বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > HTLS 2020: ‘গোটা ভারতের বোন প্রিয়াঙ্কার স্বামী হয়ে আমি খুশি’, বললেন জিজু নিক জোনাস
প্রিয়াঙ্কা-নিক (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
প্রিয়াঙ্কা-নিক (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

HTLS 2020: ‘গোটা ভারতের বোন প্রিয়াঙ্কার স্বামী হয়ে আমি খুশি’, বললেন জিজু নিক জোনাস

  • প্রিয়াঙ্কাকে 'গোটা ভারতের বোন' তকমা নিকের। ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি ভালোবাসার কথা জানালেন নিক। 

ভারতের গ্লোবাল আইকন প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার স্বামী নিক জোনাস নিজেও গোটা বিশ্বে পরিচিত তাঁর ট্যালেন্টের সুবাদে। মার্কিন মুলুকের এই পপতারকা বিশ্বের অন্যতম সেলিব্রেটেট সংগীত তারকা। মাত্র সাত বছর বয়স থেকেই বিশ্ব সংগীতের মানচিত্রে নিজের পরিচিতি তৈরি করেছেন নিক। শুক্রবার হিন্দুস্তান টাইমস লিডারশিপ সামিট ২০২০-তে যোগদান করলেন জোনাস দম্পতি। প্রথমবার কোনও ভারতীয় মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে মুখোমুখি হলেন নিক জোনাস। করোনা আবহে এবছর ভার্চুয়ালি আয়োজন করা হয়েছে এই সামিট।

এদিন হিন্দুস্তান টাইমসের এন্টারটেনমেন্ট ও লাইফস্টাইল এডিটর সোনাল কালরার সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় ধরা দিলেন এই জুটি। হোলি হোক বা দিওয়ালি কিংবা করওয়া চৌথ-মার্কিন মুলুকে থাকলেও কোনও ভারতীয় উত্সবের রঙ থেকেই নিজেদের দূরে রাখেন না 'প্রিনিক' জুটি। প্রিয়াঙ্কার পাশাপাশি নিকের তরফেও গোটা দেশের জন্য আসে শুভেচ্ছা বার্তা। সেই নিয়ে এদিন প্রশ্ন করা হয় নিককে। 

দেশি গার্ল প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়ার পর থেকেই কী ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে আরও বেশি একাত্ম হয়ে উঠেছেন নিক? প্রিয়াঙ্কা তাঁকে কতটা ভারতীয় হিসাবে গড়ে তুলেছে? জবাবে নিক অকপটে জানান, 'আমি আমার ১৩ বছরের  মিউজিক্যাল ট্যুরের সুবাদে গোটা বিশ্ব ঘুরেছি কিন্তু কোনও দিনও ইন্ডিয়াতে যাওয়ার সুযোগ হয়ে উঠেনি। প্রিয়াঙ্কার হাত ধরেই আমি প্রথমবার সেদেশে গিয়েছি। এরপর বহুবার এসেছি। আর ভীষণ এনজয় করেছি। আমি প্রচুর ইন্ডিয়ান খাবার খাই। (পাশ থেকে প্রিয়াঙ্কা বলে উঠেন, ঠুসে ঠুসে জিজুকে প্রচুর লাড্ডু খাওয়ানো হয়েছে)। আমার খুব পছন্দ এই সংস্কৃতি।

প্রিয়াঙ্কা বলেন, মার্চ মাসে হোলির সময় প্রায় দিন পনেরো ভারতে কাটানোর প্ল্যান ছিল তাদের। তবে করোনার জেরে তা ভেস্তে যায়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে খুব তাড়াতাড়ি ভারতে আসবেন তাঁরা। 

উল্লেখ্য ২০১৮ সালে যোদপুরের উমেদভবনে সাত পাকে বাঁধা পড়েন নিয়াঙ্কা। ক্যাথলিকের পাশাপাশি হিন্দু রীতি মেনেও হয় বিয়ের অনুষ্ঠান। যেখানে একদম সাবেকি ভারতীয় বরের বেশ পাওয়া গিয়েছিল নিককে। শুধু কথায় নয়, কাজে এত শ্যালিকার ‘জিজু’ হওয়াটা কতখানি গুরু দায়িত্বের?  নিক বলেন, ‘ প্রিয়াঙ্কা ভারতের বোন হয়। হ্যাঁ, আমি গোটা ইন্ডিয়ার বোনের স্বামী হয়ে দারুণ খুশি’। সঙ্গে সঙ্গে প্রিয়াঙ্কা বলে উঠেন, ‘আমি মোটেই বিয়ের আগে কারুর বোন ছিলাম না, তোমায় বিয়ের পর সবার বোন হয়ে গেছি’। উল্লেখ্য বিয়ের পর থেকেই ‘ন্যাশন্যাল জিজু’র তকমা পেয়েছেন নিক। রীতিমতো টুইটারে ‘ন্যাশন্যাল জিজু’ হ্যাশট্যাগ দিয়ে ট্রেন্ড হয়েছে নিকের নাম। তবে 'গোটা ইন্ডিয়ার বোন’ তকমা শুনে খুব বেশি খুশি হননি প্রিয়াঙ্কা। আর একথা শুনে প্রিয়াঙ্কার পুরুষ ভক্তরা যে একটু বেশি মনে ব্যাথা পাবেন তা জানাতে ভোলেননি এই অনুষ্ঠানের হোস্ট সোনাল কালরা।

বন্ধ করুন