে মিঠুন জবাব দেন, ‘হ্যাঁ, তুই তো গরীব! আমি, করণ, পরিণীতি তিনজনে মিলে এখানে যে টাকা উপার্জন করি, তুই একটাই সেটা কামাস’। 

এই কথা শুনে চুপ হয়ে যান ভারতী। এরপর তিনি করণের মুখের উপর বেবি ফিল্টার ব্যবহার করে, তাঁকে নানান প্রশ্নে বিব্রত করাবর চেষ্টা করেন। পরিণীতি তো বাচ্চা সাজতে পেরে বেশে খুশি। মুখে আঙুল ঢুকিয়ে পোজ দেন তিনি। 

মিঠুনকে বাচ্চা হিসাবে তুলে ধরবার পর ভারতী প্রশ্ন করেন, ‘এই এপিসোডটা কি টাকার বদলে চকোলেট দিয়ে চালিয়ে দেওয়া যাবে?’ নিজের বেবি অবতার ভারতীর ফোনে দেখে অবাক হয়ে যান মিঠুন নিজেও। 

 

বন্ধ করুন