বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'আরিয়ানকে কিডন্যাপ করে টাকা আদায়ের ছক কষেছিল সমীর ওয়াংখেড়ে': নবাব মালিক
 সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ফের তোপ নবাব মালিকের 
 সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ফের তোপ নবাব মালিকের 

'আরিয়ানকে কিডন্যাপ করে টাকা আদায়ের ছক কষেছিল সমীর ওয়াংখেড়ে': নবাব মালিক

  • ‘কারা সমীরের আলমারি থেকে কঙ্কাল বার করতে পারে সেটাই এখন দেখবার’, টুইট নবাব মালিকের।

এনসিবির মুম্বই জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে তোপ দেগেই চলেছেন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিক। এনসিপি নেতা তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিক শুরু থেকেই বলে চলেছেন, প্রমোদতরীতে এনসিবির অভিযান পুরোটাই ওয়াংখেড়ের ‘সাজানো নাটক’। এবার দেশের কেন্দ্রীয় সংস্থার এই দুঁদে অফিসারের বিরুদ্ধে ‘অপহরণের চেষ্টা’র অভিযোগ আনলেন নবাব মালিক। তাঁর অভিযোগ ড্রাগ মামলার আছিলায় আরিয়ানকে কিডন্যাপ করতে চেয়েছিল সমীর ওয়াংখেড়ে, যাতে শাহরুখ খানের কাছ থেকে মোটা টাকা আদায় করা যায়। এই এনসিপি নেতা তথা মন্ত্রীর হুমকি, শীঘ্রই সমীরের আলমালিতে রাখা কঙ্কাল বেরিয়ে পড়বে। উদ্ধব সরকার ইতিমধ্যেই ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ওঠা তোলাবাজির অভিযোগ নিয়ে তৈরি বিশেষ তদন্তকারী দলের কথা মনে করিয়ে দেন। 

গত ২রা অক্টোবর গোয়াগামী প্রমোদতরী থেকে শাহরুখ পুত্রকে আটক করে এনসিবির একটি দল। সেই তদন্তকারী দলের নেতৃত্বে ছিলেন সমীর ওয়াংখেড়ে। টুইটারের দেওয়ালে উদ্ধব সরকারের সংখ্যা লঘু উন্নয়ন মন্ত্রী লেখেন, "আমি বিশেষ তদন্তকারী দলের দ্বারা সমীর দাউদ ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে তদন্ত দাবী করেছিলাম, আরিয়ান খানকে কিডন্যাপ এবং পরিবর্তে টাকা আদায়ের চেষ্টার জন্য। এবার দুটো বিশেষ তদন্তকারী দল গঠিত হয়েছে (রাজ্য ও কেন্দ্রের)। দেখা যাক কে সমীর ওয়াংখেড়ের আলমারি থেকে কঙ্কাল বার করে আনে'। 

হিন্দুস্তান টাইমসে মালিক জানান, ওয়াংখেড়ে আরিয়ানকে কিডন্যাপ করে, ড্রাগস মামলায় ওকে ফাঁসানোর চেষ্টা করেছে কিন্তু ওঁনার প্ল্যান ফেল হয়ে গিয়েছে'। 

আরিয়ান মামলার পঞ্চনামায় উল্লেখিত সাক্ষ প্রভাকর সেইল হাইকোর্টে আরিয়ানের জামিনের শুনানির দু-দিন আগে নিজের বয়ান থেকে সরে দাঁড়ান। এবং এনসিবির জোনাল ডিরেক্টরের বিরুদ্ধে সাদা পাতাই সই করিয়ে নেওয়া-সহ বেশ কিছু অভিযোগ আনে। এরপরই সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ খতিয়ে দেখতে মুম্বই পুলিশের একটি বিশেষ তদন্তকারী দল গঠিত হয়। পরবর্তীতে এনসিবির তরফেও ভিজিলেন্স তদন্ত চালানো হচ্ছে ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে। 

আরিয়ান মামলার তদন্তকারী অফিসারের পদ থেকে শুক্রবারই হঠিয়ে দেওয়া হয় সমীর ওয়াংখেড়েকে। শুক্রবার রাতে এনসিবির তরফে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়, আরিয়ান খান-সহ মোট ৬টি মাদক মামলা এনসিবির মুম্বই ব্রাঞ্চের থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে দিল্লি ইউনিটে। দিল্লির এক বিশেষ তদন্তকারী দলের হাতে আরিয়ান খান এবং অপর পাঁচটি মামলার দায়িত্বভার তুলে দেওয়া হয়। আরিয়ান মামলার নতুন তদন্তকারী অফিসার সঞ্জয় কুমার সিং। এনসিবির ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল জানিয়েছেন, আরিয়ান মামলার তদন্তকারী অফিসার না হলেও এই তদন্ত প্রক্রিয়ার সঙ্গে অবশ্যই যুক্ত থাকবেন সমীর ওয়াংখেড়ে, তিনি মুম্বই জোন ইউনিটের ডিরেক্টর এবং দিল্লির টিম অবশ্য তাঁর পরামর্শ নেবে এই মামলায়।

 

বন্ধ করুন