বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > হাসপাতালে রণবীর-আলিয়াকে দেখলে রেগে যেতেন ঋষি কাপুর! কারণ জানালেন নীতু
রণবীর-আলিয়ার উপর কেন রেগে যেতেন ঋষি কাপুর

হাসপাতালে রণবীর-আলিয়াকে দেখলে রেগে যেতেন ঋষি কাপুর! কারণ জানালেন নীতু

  • মারণরোগ ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই, তবুও খালি বসে থাকা পছন্দ ছিল না ঋষি কাপুরের। তাই ছেলে ও হবু বউমাকে বকাবকি করতেন।

হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে মারণরোগ ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই চালাচ্ছেন তবুও মনেপ্রাণে কাজ পাগল মানুষ ছিলেন ঋষি কাপুর। তাই তো হাসপাতালে ছেলে রণবীর বা তাঁর প্রেমিকা আলিয়াকে ঠায় বসে থাকতে দেখলেই রেগে যেতেন অভিনেতা। প্রয়াত স্বামী সম্পর্কে এমনটাই জানালেন নীতু কাপুর। তিনি জানান, রণবীর-আলিয়াকে বসে থাকতে দেখলে ‘ভেল্লে লোগ’ (কাজহীন মানুষ) বলে কটাক্ষ করতেন ঋষি। 

দীর্ঘ সময় মার্কিন মুলুকে ক্যানসারের চিকিৎসা করিয়েছেন ঋষি কাপুর। সেই সময় সারাক্ষণ স্বামীকে আগলে রাখতেন নীতু। সময় পেলেই রণবীর এবং আলিয়াও উড়ে যেতেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। 

হাসপাতালের সেই দিনগুলোর কথা মনে করে নীতু জানান, ঋষিজি যখন অসুস্থ ছিলেন রণবীর-আলিয়া সারাদিন আইসিইউ-তে বসে থাকত। সেই দেখেই চটেছেন ঋষি কাপুর। প্রশ্ন করতেন, ‘তোমাদের কাজ নেই?’ বউমার প্রশংসা করে নীতু জানান, কেমনভাবে কঠিন সময়ে কাপুর পরিবারের পাশে ছিলেন আলিয়া। 

রণবীরের বিয়ে দেখে যাওয়ার ইচ্ছা ছিল ঋষি কাপুরের, তা হয়নি। তবে ছেলে-বউমার উপর তাঁর আর্শীবাদ সবসময় রয়েছে। নীতু বলেন, ‘উনি আমাদের সঙ্গেই আছেন। উনি আমাকে সুখী দেখতে চেয়েছেন, তাই তো আমি এমন সুন্দর বহুরানি পেয়েছি, আমার আলিয়া। আর কেউ ওর চেয়ে ভালো হতে পারত না। খুব মিষ্টি মেয়ে ও। সবটাই হয়েছে ঋষিজির আর্শীবাদে। হাসপাতালে থাকাকালীন দুজনে প্রায়ই উনি বলতেন, এবার তো বিয়েটা সেরে ফেল'। 

শীঘ্রই ‘যুগ যুগ জিও’-র সঙ্গে রুপোলি পর্দায় কামব্য়াক করছেন নীতু কাপুর। ৯ বছরের বিরতির পর ফের পর্দায় রণবীরের মা। আগামিকাল (শুক্রবার) মুক্তি পাবে এই ছবি, যা পরিচালনায় রয়েছেন রাজ মেহতা। ছবি অনিল কাপুরের বিপরীতে রয়েছেন নীতু। রয়েছেন বরুণ ধাওয়ান, কিয়ারা আডবানিরা।

 

বন্ধ করুন