বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > স্বামী কিংবা প্রেমিক না থাকায় দীর্ঘবছর একাকিত্ব ভোগ করেছেন, জানালেন নীনা গুপ্তা
নীনা গুপ্তা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
নীনা গুপ্তা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

স্বামী কিংবা প্রেমিক না থাকায় দীর্ঘবছর একাকিত্ব ভোগ করেছেন, জানালেন নীনা গুপ্তা

  • বহু বছর স্বামী অথবা প্রেমিক না থাকার সুবাদে সুদীর্ঘ সময় জুড়ে জীবনে তীব্র একাকিত্ব ভোগ করেছেন নীনা গুপ্তা।তবে এও জানাতে ভোলেননি যে ওই একাকিত্ব তিনি পেরিয়ে এসেছেন যেহেতু অতীতকে আঁকড়ে বসে থাকেন না তিনি।

বহু বছর ধরে স্বামী অথবা প্রেমিক না থাকার সুবাদে সুদীর্ঘ সময় জুড়ে জীবনে তীব্র একাকিত্ব ভোগ করেছেন তিনি। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানালেন নীনা গুপ্তা। তবে পাশাপাশি অভিনেত্রী এও জানাতে ভোলেননি যে ওই একাকিত্ব তিনি পেরিয়ে এসেছেন যেহেতু কখনওই অতীতকে আঁকড়ে বসে থাকেন না তিনি। কথাপ্রসঙ্গে এই বর্ষীয়ান অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন যে কর্মক্ষেত্রে তিনি যখন অপমানিত হতেন তখনও তাঁকে গ্রাস করতো একাকিত্ব।

সম্প্রতি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছে নীনার নতুন ছবি ' সর্দার কা গ্র্যান্ডসন'. ছবিতে নীনার পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা গেছে অর্জুন কাপুর এবং রকুল প্রীত সিং-কে। এই ছবি প্রসঙ্গে এক রেডিও সাক্ষাৎকারে এই বর্ষীয়ান অভিনেত্রী জানান জীবনের দীর্ঘ সময় জুড়ে তাঁকে লড়াই চালাতে হয়েছে নিজের একাকিত্বের সঙ্গেও। জীবনের ওই সময়টুকুর কথা বলতে গিয়ে নীনা জানান স্বামী না থাকার জন্য তো বটেই কর্মক্ষেত্রেও যখন তিনি অপমানিত হতেন একাকিত্ব জড়িয়ে ধরতো তাঁকে। সেইসময়ে পাশে এসে ভরসা যোগাতেন তাঁর বাবা। নীনার কথায়, ' একধারে দেখতে গেলে বাবাই ছিলেন আমার বয়ফ্রেন্ড। বাড়ির প্রধান পুরুষ ছিলেন তিনিই।' কীভাবে কাটিয়ে উঠলেন তিনি একাকিত্বে মোড়া এই সময় ? জবাবে স্পষ্ট ভাষায় এই বর্ষীয়ান অভিনেত্রী বলেন,' ঈশ্বর সবসময়ই আমাকে শক্তি জুগিয়ে এসেছেন জীবনের পথে ক্রমাগত সামনে এগিয়ে চলার ব্যাপারে। তাছাড়া আমি অতীতের স্মৃতি আঁকড়ে একদমই পড়ে থাকি না!'

প্রসঙ্গত কিংবদন্তী ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট তারকা স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস-এর সঙ্গে একসময়ে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে ছিলেন নীনা। তাঁদের সম্পর্ক বিয়ের পরিণতি না পেলেও একটি মেয়ে রয়েছে এই জুটির। নাম,মাসাবা গুপ্তা। ২০০৮ সালে বিবেক মেহরার সঙ্গে বিয়ে সারেন নীনা। বর্তমানে স্বামী-স্ত্রী হিসেবেই দিব্যি ঘরকন্না করছেন বিবেক-নীনা।

বন্ধ করুন