বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Prantik-Ankita: দুধ সাদা বিছানায় অনাবৃত ঊর্ধাঙ্গ, প্রান্তিকের ডাক ‘আমি হাজার বছর বাঁধবো তোমায়’
প্রান্তিক-অঙ্কিতার জমজমাট রসায়ন
প্রান্তিক-অঙ্কিতার জমজমাট রসায়ন

Prantik-Ankita: দুধ সাদা বিছানায় অনাবৃত ঊর্ধাঙ্গ, প্রান্তিকের ডাক ‘আমি হাজার বছর বাঁধবো তোমায়’

 ‘আমি তোমার সাথে ঘর করেছি দুই পলকের মাঝে’, নতুন বউ মুম্বইয়ে শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত, অঙ্কিতাকে ভীষণ মিস করছেন প্রান্তিক!

‘আমি হাজার বছর বাঁধবো তোমায় প্রেমের গানের জটে, দাও যুক্তি অদ্ভুত…যদি তাতেও ধরো খুঁত আমি রাখাল সাজবো গ্রামে, তোমায় ডাকবো অন্য নামে…’।

বিয়ের বয়স সবে চার মাস, যদিও প্রান্তিক-অঙ্কিতা জুটি এই সুখবরটা প্রকাশ্যে এনেছেন মাত্র দিন কয়েক আগে। চলতি সপ্তাহের শুরুতেই জানা গিয়েছে গত জানুয়ারি মাসে সিকিমের পাহাড়ি গ্রামে বৈদিক মতে বিয়ের পর্ব সেরেছেন অভিনেতা প্রান্তিক বন্দ্যোপাধ্যায় ও অঙ্কিতা চক্রবর্তী। শহুরে কোলাহল থেকে বহুদূরে একদম নিজেদের মতো করে নতুন জীবনটা শুরু করেছিলেন দুজনে। স্বভাবতই আপতত এই জুটির ‘হানিমুন পিরিয়ড’ চলছে। মধুচন্দ্রিমার ঘোর এক্কেবারেই কাটছে না। সপ্তাহান্তে ফুরফুরে মেজাজে নতুন বর। ‘রাধা’ অঙ্কিতা চক্রবর্তীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ডাক’ পাঠালেন ‘কৃষ্ণ’।

এদিন ইনস্টাগ্রামে অভীক চট্টোপাধ্যায়ের গান প্রেক্ষাপটে রেখে একটি রিল ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন প্রান্তিক। সেখানে দেখা গেল ধপধপে সাদা বিছানায় বসে রয়েছেন অভিনেতা, ঊর্ধাঙ্গ অনাবৃত, নীচে চাদর জড়িয়ে রয়েছেন। চোখে-মুখে ভালোবাসার রঙ লেগেছে। হাতে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রেমের উপন্যাস ‘রাধাকৃষ্ণ'। যদিও সেই বইয়ের পাতায় মন ঠিকছে না তাঁর। শূন্য হাত বাড়িয়ে প্রেয়সীকে ধরবারও ব্যর্থ চেষ্টা চালাতে দেখা গেল তাঁকে।

হঠাৎ কেন নতুন বৌকে ডাক বাক্সের গান উপহার? আসলে চমক এইখানেই। এই মুহূর্তে অঙ্কিতা মুম্বইয়ে ওয়েব সিরিজের শ্যুটে ব্যস্ত। আর ‘মন ফাগুন’-এর খলনায়ক সৌমেন রয়েছেন কলকাতায়। পাশাপাশি ১৩ মে মুক্তি পেতে চলেছে শিলাদিত্য মৌলিকের ‘হৃদপিণ্ড’। সেই ছবির প্রচারেও বেজায় ব্যস্ত প্রান্তিক। সদ্য বিয়ের পর বাড়িতে একা দিনযাপন করলে বউয়ের কথা মনে তো পড়বেই!

এই রিল ভিডিয়োটি মাস কয়েক আগের, তখনও দুজনে বিয়ে করেননি। ভিডিয়োর সঙ্গে উপযুক্ত গান বসিয়ে এডিট করে দিয়েছিলেন অঙ্কিতা নিজেই, তখন দুজনেই ভাবেননি পরিস্থিতির সঙ্গে এমন মিলে যাবে এই গান। ১ লা জানুয়ারি সিকিমের এক গ্রামে শহুরে আড়ম্বর থেকে দূরে একদম সাদামাটা বিয়ে সেরেছেন দুজনে। সেই বিয়ের সাক্ষী ছিল না তাঁদের পরিবারও।

মন্ত্র উচ্চারণ করে বিয়ে করেননি দুজনে, বিয়ের রেজিস্ট্রিও করানোর কোনও পরিকল্পনা নেই। নিজেদের ছন্দে, নিজেদের মতো করে জীবনটা কাটাতে চান প্রান্তিক-অঙ্কিতা।

বন্ধ করুন