বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Jeetu-Nabanita: অপরাজিতর ‘সত্যজিৎ’ হয়ে উঠতে ঝগড়া করে ফেলত জিতু, সব ভুলে ‘পাশে আছি’ লিখল নবনীতা
জিতুকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ বার্তা নবনীতার। 
জিতুকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ বার্তা নবনীতার। 

Jeetu-Nabanita: অপরাজিতর ‘সত্যজিৎ’ হয়ে উঠতে ঝগড়া করে ফেলত জিতু, সব ভুলে ‘পাশে আছি’ লিখল নবনীতা

  • নবনীতা সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের সামনে তুলে ধরলেন কত পরিশ্রম করে এমন একটা চরিত্র দর্শকদের দিতে পেরেছেন জিতু। সঙ্গে বললেন, ‘পাশে আছি’।

অভিনেতা জিতু কমল এখন বাঙালির নতুন ক্রাশ। আর হবে নাই বা কেন, বাঙালি তথা গোটা বিশ্বের আইকন সত্যজিৎ রায়ের লুকে হাজির হয়ে সকলকে চমকে দিয়েছেন যে! আসল না নকল, বোঝাই দায়! তবে চোখেমুখে একই অভিব্যক্তি, একই বডি ল্যাঙ্গোয়েজ যে কত কঠিন পরিশ্রমের ফল তা বুঝিয়ে দিল জিতুর স্ত্রী অভিনেত্রী নবনীতা দাসের একটি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট!

অনীক দত্ত পরিচালিত 'অপরাজিত' ছবিতে মুখ্য চরিত্র অপরাজিতয় দেখা যাবে জিতুকে। যা সত্যজিৎ রায়ের আদলে তৈরি করা হয়েছে। পরনে সাদা পাঞ্জাবি। হাতে সিগারেট ধরার ধরন, ক্যামেরায় চোখ রাখা-- প্রথম ঝলকে যে কেউ সত্যজিৎ বলে ভুল করতে পারেন সেই ছবি দেখে! নবনীতা সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের সামনে তুলে ধরলেন কত পরিশ্রম করে এমন একটা চরিত্র দর্শকদের দিতে পেরেছেন জিতু। সঙ্গে বললেন, ‘পাশে আছি’। 

ভোর ৫টায় উঠতেন জিতু। আর সঙ্গে উঠে পড়তেন নবনীতাও। বারবার চা করে দিতেন।বাড়িতে ওয়ার্কশপ করার জন্য মেকআপ করিয়ে দিতেন নিজের হাতে, বের করে দিতেন ফুল হাতা জামা। বেলা ১২টা অবধি বাড়িতে টু শব্দ করার জো ছিল না!

তবে একজন অভিনেতা হিসেবে নবনীতা জানেন একজন অভিনেতাকে একটা চরিত্র ফুটিয়ে তুলতে কতটা পরিশ্রম করতে হয়। তাই সবশেষে লিখেছেন, ‘এই রকম বহু তর্ক, বহু রাত জাগা, ওয়ার্কশপ এইসবের মধ্যে দিয়েই হয়তো চরিত্র গড়ে ওঠে.. চলো, আছি আরও রাত জাগার জন্য।’

নবনীতার এই সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট নিমেষে ভাইরাল হয়। সকলেই নবনীতাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন এভাবে পাশে থাকার জন্য। এমনকী জিতুর উদ্দেশেও বার্তা, ‘তুমিও কিন্তু বিজয়া রায় পেয়েছ বন্ধু’! যদিও পরদায় এই ছবিতে বিজয়া রায়ের চরিত্রে দেখা যাবে তৃণমূল নেত্রী ও অভিনেত্রী সায়নী ঘোষকে। এখনও ছবির কিছু অংশের শ্যুট বাকি আছে। যা করা হবে শিশির মঞ্চ, নন্দনের মতো জায়গায়।

বন্ধ করুন