বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মৃত্যু গুজব নিয়ে ফের গর্জে উঠলেন ‘শক্তিমান’ মুকেশ, দিলেন পুলিশে যাওয়ার হুমকি!
মুকেশ খান্না
মুকেশ খান্না

মৃত্যু গুজব নিয়ে ফের গর্জে উঠলেন ‘শক্তিমান’ মুকেশ, দিলেন পুলিশে যাওয়ার হুমকি!

  • মৃত্যু গুজব নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিলেন মুকেশ খান্না। ৭ দিন আগেই দিদিকে হারিয়েছেন অভিনেতা।

নিজের মৃত্যুর গুজব নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিলেন ‘শক্তিমান’ খ্যাত অভিনেতা মুকেশ খান্না। সমালোচকদের একহাত নিলেন তিনি। দিন দশেক আগের মৃত্যু গুজব নিয়ে ফের ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেন অভিনেতা। সেখানে তাঁর মৃত্যু গুজব যাঁরা ছড়িয়েছেন তাঁদের এই ধরণের কাজ থেকে বিরত থাকতে বলেন তিনি। পাশাপাশি পুলিশি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তিনি।

ভিডিয়ো পোস্টের পাশাপাশি হিন্দিতে ক্যাপশনে অভিনেতা লেখেন, ‘কে আমার মৃত্যুর ভুঁয়ো খবর ছড়িয়েছে! আমার দিদির মৃত্যুর পর আমি শোকাহত, তবে ৭ দিন পর আমি নীরবতা ভঙ্গ করতে বাধ্য হলাম, আমার প্রশ্ন হল কে বা কারা আমার মৃত্যুর ভুঁয়ো খবর সামাজিক মাধ্যমে রটিয়েছে। তোমাদের বাবা-মা, ভাইবোন অথবা ঠাকুরদা-ঠাকুমা নেই? পরিবারের সদস্য এবং শুভাকাঙ্ক্ষীরা যারা আপনাকে জানেন তারা ব্যথিত হতে পারেন। তোমার কোন ধারণা আছে? কিছু দুর্বল হৃদয়ের মানুষ অবাক হতে পারেন। তোমাদের বিবেক আছে নাকি? তোমাদের মধ্যে কি সংবেদনশীলতার কিছুটা অনুভূতি আছে? যদি তা হয় তবে আপনি কখনই এই জাতীয় আপত্তিজনক আচরণ করবেন না। তাও, যখন আমরা একে অপরকে সুস্থ রাখতে এবং দীর্ঘায়ু জীবন কাটাতে কামনা করি’।

অভিনেতা আরো লেখেন, ‘এর আগেও তোমরা বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীদের নিয়ে এই ধরণের ভুয়ো খবর রটিয়েছ। এই থেকে তোমরা কি পেতে চাও? সামাজিক মাধ্য়মের অ্যাকাউন্টে কিছু ভিউ! এই ভিডিয়োতে আমি আমার অন্দরের যন্ত্রণা প্রকাশ করছি। সত্যতা না জেনে এই ধরণের গুজবেরর আগে যাচাই করুন এবং ফরওয়ার্ড করবেন না’।

আট মিনিটের ভিডিয়োতে অভিনেতার তাঁর মৃত্যুর গুজবকে স্পর্শকাতর ঘটনা বলে আখ্যা দিয়েছেন। ভিডিওতে তাঁর সুপারহিরো চরিত্র শক্তিমানকেও উল্লেখ করতে শোনা গেছে তাঁকে। যিনি অপরাধীকে তাঁর উপায়ে গ্রেফতার করার কথা বলেছেন। সামাজিক মাধ্যমে অভিনেতার অনুরাগীরা তাঁর মন্তব্যকে সমর্থন জানিয়েছেন।

গত ১১ মে, বছর ৬২-এর এই অভিনেতা মঙ্গলবার ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে নিজের মৃত্যুর গুজব ওড়ান। এই ধরনের খবর যাঁরা ছড়ায় তাঁদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে মুকেশ জানান, এদের সকলকে খুঁজে বের করে মারা উচিত।

 

 

বন্ধ করুন