বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মুম্বইয়ে বিদ্যুৎ-বিভ্রাট, টুইটারে মজার মিম শেয়ার করলেন অভিষেক, রিচা চড্ডারা
সপ্তাহের প্রথম দিনই হয়রান আমচি মুম্বই
সপ্তাহের প্রথম দিনই হয়রান আমচি মুম্বই

মুম্বইয়ে বিদ্যুৎ-বিভ্রাট, টুইটারে মজার মিম শেয়ার করলেন অভিষেক, রিচা চড্ডারা

  • বাণিজ্য-নগরীতে অন্ধকার। বিদ্যুত-বিহীন মুম্বইবাসীরা টুইট ভরাল মজাদার মিম দিয়ে। পিছিয়ে থাকলেন না তারকারাও।

সপ্তাহের প্রথম দিনেই ব্যাপক বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সম্মুখীন বাণিজ্য রাজধানী মুম্বই। সোমবার সকাল দশটার একটু পরেই গোটা মুম্বই শহর জুড়ে পাওয়ার কাট। যার জেরে থমকে যায় দেশের ব্যস্ততম শহর। গ্রিড ফেলিওরের কারণে এই বিপত্তি উদ্ধব সরকারের নেতৃত্বাধীন রাজ্যে।  শুধু মুম্বই নয়, থানে ও নবি মুম্বই সহ সমগ্র মুম্বই মেট্রোপলিটন রিজিয়নে একই হাল। বিদ্যুতের অভাবে স্তব্ধ হয়ে যায় মুম্বইয়ের লাইফলাইন লোকাল ট্রেন, বাতিল হয় পরীক্ষা। প্রায় দুই ঘণ্টা বাদে ধাপে ধাপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

এদিন সকাল থেকেই টুইটারের দেওয়ালেও ট্রেন্ডিংয়ে বিদ্যুৎবিহীন মুম্বইয়ের হাল-হাকিকত। সেই নিয়ে মাইক্রো ব্লগিং সাইতে মজাদার মিম শেয়ার করা থেকে পিছিয়ে থাকলেন না অভিষেক বচ্চন, রিচা চড্ডারা। এমনিতেই নিজের বুদ্ধিদীপ্ত উত্তর দিয়ে ট্রোলারদের চুপ করানোর ব্যাপারে বেশ নাম ডাক রয়েছে জুুনিয়র বি'র। আর এদিন বেশ কিছু হাস্যকর মিম তুলে ধরলেন তারকা।

যদিও গতকালই জন্মদিন সেলিব্রেট করা অমিতাভ বচ্চন কিন্তু বেশ বিরক্ত গোটা পরিস্থিতি নিয়ে, তিনি লেখেন- গোটা শহর বিদ্যুতবিহীন, কোনওভাবে এই মেসেজটা টাইপ করছি.. ধৈর্য ধরুন সব ঠিক হয়ে যাবে। 

রিচা চড্ডা এদিন নিজেকে নিয়ে তৈরি মিমই টুইটারে শেয়ার করলেন, যা সবচেয়ে ভাইরাল টুইটারে। যেখানে রিচার ছবির একটি ডায়লগ তুলে ধরা হয়েছে- ‘ইয়ে পাওয়ার মুঝে ভি চাহিয়ে’। আমচি মুম্বইয়ের এখন একটাই দাবি বিদ্যুত….

অভিনেতা বীর দাস আবার এই সুযোগে ক্ষমতাশালী ব্যক্তিত্বদের দিকে কটাক্ষের সুরে বলেন- ‘এমনিতেই মুম্বইয়ে ক্ষমতা না থাকলে কোনও কাজ হয় না, আর এবার তো পাওয়ারও (বিদ্যুত) চলে গেল!’। অনুপম খের লেখেন- ‘বাত্তি গুল’।

মুম্বইয়ের প্রধান বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থা বেস্ট জানায় টাটাদের লাইনে বিভ্রাটের জন্যেই এই অবস্থা। বেস্ট, টাটা, আদানি- প্রায় কোনও সংস্থাই বিদ্যুৎ দিতে পারেনি। জানা যায় শুধু মুম্বই নয়, লোনাভালা, খাণ্ডালা, পাওয়ানা, আলিবাগ, আম্বি ভ্যালি প্রভৃতি শহরেও বিদ্যুৎ নেই। কেন এত বিশাল জায়গা জুড়ে গ্রিড ফেল করল সেটা তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

বন্ধ করুন