বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যুর দিন রিয়াকে কী মেসেজ করেছিলেন মহেশ ভাট ? দু'বার এসেছিল ফোন
মহেশ-রিয়ার গোপন চ্যাট ফাঁস 
মহেশ-রিয়ার গোপন চ্যাট ফাঁস 

সুশান্তের মৃত্যুর দিন রিয়াকে কী মেসেজ করেছিলেন মহেশ ভাট ? দু'বার এসেছিল ফোন

  • ১৪ জুন সকাল ৯.৩৫ মিনিটে রিয়া মেসেজ করেন মহেশ ভাটকে। সেদিন হোয়াটসঅ্যাপে রিয়াকে ফোনও করেছিলেন সড়ক ২ পরিচালক।
  • কী কথা হয়েছিল হোয়াটসঅ্যাপে-ফাঁস হয়ে গেল সেই কথোপকথন।

সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মামালর মূল অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তী ও মহেশ ভাটের মধ্যেকার বেশ কিছু হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট সংবাদমাধ্যমে ফাঁস হয়ে যায় গত বৃহস্পতিবার রাতে। সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই নেটিজেনদের রোষের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন এই দুই ব্যক্তিত্ব। ৮ জুন রিয়া সুশান্তের অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়ে চলে যান। সেই দিন মহেশ ভাটকে পাঠানো হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজে সুশান্তের সঙ্গে ব্রেক-আপের পূর্ণ ইঙ্গিত দিয়েছেন রিয়া। মহেশ ভাটের কথাতেই যে সুশান্তের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে ফেলবার সিদ্ধান্ত নেন ‘জলেবি’ নায়িকা-তেমন ইঙ্গিতও মিলেছে।এবার সামনে  এল রিয়া-মহেশের আরও কিছু গোপন কথোপকথন।  তাও ১৪ জুনের! যেই দিন সুশান্তের মৃত্যু হয়। 

ইন্ডিয়া টুডের তরফে শেয়ার করা হয়েছে ৯ জুন থেকে ১৫ জুনের কথোপকথন। ১০ তারিখ রিয়াকে একটি ছবি ফরোয়ার্ড করেন মহেশ ভাট। লেখেন- ‘কোনও কোনও সময় কোনও জিনিসটা ঠিক কী রকম তা দেখবার জন্য তোমাকে এক পা পিছোতে হয়, এবং তারপর আরও কিছু পা..তারপর আরও কিছু’। রিয়া জবাবে লেখেন- ‘খুব সত্যি। আমি ধীরে ধীরে নিজের চৈতন্য খুঁজে পাচ্ছি। শুভ সকাল’।

জুনের ১২ তারিখ, মহেশ ভাট আরও একটি মেসেজ পাঠান রিয়াকে। কী ছিল সেই বার্তায়? ‘একাকীত্ব আমাদের জীবনের শিল্পী সত্ত্বাকে বিকশিত করতে একটা গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে, জন্ম নেয় কারুর প্রকৃত সত্ত্বার’।

১৪ জুন, যেদিন সুশান্তের মৃত্যু হয় সেই রবিবারের সকালে ৯.৩৫ মিনিটে রিয়া মেসেজ করেন মহেশ ভাটকে। ‘শুভ সকাল স্যার। আমি দাবি করছি আমার এনার্জির সেই ডোজ যা আমি পাই আপনার মর্নিং উদ্ধৃতি গুলো থেকে, যা আপনি হোয়াটসঅ্যাপে পাঠান। ব্যাস এইটুকুই, লাভ ইউ’। মহেশ ভাট জবাবে লেখেন- ‘অনুভূতি আসে যায়…নীল আকাশে জমা মেঘের মতো, বুঝে শুনে নিশ্বাস নিতে হয় সেটাই গুরুত্বপূর্ন’। এরপর যোগ করেন ‘তোমায় ভালোবাসি আমার সন্তান’। অন্য দিক থেকে রিয়া লেখেন-'লাভ ইউ স্যার, আমার দেবদূত'।

সুশান্তের মৃত্যুর খবর বাইরে আসবার কয়েক মুহুর্তের মধ্যে মহেশ ভাটকে টেক্সট করেন রিয়া। ২.৩৫ মিনিটে রিয়ার ফোন থেকে মহেশ ভাটের কাছে মেসেজ যায়- ‘কল মি’। কিন্তু জবাবে কোনও মেসেজ আসেনি। যদিও বিকাল ৪ এবং ৫ টার সময় দু'বার রিয়াকে হোয়াটসঅ্যাপে ফোন করেন মহেশ ভাট। 

এর আগে রিয়া-মহেশের ৮ জুনের যে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ফাঁস হয়েছিল তাতে কী লেখা ছিল? 

রিয়া লেখেন, 'আয়শা (জলেবি ছবিতে রিয়ার চরিত্রের নাম) মুভস অন..স্যার, মন ভারাক্রান্ত তবে একটা স্বস্তি'। এরপর রিয়া রিয়া যোগ করেন, ‘আমাদের শেষ (ফোন) কলটা আমার ঘুম ভাঙিয়ে দিয়েছে। তুমি আমার স্বর্গদূত, তুমি ছিলে,তুমি আছ এবং তুমিই থাকবে’। জবাবে মহেশ ভাট জানান, পিছন ফিরে তাকিও না। সেটাই সম্ভবপর যা অবশ্যম্ভাবী। জবাবে মহেশ ভাট জানান, পিছন ফিরে তাকিও না। সেটাই সম্ভবপর যা অবশ্যম্ভাবী।

সুশান্তের ‘আত্মহত্যার’ কারণ খতিয়ে দেখতে মুম্বই পুলিশ আগেই মহেশ ভাটের বয়ান রেকর্ড করেছে।সূত্রের খবর মুম্বই পুলিশকে দেওয়া বয়ানে মহেশ ভাট জানিয়েছেন সুশান্তের সঙ্গে জীবনে দুবার তাঁর সাক্ষাত্ হয়েছে। মহেশ ভাট পুলিশকে জানান সুশান্ত নিজে থেকেই সড়ক টুয়ের অংশ হতে চেয়েছিলেন এবং মহেশ ভাটের সঙ্গে দেখাও করেছিলেন। ২০১৮ সালে প্রথম সুশান্ত তাঁর অফিসে এসেছিল এবং চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে সুশান্ত যখন অসুস্থ ছিল তখন নাকি তিনি দেখা করেন প্রয়াত অভিনেতার সঙ্গে। সুশান্তের বান্দ্রার অ্যাপার্টমেন্টেই নাকি দেখা করেছিলেন মহেশ ভাট।

 

বন্ধ করুন