বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জীবনে গুটকা ছুঁয়েও দেখেননি! কী কারণে ৬০ বছর বয়স বোঝা যায় না? ফাঁস সুনীল শেট্টির
সুনীল শেট্টিকে ‘গুটকা কিং’-এর তকমা!
সুনীল শেট্টিকে ‘গুটকা কিং’-এর তকমা!

জীবনে গুটকা ছুঁয়েও দেখেননি! কী কারণে ৬০ বছর বয়স বোঝা যায় না? ফাঁস সুনীল শেট্টির

  • ‘লোকে বলে আমার বয়স ৬০, কিন্তু বুড়ো হইনি’, মন্তব্য সুনীল শেট্টির।

বলিউড অভিনেতা সুনীল শেট্টিকে ‘গুটকা কিং’-এর তকমা! কিছুই করেননি, তবুও অভিনেতাকে এই তকমা? রেগে গিয়ে অভিনেতার মন্তব্য়, ‘ভাই তুমি তোমার চশমাটা ঠিক করো, নয়তো বদলে নাও।’

ঠিক কী ঘটেছিল? নেশাদ্রব্য বিপণীর হোর্ডিংয়ের একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন এক নেটিজেন। বিজ্ঞাপনের সঙ্গে জড়িত না থাকলেও, ভুল করে ওই নেটিজেন সুনীল শেট্টিকে ছবিতে ট্যাগ করে দেন। এমনকি এই ধরনের বিজ্ঞাপন করার জন্য অভিনেতাকে নিয়ে সমালোচনাও করেন।

সেই হোর্ডিংয়ে শাহরুখ, অজয় এবং অক্ষয়কে দেখা গিয়েছে। কিন্তু সুনীল শেট্টি ছিলেন না। বিষয়টা নজর এড়ায়নি ‘ধড়কন’ অভিনেতার। পালটা জবাব দিতে ভোলেননি তিনি। ওই টুইটার ব্যবহারকারী অভিনেতার কাছে ক্ষমা চেয়ে জানিয়েছেন, ভুলবশত অভিনেতাকে ট্যাগ করেছেন তিনি। সেই ব্যক্তি লেখেন, ‘এটা ভুল করে হয়েছে। আমি আপনাকে আঘাত করতে চাইনি ভাই। অনেক ভালোবাসা আপনাকে। আমি আসলে অজয় দেবগণকে ট্যাগ করতে চেয়েছিলাম।’ আরও পড়ুন: পাহাড়ের কোলে বিলাসবহুল বাংলো সুনীল শেট্টির, অন্দরমহল ঘুরিয়ে দেখালেন অভিনেতা

পাশাপাশি তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমি আপনার অনুরাগী। তাই ট্যাগ করতে গেলে সবার আগে আপনার নাম আসে।’

সুনীল শেট্টির কথায়, ‘আমি জীবনে তামাক ছুঁয়েও দেখিনি। লোকে আমাকে বলে ৬০ বছর বয়স হয়ে গিয়েছে, তাও আমাকে দেখে বয়স বোঝা দায়, এটাই হয়তো কারণ। মানুষ মদ খায়। আমার থেকে বেশিদিন বাঁচে। বলা হয় যে তামাক এবং অ্যালকোহল বিক্রি হয়, তাই তাদের বিজ্ঞাপনের প্রয়োজন। আমি মনে করি, আমরা যারা এটি ব্যবহার করতে চাই না, তাদের অবশ্যই বিজ্ঞাপন থেকে বিরত থাকতে হবে। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে অনেক কিছু ঘটে, আমি সেসব থেকে দূরে থাকি।’

অভিনেতা আরও বলেন, ‘তার মানে এই নয় যে আমি সাধু। আমি ভগবানও নই, সাধুও নই, আমারও কমতি আছে। তাই মন্তব্য করতে ভালো লাগে না। কিন্তু ওখানে টুইটে বলা হয়েছে, ভারতে বিগড়ে দিচ্ছি। তাই আমি চশমা বদলানোর কথা বলেছি। সেটাও ছিল শুধুমাত্র উপদেশ। এমনকি আমি তাকে ভাই বা ছেলে বলে সম্বোধন করেছি। আমাদের প্রত্যেকের নিজস্বতা আছে। আমি খুব বেশি চিনি খাই না, এমনকি বেশি খাবারও খাই না। তবে, আমি বলব না যে আমি সঠিক এবং অন্যরা ভুল।’

 

বন্ধ করুন