বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > পাখি-রূপী নীতুর ‘আতিস’ লুকের সঙ্গে ‘মেট গালা’র তুলনা টানলেন করণ
নীতুর প্রশংসায় করণ
নীতুর প্রশংসায় করণ

পাখি-রূপী নীতুর ‘আতিস’ লুকের সঙ্গে ‘মেট গালা’র তুলনা টানলেন করণ

  • নীতুর প্রশংসায় পঞ্চমুখ করণ।

স্মৃতির পাতা উলটে পুরনো ছবির গানের ভিডিয়ো সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করলেন অভিনেত্রী নীতু কাপুর। ‘আতিস’ ছবি থেকে ‘তেরে চাহনে ওয়ালে আয়ে হ্যায়’ গানের ছোট এরটি ভিডিয়ো ক্লিপ শেয়ার করেন অভিনেত্রী। পাশাপাশি অভিনেত্রী জানান, নিজের লুক দেখে হতবাক হয়েছেন তিনি। গানে নীতুকে লাল টুকটুকে পোশাকে মন্ত্রমুগ্ধ লুকে দেখা গেছে। ট্রান্সপ্যারেন্ট আচ্ছাদন দিয়ে মুখের অর্ধেকটা তাঁর ঢাকা। মাথায় একটি ছোট্ট মুকুট পরেছেন তিনি। সেই মুকুটের ওপরে বেশ কয়েকটি পালক লাগানো রয়েছে।

গানের ভিডিয়ো সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করে নীতু লেখেন, ‘আমি সবসময় ভাবতাম কেন আমাকে পাখির মতো দেখাচ্ছে #থ্রোব্যাক #আতিস’। ছবির পোস্টে কমেন্ট করেন পরিচালক তথা প্রযোজক করণ জোহর। তিনি অভিনেত্রীর লুকের প্রশংসা করে লিখেছেন, ‘এই লাল আউটফিটা আমার বেশ পছন্দ হয়েছে! এটা খানিকটা মেট গালা লুক’।

নীতু কন্যা ঋদ্ধিমা কাপুর সাহানিও ভিডিয়ো পোস্টে কমেন্ট করে মায়ের প্রশংসা করতে দেখা যায়। তিনি লেখেন, ‘ভালবাসা!! গ্ল্যাম পাখি’। অভিনেত্রী মাহিপ কাপুরকে কমেন্টে ভালবাসা এবং হাসির ইমোজি দিতে দেখা যায়। নীতু অনুরাগীদের কমেন্ট বক্সে অজস্র প্রশংসনীয় কমেন্ট করেছেন।

১৯৭৯ সালে মুক্তি পেয়ছে ‘আতিস’। অভিনেতা জিতেন্দ্রর বিপরীতে ছবিতে অভিনয় করেছিলেন নীতু কাপুর। অম্বরীশ সঙ্গল পরিচালিত ছবিতে আরো অভিনয় করেছিলেন মদন পুরী, সুজিত কুমার প্রমুখ। প্রসঙ্গত, ৭০-এর দশকে জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন নীতু। যদিও ঋষি কাপুরের সঙ্গে বিয়ের পর, রূপোলি পর্দা থেকে দূরত্ব বাড়িয়ে ফেলেন তিনি। পরে তাঁকে ‘বেশরম’ এবং ‘দো দুনি চার’এর মতো ছবিতে দেখা গেছে তাঁকে।

তবে ‘যুগ যুগ জিও’ ছবি দিয়ে শীঘ্রই অভিনয় জগতে কামব্যাক করছেন নীতু কাপুর। ছবিতে আরো রয়েছেন অনিল কাপুর, বরুণ ধাওয়ান ও কিয়ারা আডবানি। গত বছরের শেষের দিকে ছবির শ্যুটিং শুরু হয়। তবে ছবির টিমের একাধিক সদস্য এমনকি নীতু কাপুর করোনা আক্রান্ত হওয়ার জন্য ছবির শ্যুটিং আপতত স্থগিত। 

বন্ধ করুন