বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Naseeruddin Shah: 'মুসলিমদের ঘৃণা করাই আজকাল ফ্যাশান, শিক্ষিতরাও করছেন', বিস্ফোরক নাসিরুদ্দিন শাহ

Naseeruddin Shah: 'মুসলিমদের ঘৃণা করাই আজকাল ফ্যাশান, শিক্ষিতরাও করছেন', বিস্ফোরক নাসিরুদ্দিন শাহ

নাসিরুদ্দিন শাহ

নাসিরুদ্দিন শাহ বলেন, 'নিশ্চিতভাবেই বর্তমান সময় উদ্বেগজনক। ছদ্মবেশে কিছু ভাবনা, ধারণা আমাদের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে, সমাজে তারই প্রতিফলন ঘটছে। মুসলিম বিদ্বেষ আজকাল ফ্যাশনেবল বিষয়, এমনকি শিক্ষিত লোকদের মধ্যেও ঢুকে গিয়েছে। ক্ষমতাসীন দল খুব চতুরতার সঙ্গে এটা স্নায়ুতে ঢুকিয়ে দিচ্ছে।’

বর্তমান সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে ফের সরব অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ। ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক বর্ষীয়ান অভিনেতা। নাসিরুদ্দিন শাহর দাবি, বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি ঘৃণা মানুষের ভিতর ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে, আর এটা এখন একটা ফ্যাশান হয়ে গিয়েছে।

সম্প্রতি 'তাজ: ডিভাইডেড বাই ব্লাড' ওয়েব সিরিজে দেখা গিয়েছে নাসিরুদ্দিনকে। সেবিষয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে সাক্ষাৎকার দেন নাসিরুদ্দেন। বলেন, ‘আজকালকার সিনেমায় যা উঠে আসছে, আর বস্তাবে যার প্রতিফলন ঘটছে সেটা ইসলামফোবিয়া।' বলেন, ‘নিশ্চিতভাবেই বর্তমান সময় উদ্বেগজনক। ছদ্মবেশে কিছু ভাবনা, ধারণা আমাদের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে, সমাজে তারই প্রতিফলন ঘটছে। মুসলিম বিদ্বেষ আজকাল ফ্যাশন হয়ে গিয়েছে, এমনকি শিক্ষিত লোকদের মধ্যেও এটা ঢুকে গিয়েছে। ক্ষমতাসীন দল খুব চতুরতার সঙ্গে এটা স্নায়ুতে ঢুকিয়ে দিচ্ছে। আমরা ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলি, গণতন্ত্রের কথা বলি, তাহলে সবকিছুর মধ্যে ধর্মের পরিচয় দিচ্ছেন কেন?’ তিনি আরো বলেন, ‘যারা ধর্মকে ব্যবহার করে ভোট গ্রহণ করছে তাঁদের কাছে নির্বাচন কমিশন নীরব দর্শক।’ তাঁর কথায়, 'এই একই কাজ যদি কোনও মুসলিম নেতা করতেন, তিনি যদি ‘আল্লহু আকবর’ বলে ভোট চাইতেন তাহলে এতক্ষণে তোলপাড় হয়ে যেত।’ 

আরও পড়ুন-ইসলামের টানে অভিনয় ছেড়েছেন, জায়রা বলছেন বিয়েবাড়িতে গেলেও তিনি এখন নিকাব পরেই খান!

নাসিরুদ্দি শাহর আশা ‘একদিন নিশ্চয় এই বিভাজনের রাজনীতি বন্ধ হবে।’ নাসিরুদ্দিন শাহর কথায়, ‘আমাদের নির্বাচন কমিশন কতটা মেরুদণ্ডহীন? যার একটা কথাও বলার সাহস নেই।'এদিন প্রধানমন্ত্রীকেও আক্রমণ করতেও ছাড়েন নি নাসিরুদ্দিন শাহ। তাঁর কথায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও ধর্মের নামে ভোট চান, সম্প্রতি এই কাজ করে তিনি ভোটে হেরেও গিয়েছেন। বলেন, 'যদিও, আমি আশা করি যে এটা বন্ধ হবে। তবে হ্যাঁ, এখন এটাই চলছে। এই সরকারের খুব চতুরভাবে এই খেলা খেলছে আর বিষয়টা কাজও করছে। দেখা যাক কতদিন এভাবে চলে'। 

তবে নাসিরুদ্দি শাহ এই প্রথম এভাবে সরকার বিরোধী বক্তব্য রাখছেন, এমনটা নয়, তিনি বহুবার তাঁর সাহসী মন্তব্যের জন্য আলোচনায় এসেছেন।

(এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup)

 

বন্ধ করুন